ঢাকা,বুধবার,৫ কার্তিক ১৪২৭,২১,অক্টোবর,২০২০
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী   * বাংলাদেশকে একশ অত্যাধুনিক ভেন্টিলেটর দিবে আমেরিকা   * বীজ ধানের কেজিতে ১০ টাকা ভর্তুকি দেয়া হবে: কৃষিমন্ত্রী   * মুক্তি পাচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া   * প্রধানমন্ত্রীর দশ নির্দেশনা   * সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ   * টিসিবি এবং ভোক্তা অধিদফতরের সকলের ছুটি বাতিল   * প্রয়োজনে দেশে জরুরি অবস্থা জারির পরামর্শ   * করোনায় বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়াল!   * ঢাকা স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অনুমোদন!  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী

অনলাইন ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে। একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রতিটি মানুষকে ঘর তৈরি করে দিয়ে তার একটা ঠিকানা করে দিতে হবে। কোন মানুষ ঠিকান বিহীন থাকবে না।’

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ৭০তম বুনিয়াদি কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘কোন শিশু পথশিশু হয়ে থাকবে না। প্রত্যেক শিশুরই একটা ঠিকানা হবে। সে যেনো পড়ালেখা করে, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেই কর্ম সংস্থান সৃষ্টি করতে পারে সেই ব্যবস্থা আমাদেরই করে দিতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের ভূ-খণ্ড ছোট হলেও মানুষ অনেক বেশি। সে কারণে প্রতিটি গ্রামই যেনো শহরের সুযোগ সুবিধা পায়, গ্রামে বসে যেনো নাগরীক সুবিধা পায় সেভাবেই আমরা গ্রামগুলোকে গড়ে তুলতে চাই।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘ধর্ষণ সমাজের একটি ব্যাধি। ইদানিং এটা ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে এবং প্রচারও হচ্ছে। যতবেশি এই ঘটনাগুলো প্রচার হচ্ছে, ততবেশি এর প্রাদুর্ভাব বাড়ছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আইন সংশোধন করে অধ্যাদেশ জারি করা হয়েছে। এসব ঘটনা রোধ করার জন্য ব্যাপক ব্যবস্থা নিতে হবে। এই ব্যাপারে জনসচেতনতাও সৃষ্টি করা প্রয়োজন।’

বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
                                  

অনলাইন ডেস্ক :প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেছেন, ‘বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে। একটি মানুষও গৃহহীন থাকবে না। প্রতিটি মানুষকে ঘর তৈরি করে দিয়ে তার একটা ঠিকানা করে দিতে হবে। কোন মানুষ ঠিকান বিহীন থাকবে না।’

বৃহস্পতিবার (১৫ অক্টোবর) লোক প্রশাসন প্রশিক্ষণ কেন্দ্রে ৭০তম বুনিয়াদি কোর্সের সমাপনী অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এ কথা বলেন।

তিনি আরও বলেন, ‘কোন শিশু পথশিশু হয়ে থাকবে না। প্রত্যেক শিশুরই একটা ঠিকানা হবে। সে যেনো পড়ালেখা করে, প্রশিক্ষণের মাধ্যমে নিজেই কর্ম সংস্থান সৃষ্টি করতে পারে সেই ব্যবস্থা আমাদেরই করে দিতে হবে।’

শেখ হাসিনা বলেন, ‘আমাদের ভূ-খণ্ড ছোট হলেও মানুষ অনেক বেশি। সে কারণে প্রতিটি গ্রামই যেনো শহরের সুযোগ সুবিধা পায়, গ্রামে বসে যেনো নাগরীক সুবিধা পায় সেভাবেই আমরা গ্রামগুলোকে গড়ে তুলতে চাই।’

সরকার প্রধান বলেন, ‘ধর্ষণ সমাজের একটি ব্যাধি। ইদানিং এটা ব্যাপকভাবে বেড়ে গেছে এবং প্রচারও হচ্ছে। যতবেশি এই ঘটনাগুলো প্রচার হচ্ছে, ততবেশি এর প্রাদুর্ভাব বাড়ছে।’

প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘আইন সংশোধন করে অধ্যাদেশ জারি করা হয়েছে। এসব ঘটনা রোধ করার জন্য ব্যাপক ব্যবস্থা নিতে হবে। এই ব্যাপারে জনসচেতনতাও সৃষ্টি করা প্রয়োজন।’

বাংলাদেশকে একশ অত্যাধুনিক ভেন্টিলেটর দিবে আমেরিকা
                                  

অনলাইন ডেস্ক :স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রী জাহিদ মালেক বলেছেন, ‘কোভিড মোকাবেলা করতেও আমেরিকা বাংলাদেশের সার্বিকভাবে নানাখাতে সহায়তা করে যাচ্ছে। এরই ধারাবাহিকতায় আগামী কয়েকদিনের মধ্যেই আমেরিকা বাংলাদেশের কোভিডসহ অন্যান্য চিকিৎসা সেবা দিতে নতুন ও অত্যাধুনিক অন্তত একশটি ভেন্টিলেটর দিবে।’

আজ ১৫ অক্টোবর (বৃহস্পতিবার) বেলা ৩ টায় রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভ্যান্টিলেটর মেশিন ও গ্যাস এনালাইজার মেশিন হস্তান্তর সংক্রান্ত এক বৈঠক শেষে তিনি এসব তথ্য জানিয়েছেন।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, আমেরিকা বাংলাদেশের পরীক্ষিত বন্ধু রাষ্ট্র। দেশের যেকোন দুর্যোগে আমেরিকা বাংলাদেশের পাশে দাঁড়িয়েছে। 
বৈঠকে করোনা সংকট মোকাবেলায় উভয় দেশের বাস্তব অভীজ্ঞতা বিনিময় করা হয় এবং উভয় দেশে কোভিড-১৯ এর কারণে প্রাণ দেয়া মানুষদের আত্মার শান্তি কামনা করা হয়। এছাড়াও স্বাস্থ্যমন্ত্রী করোনাকালীন সময়ে বাংলাদেশ সরকারের নানা উদ্যোগ তুলে ধরেন এবং প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কিভাবে করোনা মোকাবেলায় দিক নির্দেশনা দিয়েছেন তার বর্ণনা দেন।

অনুষ্ঠানে আমেরিকার প্রতিনিধিগণ করোনা মোকাবেলায় বাংলাদেশের উদ্যোগসমূহের ভুয়সী প্রশংসা করেন এবং প্রধানমন্ত্রীর বিচক্ষণ নেতৃত্বের কথা উল্লেখ করেন। বৈঠকে আগামীতে ভ্যাক্সিন উৎপাদন শুরু হলে আমেরিকার পক্ষ থেকে বাংলাদেশকে সব ধরনের সহায়তার আশ্বাস দেন ডেপুটি সেক্রেটারি মি.বাইগান এবং বাংলাদেশের পক্ষে দ্রুত ভ্যাক্সিন পেতে আমেরিকা সরকার সব ধরনের সয়াহতা করবেন বলেও জানান তিনি।

বৈঠকে বাংলাদেশের পক্ষে স্বাস্থ্যমন্ত্রীর সাথে আরো উপস্থিত ছিলেন আইসিটি মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী জুনায়েদ আহমেদ পলক, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশিদ আলমসহ অন্যান্য কর্মকর্তাবৃন্দ। যুক্তরাষ্ট্রের পক্ষে দেশটির ডিপার্টমেন্ট অব স্টেটের ডেপুটি সেক্রেটারি মি. স্টেফেন এডওয়ার্ড বাইগান, বাংলাদেশে নিযুক্ত ইউএসএ এম্বাসাডর মি.আর্ল আর মিলারসহ অন্যান্য উর্দ্ধতন কর্মকর্তাবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।

বীজ ধানের কেজিতে ১০ টাকা ভর্তুকি দেয়া হবে: কৃষিমন্ত্রী
                                  

অনলাইন ডেস্ক : কৃষিমন্ত্রী ড. মো. আব্দুর রাজ্জাক বলেছেন, আগামী বোরো মৌসুমে উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বোরো ধান বীজ কেজি প্রতি ১০ টাকা হারে ভর্তুকি প্রদান করা হবে। তিনি বলেন, ‘কয়েক দফা বন্যায় রোপাআমন বীজতলা, চারা ও মাঠে দন্ডায়মান ফসলের ক্ষতি হয়েছে। ক্ষতি পোষাতে বিনামূল্যে চারা বিতরণ, ভর্তুকি সহায়তা ও উদ্বুদ্ধকরণের মাধ্যমে রোপা আমন ধানের আবাদে সহায়তা দেয়া হয়েছে। আগামী বোরো মৌসুমেও উৎপাদন বৃদ্ধির জন্য বোরো ধান বীজ কেজি প্রতি ১০ টাকা হারে ভর্তুকি প্রদান করা হবে।’

মন্ত্রী আজ মন্ত্রণালয়ের সম্মেলন কক্ষে বিশ্ব খাদ্য দিবস-২০২০ উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে এ কথা বলেন। এসময় কৃষি সচিব মো. নাসিরুজ্জামান উপস্থিত ছিলেন।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, করোনাভাইরাস প্রাদুর্ভাবের শুরু থেকেই সামনে থেকে নেতৃত্ব দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। সম্ভাব্য খাদ্য সংকট মোকাবিলায় কৃষিকে সর্বোচ্চ গুরুত্ব দিয়ে এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে সে নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। এসব উদ্যোগের ফলে সকল আশঙ্কাকে পিছনে ফেলে করোনা মহামারির চরম বিরূপ পরিস্থিতি এবং ঘূর্ণিঝড়, বন্যার মতো প্রাকৃতিক দুর্যোগের মাঝেও বাংলাদেশ খাদ্য উৎপাদনের ধারা অব্যাহত রেখেছে। এ অর্থবছরে চালের উৎপাদন বৃদ্ধি পেয়ে প্রায় ৩ কোটি ৮৭ লাখ টনে উন্নীত হয়েছে।

তিনি বলেন, করোনাকালে ও করোনা পরবর্তীকালীন খাদ্য নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে কৃষি মন্ত্রণালয় নিরলসভাবে কাজ করছে। আউশ এবং আমন ধান উৎপাদনের লক্ষ্যমাত্রা বাড়ানো হয়েছে। চলতি ২০২০-২১ অর্থ বছরে আউশের আবাদ হয়েছে ১৩.২৯৬ লাখ হেক্টর এবং উৎপাদন হয়েছে প্রায় ৩৪.৫১৭ লাখ টন। ফলে আউশের আবাদ গত বছরের তুলনায় প্রায় ২ লাখ হেক্টর ও উৎপাদন ৪.০ লাখ টন বৃদ্ধি পেয়েছে। এছাড়া, এ বছর আমন ধান (রোপা ও বোনা আমন) আবাদের লক্ষ্যমাত্রা ছিল ৫৯ লাখ হেক্টর।

কৃষিমন্ত্রী বলেন, প্রতি ইঞ্চি জায়গা চাষের আওতায় এনে পারিবারিক পুষ্টি নিরাপত্তা নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে ৩৭ কোটি ৩৬ লাখ টাকা ব্যয়ে দেশের ৪৩৯৭টি ইউনিয়নে ৩২টি করে মোট ১ লক্ষ ৪০ হাজার ৩৮৭টি পরিবারে পুষ্টি বাগান স্থাপন করা হয়েছে। এছাড়া, মুজিব শতবর্ষ পালন উপলক্ষে প্রতি ইউনিয়নে নতুনভাবে ১০০ (একশত)টি করে পারিবারিক পুষ্টিবাগান স্থাপন করা হচ্ছে।

কয়েক দফার বন্যার ক্ষয়ক্ষতি পুষিয়ে নিতে মন্ত্রণালয়ের কার্যক্রম তুলে ধরে মন্ত্রী বলেন, ইতোমধ্যে প্রায় ১৭ কোটি ৫৪ লাখ টাকার সার, বীজসহ কৃষি উপকরণ পুর্নবাসন কর্মসূচি হিসেবে ২ লাখ ৩৯ হাজার ৬৩১ জন ক্ষতিগ্রস্ত ক্ষুদ্র ও প্রান্তিক কৃষকের মাঝে বিতরণ করা হয়েছে। আরও প্রায় ৭৫ কোটি টাকা দিয়ে ৯ লাখ ২৯ হাজার ১৯৪ জন ক্ষতিগ্রস্ত প্রত্যেককে কৃষককে গম, সরিষা, চিনাবাদাম, সূর্যমুখী, খেসারী, পিঁয়াজ, মরিচ, টমেটো ইত্যাদি ফসল আবাদের জন্য বিনামূল্যে কৃষি উপকরণ সরবরাহ কাজ চলছে। তিনি বলেন, ‘এই সাফল্যের পরেও কোভিড পরবর্তী বাংলাদেশে খাদ্য ও পুষ্টি নিরাপত্তা নিয়ে সচেতন থাকতে হবে। উদ্যোগ অব্যাহত রাখতে হবে। এ লক্ষ্যকে সামনে নিয়ে এবার আমরা পালন করতে যাচ্ছি বিশ্ব খাদ্য দিবস।’

উল্লেখ্য, আগামীকাল ১৬ অক্টোবর ২০২০ রোজ শুক্রবার কৃষি মন্ত্রণালয় ও জাতিসংঘের খাদ্য ও কৃষি সংস্থা (এফএও) এর যৌথ উদ্যোগে বিশ্বের অন্যান্য দেশের মতো বাংলাদেশেও পালিত হবে ‘বিশ্ব খাদ্য দিবস-২০২০’। এবারের প্রতিপাদ্য হলো ‘সবাইকে নিয়ে একসাথে বিকশিত হোন, শরীরের যত্ন নিন, সুস্থ থাকুন। আমাদের কর্মই আমাদের ভবিষ্যত।’

ব্রিফিংয়ে জানানো হয়, ‘বিশ্ব খাদ্য দিবস-২০২০’ উদযাপন উপলক্ষে আগামীকাল সকাল ১০টায় সোনারগাঁও হোটেলে একটি আন্তর্জাতিক সেমিনারের আয়োজন করা হয়েছে। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এই আন্তর্জাতিক সেমিনারে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থাকতে সদয় সম্মতি জানিয়েছেন। আন্তর্জাতিক সেমিনারের পর বেলা আড়াইটায় প্যান প্যাসিফিক সোনারগাঁও হোটেলে একটি কারিগরি সেশন অনুষ্ঠিত হবে।

এছাড়া জনসচেতনতা বৃদ্ধির লক্ষ্যে সকল মানুষকে অবহিতকরণের জন্য বিশ্ব খাদ্য দিবসে মোবাইলে সচেতনতামূলক খুদে বার্তা প্রেরণ, জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় (বাংলা ও ইংরেজি) বিশেষ ক্রোড়পত্র প্রকাশ, বিশ্ব খাদ্য দিবসের প্রতিপাদ্য ও তাৎপর্য সম্বলিত পোস্টার/বিলবোর্ড/ভিডিও/ম্যাসেজ/ডকুমেন্টেশন প্রচার, ‘কৃষিকথা’ ম্যাগাজিনের বিশেষ সংখ্যা প্রকাশসহ বিভিন্ন কার্যক্রম নেয়া হয়েছে।

প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ নদীতীরে স্থানান্তরযোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের
                                  

 অনলাইন ডেস্ক :

শেরেবাংলানগরের এনইসি সম্মে-লনকক্ষে একনেক বৈঠকটি অনুষ্ঠিত হয়। এতে গণভবন থেকে ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে সভাপতিত্ব করেন প্রধানমন্ত্রী ও একনেক চেয়ারপারসন শেখ হাসিনা। সভা শেষে নিজ দপ্তর হতে ভার্চুয়াল সংবাদ সম্মেলনে এ তথ্য জানান পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান।

মন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, নদী খননের সঙ্গে সঙ্গে খালও পরিষ্কার রাখতে হবে। ড্রেজিং গভীর করে করতে বলেছেন, যাতে করে ভাঙন কম হয়। আমাদের বন্যার সঙ্গে অ্যাডজাস্ট করে চলতে হবে। বন্যার পানি যাতে দ্রুত নেমে যেতে পারে সেজন্য উপকূলীয় অঞ্চলের নদীগুলো ড্রেজিং করার নির্দেশনা দিয়েছেন তিনি। নদীভাঙন প্রবণ এলাকায় স্কুল, কলেজ, মসজিদ-মাদ্রাসা এমন ভাবে নির্মাণ করতে হবে যাতে ভাঙন শুরু হলে এগুলো দ্রুত সরিয়ে নেওয়া যায়। মুন্সিগঞ্জে ঘড়বাড়িগুলো টিনের একতলা, দোতলা। নদীভাঙন শুরু হলে দ্রুত এগুলো স্থানান্তর করা যায়। প্রধানমন্ত্রী এ ধরনের মডেল ডেভেলপ করতে বলেছেন। যাতে করে বড় বড় ভবন নদীগর্ভে চলে না যায়।

 

একনেক সভায় ৩ হাজার ৪৬১ কোটি ৯৭ লাখ টাকা ব্যয় সংবলিত সাতটি প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। প্রকল্পগুলো নিয়ে আলোচনায় প্রধানমন্ত্রীর বিভিন্ন নির্দেশনা ও অনুশাসনের বিষয়ে পরিকল্পনামন্ত্রী জানান, দেশে আর ‘স্লুইসগেট’ না করার নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে। কারণ এর বেশির ভাগ কাজ করছে না, সঠিক ভাবে রক্ষণাবেক্ষণও হচ্ছে না। এজন্য এগুলো নির্মাণের আগে একটি সমীক্ষা করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী।

সভায় সড়ক বিভাগের প্রকল্পে ডাকবাংলো নির্মাণ না করার নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধামন্ত্রী। সভায় ৫২৬ কোটি ৪২ লাখ টাকা ব্যয়ে খুলনা সড়ক জোনের আওতাধীন মহাসড়কে বিদ্যমান সরু ও ঝুঁকিপূর্ণ পুরাতন কংক্রিট সেতু/বেইলি সেতুর স্থলে কংক্রিট সেতু নির্মাণ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পের আওতায় ২৪টি জরাজীর্ণ কংক্রিট সেতু ও ২৫টি বেইলি সেতুর স্থলে মোট ৪৯টি নতুন কংক্রিট সেতু নির্মাণ করার লক্ষ্য রয়েছে। এই কাজের তদারকি করার জন্য প্রায় ৩ কোটি টাকা ব্যয়ে পরিদর্শন বাংলো নির্মাণের প্রস্তাব করা হয়।

এ বিষয়ে পরকল্পনামন্ত্রী জানান, এখন যাতায়াত ব্যবস্থার অনেক উন্নতি হয়েছে। কয়েক ঘণ্টার মধ্যেই পরিদর্শন শেষ করে ফেরা যায়। আগে সেই ব্রিটিশ আমলে যখন যাতায়াত ব্যবস্থা খারাপ ছিল, থাকার জায়গা ছিল না তখন এসব বাংলো নির্মাণ করা হতো। এ প্রকল্প হতে বাংলো নির্মাণ বাদ দিতে বলেছেন প্রধানমন্ত্রী। তাছাড়া উন্নত সড়কে টোল আদায়ের ব্যবস্থা রাখতে হবে। যাতে করে সড়কের রক্ষণাবেক্ষণ খরচ এই টোলের টাকায় মেটানো যায় সেই ব্যবস্থা করতে হবে।

একনেক সভায় ৮৪৫ কোটি ৫৩ লাখ টাকা ব্যয়ে বারৈয়ারহাট- হেঁয়াকো-রামগড় সড়ক প্রশস্তকরণ প্রকল্প অনুমোদন দেওয়া হয়েছে। এ প্রকল্পে ভারতীয় ঋণ (এলওসি) হতে ৫৮১ কোটি ২০ লাখ টাকা ব্যয়ের লক্ষ্য রয়েছে। প্রকল্পটি বাস্তবায়িত হলে খাগড়াছড়ির রামগড় দিয়ে ভারতের সঙ্গে যোগযোগ সহজ হবে। সভায় জানানো হয়েছে, প্রকল্পটি আগামী দুই বছরের মধ্যে বাস্তবায়ন হবে। এর মাধ্যমে বাংলাদেশ ও ভারতের মধ্যে আমদানি-রপ্তানি ও ব্যবসা-বাণিজ্য সম্প্রসারণ করাসহ প্রকল্প এলাকার জনগণের আর্থসামাজিক অবস্থার উন্নতি হবে।

সভায় অনুমোদিত অন্য প্রকল্পগুলো হলো :৫২৪ কোটি ৩৭ লাখ টাকা ব্যয়ে ‘দাউদকান্দি-গোয়ালমারী-শ্রীরায়েরচর (কুমিল্লা)-মতলব উত্তর (ছেঙ্গারচর) মহাসড়ক যথাযথ মান ও প্রশস্ততায় উন্নীতকরণ প্রকল্প, ৭১২ কোটি ২১ লাখ টাকা ব্যয়ে তেঁতুলিয়া নদীর ভাঙন হতে পটুয়াখালী জেলাধীন বাউফল উপজেলার ধুলিয়া লঞ্চঘাট হতে বরিশাল জেলাধীন বাকেরগঞ্জ উপজেলার দুর্গাপাশা রক্ষা প্রকল্প, ৫৩১ কোটি টাকা ব্যয়ে কপোতাক্ষ নদের জলাবদ্ধতা দূরীকরণ (২য় পর্যায়) প্রকল্প, ৬১ কোটি টাকা ব্যয়ে গভীর সমুদ্রে টুনা ও সমজাতীয় পেলাজিক মাছ আহরণে পাইলট প্রকল্প এবং ২৬১ কোটি ৩১ লাখ টাকা ব্যয়ে ইমার্জেন্সি মালটি সেক্টর রোহিঙ্গা ক্রাইসিস রেসপন্স প্রকল্প (১ম সংশোধিত)। রোহিঙ্গাদের সহায়তায় নেওয়া প্রকল্পটিতে ৩ লাখ ডলার অনুদান বাড়িয়েছে বিশ্বব্যাংক।

প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে গণভবনে শ্রিংলার বৈঠক
                                  

 অনলাইন ডেস্ক :

করোনা ভাইরাস সংক্রমণের সময় হঠাত্ কেন তার এই সফর, সেই বিষয়ে বাংলাদেশ বা ভারতের কোনো পক্ষ থেকেই আনুষ্ঠানিকভাবে আগে কোনো কিছু বলা হয়নি। তবে কূটনৈতিক সূত্রগুলো জানায়, করোনা পরবর্তী সময়ে দুই দেশের সম্পর্কে আরো গতি আনা যায় তা খতিয়ে দেখতেই এই সফর। দিল্লি এই বার্তা দিতেই পররাষ্ট্র সচিব শ্রিংলাকে ঢাকা পাঠিয়েছে। দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কের সকল দিক পর্যালোচনার জন্য দুই দেশের পররাষ্ট্র মন্ত্রী পর্যায়ের (জেসিসি) বৈঠক সহসাই অনুষ্ঠিত হবে। সুবিধাজনক সময়ে ভার্চুয়ালি এই বৈঠক হবে বলে সূত্রটি জানায়। সেখানে ভারতীয় আট বিলিয়ন ডলারের আর্থিক ঋণে (এলওসি) বাস্তবায়নাধীন প্রকল্পগুলোর অগ্রগতিও পর্যালোচনা করা হবে।কূটনৈতিক সূত্র জানায়, হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সৌজন্য সাক্ষাত্কালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা সম্প্রতি ভারত ১০টি লোকোমোটিভ ইঞ্জিন প্রদান করায় ধন্যবাদ জানান। দুই দেশের মধ্যে রেল চলাচল করছে। সহসাই কেবল দুই দেশের বিমান যোগাযোগ চালু হবে। করোনার কারণে মানুষে-মানুষে যোগাযোগ বন্ধ থাকলেও কীভাবে তা শুরু করা যায় তা নিয়ে আলোচনা হয়।হর্ষবর্ধন শ্রিংলা প্রধানমন্ত্রীকে অবহিত করেন যে, তিনি শুভেচ্ছা ও বন্ধুত্বের বার্তা নিয়ে এসেছেন। গত মার্চে মুজিব বর্ষের উদ্বোধনী পর্বে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির যোগদান করোনার কারণে স্থগিত করতে হয়। তবে ভার্চুয়ালি দুই দেশের মধ্যে যোগাযোগ ছিল। কিন্তু উচ্চ পর্যায়ে সফর না হওয়ায় প্রধানমন্ত্রী মোদি তাকে পাঠিয়েছেন। ২০২১ সালে বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণ জয়ন্তী দুই দেশ যৌথভাবে উদ্যাপন করবে। রোহিঙ্গা ইস্যুতে ভারতের সহযোগিতামূলক ভূমিকা অব্যাহত থাকবে।সূত্র আরো জানায়, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে শ্রিংলার সাক্ষাত্কালে দুই দেশের দ্বিপাক্ষিক ইস্যু ছাড়া আঞ্চলিক কোনো ইস্যু উত্থাপিত হয়নি। কানেকটিভি, বাণিজ্য, যোগাযোগ, তথ্যপ্রযুক্তি, নিরাপত্তাসহ প্রতিটি ক্ষেত্রে সহযোগিতা আরো এগিয়ে নিতে আলোচনা হয়।

আকস্মিকনয়, এটিনিয়মিতসফর

হর্ষবর্ধন শ্রিংলার সফর ও দ্বিপাক্ষিক বৈঠকের বিষয়ে পররাষ্ট্রসচিব মাসুদ বিন মোমেন গতকাল পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ে সাংবাদিকদের বলেন, ভারতের পররাষ্ট্রসচিবের ঢাকা সফর আকস্মিক নয়। এটি নিয়মিত সফর। তিনি বলেন, আমাদের দুই দেশের সম্পর্ক নিয়ে উভয়পক্ষের মধ্যে অনেক আলোচনা হয়। তবে এ বছর করোনা ভাইরাসের কারণে সে হিসেবে কমই হয়েছে। সব সময় আলোচনায় সম্পর্ক উন্নয়নের বিষয়টি থাকে। তবে এবার কোভিড-১৯ নিয়ে সহযোগিতার বিষয়টি থাকছে। তিনি বলেন, ভারতে এখন করোনার ভ্যাকসিন তৈরির চেষ্টা চলছে। ভ্যাকসিন নিয়ে আমরা কে কোন পর্যায়ে আছি সেটা নিয়ে আলোচনা হবে। মাসুদ বিন মোমেন বলেন, গত ছয় মাসে বেশ কিছু বিষয়ে অগ্রগতি হয়েছে। বিশেষ করে ট্রান্সশিপমেন্ট ও রেলওয়ের সহযোগিতা ত্বরান্বিত হয়েছে।শ্রিংলার সঙ্গে আলোচনায় রোহিঙ্গা ইস্যু আসবে কি না সাংবাদিকদের এমন প্রশ্নের জবাবে মাসুদ বিন মোমেন বলেন, হতে পারে। ভারত এই ইস্যুতে আমাদেরকে সহযোগিতার কথা বলে আসছে। তারা মিয়ানমার কর্তৃপক্ষকে সাহায্য করছে যাতে রোহিঙ্গা পুনর্বাসন হতে পারে। এ বিষয়ে সর্বশেষ অবস্থা জানতে চাইতে পারি।পররাষ্ট্রসচিব মোমেন আরো বলেন, বাংলাদেশ-ভারত দুই দেশের সম্পর্ক অনেক গভীর। এ সম্পর্কের যত্ন নেওয়া দরকার হয় যাতে ভুল বোঝাবুঝির সৃষ্টি না হয়। এছাড়া সম্প্রতি ভারতের কিছু গণমাধ্যমে কাল্পনিক খবর প্রকাশিত হয়েছে, সেগুলো নিয়ে কথা হবে যাতে সম্পর্কে কোনো দূরত্ব তৈরি না হয় সেই চেষ্টা থাকবে।যদিও ঢাকায় পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের একটি সূত্র বলছে, ভারতের আগ্রহের কারণেই এই সফরটি হচ্ছে।বাংলাদেশে ভারতের সাবেক হাইকমিশনার হর্ষবর্ধন শ্রিংলা চলতি বছরের জানুয়ারিতে দেশটির পররাষ্ট্রসচিবের দায়িত্ব নেন। দায়িত্ব নেওয়ার পর এটি তার দ্বিতীয় বাংলাদেশ সফর। তার সঙ্গে ঢাকায় এসেছেন ভারতের পররাষ্ট্র দপ্তরের যুগ্ম সচিব স্মিতা পন্ত।এদিকে শ্রিংলার সফর নিয়ে গতকাল ভারতের ‘টাইমস নাও নিউজ ডটকম’ এর এক খবরে বলা হয়েছে, দুই দিনের সফরে ঢাকায় গেলেন পররাষ্ট্রসচিব হর্ষবর্ধন শ্রিংলা। করোনা মহামারি শুরুর পর এটিই তার প্রথম আন্তর্জাতিক সফর। টাইমস নাও’য়ের ন্যাশনাল এডিটর শ্রীঞ্জয় চৌধুরী বলেন, করোনাকালে দুই দেশের জোরালো সম্পর্কের বিবেচনায় এই সফর খুবই গুরুত্বপূর্ণ। সফরকালে তিনি বাংলাদেশের পররাষ্ট্রসচিবের সঙ্গে বৈঠক করবেন। করোনাকালে সহযোগিতার মতো ইস্যু এই আলোচনায় থাকবে। চীনের ইস্যুও আরেকটি ইস্যু হতে পারে। লাদাখের নেতৃত্ব নিয়ে পররাষ্ট্রসচিব সেখানে আলোচনা করবেন। দ্বিপাক্ষিক ইস্যুও আলোচনায় থাকবে।

দ্য প্রিন্ট্র অনলাইনের এক খবরে বলা হয়েছে, চীন যখন বাংলাদেশকে আগ্রাসিভাবে সহায়তা দিচ্ছে তখন মোদি সরকার তড়িঘড়ি করে পররাষ্ট্রসচিব শ্রিংলাকে ঢাকা পাঠাচ্ছে। বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে তার বৈঠক হওয়ার কথা রয়েছে। সূত্রগুলো বলছে, এই বৈঠক খুবই তাত্পর্যপূর্ণ এবং লক্ষ্য হলো সম্পর্ক পুনঃস্থাপন। কারণ বিভিন্ন খবরে বলা হয়েছে, ঢাকা-বেইজিং সম্পর্ক অনেক বেশি উষ্ণ হয়েছে। অন্যদিকে গত বছর থেকে ভারত-বাংলাদেশ দ্বিপাক্ষিক সম্পর্কে কিছুটা টান টান অবস্থা তৈরি হয়েছে।

ঐ খবরে বলা হয়েছে, তিস্তা নদী প্রকল্পে বাংলাদেশ চীনের কাছ থেকে ১০০ কোটি মার্কিন ডলার (৮ হাজার ৫০০ কোটি টাকা) পাচ্ছে এমন ঘোষণার পটভূমিতে শ্রিংলার এই আকস্মিক সফর। তিস্তার পানি বণ্টন চুক্তি বাংলাদেশ-ভারতের মধ্যে সবচেয়ে বিতর্কিত ইস্যু। ২০১৫ সালের সফরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি প্রতিশ্রুতি দিয়েছিলেন যে শিগিগরই এর সমাধান হবে। যাহোক এক্ষেত্রে অগ্রগতি কমই হয়েছে। স্থানীয় গণমাধ্যমের খবর অনুযায়ী, ভারত সরকার চুক্তি চূড়ান্ত করতে ব্যর্থ হওয়ায় বাংলাদেশ তিস্তা প্রকল্প নিয়ে চীনের সঙ্গে চুক্তি করতে যাচ্ছে। ঐ খবরে বলা হয়েছে, কেন্দ্রীয় সরকার গত বছর নাগরিকত্ব সংশোধনী আইন (সিএএ) করার পর থেকে ঢাকা-নয়াদিল্লি সম্পর্কে বিশেষভাবে ‘টানাপোড়েন’ অবস্থা তৈরি হয়েছে।

 

প্রধানমন্ত্রীর দশ নির্দেশনা
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

দেশে করোনা ভাইরাসের বিস্তৃতি ও তা মোকাবেলায় রাষ্ট্রীয়ভাবে সাধারণ ছুটিসহ ১০টি নির্দেশনা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।এর আগে সেনাবাহিনীর প্রধান জেনারেল আজিজ আহমেদের সঙ্গে করোনা ভাইরাসের পরিস্থিতি নিয়ে আলোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী। এরপর তিনি দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয়ের প্রতিমন্ত্রী, মন্ত্রিপরিষদ সচিব এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের সঙ্গে বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করেন। সবশেষ জনগণের স্বার্থে কিছু সিদ্ধান্ত নেন প্রধানমন্ত্রী। তার সে সব সিদ্ধান্ত সোমবার সচিবালয়ে সংবাদ সম্মেলনে পড়ে শুনান মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম।

প্রধানমন্ত্রীর ১০ নির্দেশনা:

১. আগামী ২৬ মার্চ সরকারি ছুটি। এরপর ২৭ ও ২৮ মার্চের সাপ্তাহিক ছুটি। এর সঙ্গে ২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করেছে সরকার। এরপর ৩ ও ৪ এপ্রিলের সাপ্তাহিক ছুটি সাধারণ ছুটির সঙ্গে যোগ হবে।

এ সময় সরকারি-বেসরকারি সব প্রতিষ্ঠান ছুটির আওতায় থাকবে। তবে কাঁচাবাজার, খাবার, ওষুধের দোকান, হাসপাতালসহ জরুরি যে সব সেবা রয়েছে তার জন্য এ ছুটি প্রযোজ্য হবে না।

জনসাধারণকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোনোভাবেই ঘরের বাইরে না আসার জন্য অনুরোধ জানানো হয়েছে।

২. এ সময়ে যদি অফিসের প্রয়োজনীয় কাজ করতে হয় তাহলে তাদের অনলাইনে সম্পাদন করতে হবে। সরকারি অফিস সময়ের মধ্যে যারা প্রয়োজন মনে করবে তারাই শুধু অফিস খোলা রাখবে।

৩. গণপরিবহন চলাচল সীমিত থাকবে। জনসাধারণকে যথাসম্ভব গণপরিবহন পরিহারের পরামর্শ দেওয়া হচ্ছে। যারা জরুরি প্রয়োজনে গণপরিবহন ব্যবহার করবে তাদের অবশ্যই করোনা ভাইরাসে সংক্রমিত হওয়া থেকে মুক্ত থাকতে পর্যাপ্ত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। গাড়িচালক ও সহকারীদের অবশ্যই গ্লাভস এবং মাস্ক পরাসহ পর্যাপ্ত সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে।

৪. জনগণের প্রয়োজন বিবেচনায় ছুটিকালীন বাংলাদেশ ব্যাংক সীমিত আকারে ব্যাংকিং ব্যবস্থা চালু রাখার প্রয়োজনীয় নির্দেশনা দেবে।

৫. ২৪ মার্চ থেকে বিভাগীয় ও জেলা শহরগুলোতে সামাজিক দূরত্ব নিশ্চিতকরণ ও সতর্কতামূলক ব্যবস্থা গ্রহণের সুবিধার্থে প্রশাসনের সহায়তায় নিয়োজিত থাকবে সেনাবাহিনী। জেলা ম্যাজিস্ট্রেটদের সমন্বয়ে তারা ভাইরাস আক্রান্তদের চিকিৎসা ও সন্দেহজনকদের কোয়ারেন্টাইন ব্যবস্থা পর্যালোচনা করবে। বিশেষ করে বিদেশ ফেরতরা কোয়ারেন্টাইনে থাকতে কোনো ধরণের অবহেলা করছে কি না তা পর্যালোচনা করবে সেনাবাহিনী।

৬. করোনা ভাইরাসের কারণে নিম্ন আয়ের কোনো ব্যক্তি যদি স্বাভাবিক জীবনযাপনে অক্ষম হয়, তাহলে সরকারের যে ঘরে ফেরার কর্মসূচি রয়েছে, তার অধীনে সহায়তা করার ঘোষণা করা হচ্ছে। এ জন্য জেলা প্রশাসকরা প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন।

৭. সরকার ভাসানচরে এক লাখ লোকের আবাসন ও জীবিকা নির্বাহের ব্যবস্থা গ্রহণ করেছে। যারা আগ্রহী তারা সেখানে যেতে পারবেন। এ ব্যাপারে জেলা প্রশাসকরা প্রয়োজনীয় সহায়তা প্রদান করবেন।

৮. করোনা ভাইরাসজনিত কার্যক্রম বাস্তবায়নের কারণে দরিদ্র জনগোষ্ঠীর আয় ও অন্নসংস্থানের অসুবিধা নিরসনের জন্য জেলা প্রশাসকদের খাদ্য ও আর্থিক সহায়তা প্রদানের নির্দেশনা প্রদান করা হয়েছে।

৯. ইতোমধ্যে প্রধানমন্ত্রী বাংলাদেশ মেডিকেল অ্যাসোসিয়েশনকে (বিএমএ) নির্দেশনা দিয়েছেন, করোনা আক্রান্ত রোগীদের চিকিৎসার জন্য ৫০০ জন চিকিৎসকের তালিকা তৈরি ও তাদের প্রস্তুত রাখতে।

১০. সব রকম সামাজিক, রাজনৈতিক ও ধর্মীয় জনসমাগম নিষিদ্ধ করা হয়েছে। অসুস্থ ও জ্বর-সর্দি-কাশিতে আক্রান্ত ব্যক্তিদের মসজিদে না যাওয়ার জন্য বারবার নিষেধ করা হয়েছে। তারপরও তা ভঙ্গ করে মিরপুরে একজন বৃদ্ধ অসুস্থ অবস্থায় মসজিদে যান। করোনা ভাইরাসে আক্রান্ত ওই ব্যক্তি পরে মারা যান।

সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

প্রাণঘাতি করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে সারাদেশের অভ্যান্তরীণ ও দূরপাল্লার সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান বন্ধের নির্দেশ দিয়েছে বিআইডব্লিউটিএ। তবে পণ্যবাহী নৌযান এই নিষেধাজ্ঞার আওতায় পড়বে না। আজ সোমবার বিআইডব্লিউটিএ ‍এর পক্ষ থেকে এ ঘোষণা দেয়া হয়। এদিকে করোনা ভাইরাসের বিস্তাররোধে ইতোমধ্যেই ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ হয়েছে ট্রেন যোগাযোগ।

টিসিবি এবং ভোক্তা অধিদফতরের সকলের ছুটি বাতিল
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

করোনা ভাইরাসের কারণে নিত্য প্রয়োজনীয় পণ্যের সুষ্ঠু সরবরাহ নিশ্চিত করতে এবং পণ্যের মূল্য স্থিতিশীল রাখাসহ বাজার মনিটরিং কার্যক্রম অব্যাহত রাখার স্বার্থে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের আওতাধীন টিসিবি এবং জাতীয় ভোক্তা অধিকার সংরক্ষণ অধিদফতরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর সবধরনের ছুটি বাতিল করা হয়েছে।

বিশ্ব জুড়ে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া করোনা ভাইরাস বিস্তার রোধে সোমবার দেশে ১০ দিন সাধারণ ছুটি ঘোষণা করে সরকার। ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত ছুটি থাকবে। এই সময়ে সরকারি-বেসরকারি সব অফিস বন্ধ থাকবে। তবে হাসপাতাল ও জরুরি সেবা খোলা থাকবে। পুলিশি সেবাও থাকবে। কিন্তু নতুন করে এক প্রজ্ঞাপন অনুসারে জনস্বার্থে টিসিবি এবং ভোক্তা অধিদফতরের সকল কর্মকর্তা ও কর্মচারীর ছুটি বাতিল ঘোষণা করা হয়।

প্রয়োজনে দেশে জরুরি অবস্থা জারির পরামর্শ
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ এড়াতে প্রয়োজনে জরুরি অবস্থা জারির পরামর্শ দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। একইসঙ্গে ঢাকাসহ সারাদেশের কোথাও কোথাও লকডাউন করার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।শনিবার নিজ বাসভবনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধিদের সঙ্গে এক বৈঠক শেষে গণমাধ্যমকর্মীদের এসব তথ্য জানান ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের মেয়র মোহাম্মদ সাঈদ খোকন।

মেয়র বলেন, আমাদের কাছে মনে হয়েছে, বাংলাদেশে করোনা পরিস্থিতি আগামীতে ভয়াবহ রূপ ধারণ করতে পারে। এটাকে প্রতিরোধের জন্য এখনই সর্বশক্তি দিয়ে মোকাবিলা করতে হবে। তিনি আরো বলেন, বিশ্বের বিভিন্ন দেশে কিছু কিছু এলাকা আংশিক লকডাউন করা হয়েছে। আবার কোথাও কোথাও পুরোপুরি লকডাউন করা হয়েছে। অনেক দেশে জরুরি অবস্থা জারি করেছে। লকডাউন এবং জরুরি অবস্থা ঘোষণা করায় তারা ভালো ফল পেয়েছে। সে দেশগুলোতে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ধীরগতি হয়েছে। কোথাও কোথাও আক্রান্তের সংখ্যা কমে এসেছে। আবার কোথাও কোথাও শূন্যতে চলে এসেছে।

তিনি বলেন, ঢাকা একটি জনবহুল শহর। বাংলাদেশ একটি জনবহুল দেশ। এখানে সম্পূর্ণ লকডাউন করা কঠিন। তারপরও তারা (ডব্লিউএইচও) ঢাকা কিংবা অন্য কোনও এলাকা আংশিক লকডাউন অথবা ইমার্জেন্সি (জরুরি অবস্থা) ঘোষণা করা যায় কিনা সে বিষয়ে আমাদের পরামর্শ দিয়েছে। সেটি আমরা সরকারের সর্বোচ্চ নীতি নির্ধারণী পর্যায়ে পৌঁছে দেব। ঢাকায় বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার আবাসিক প্রতিনিধি ড. বর্ধন জং রানা বলেন, আমরা তো কোনও সিদ্ধান্ত দিতে পারি না। এটা রাষ্ট্রের নীতিনির্ধারণী পর্যায়ের বিষয়। আমরা কেউ ঝুঁকির বাইরে নেই।

ঢাকা স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অনুমোদন!
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

রাজধানী ঢাকার স্যানিটেশন ব্যবস্থার আরো উন্নয়নে বিশ্ব ব্যাংক ১৭ কোটি মার্কিন ডলার অনুমোদন করেছে। এতে উপকৃত হবেন নগরীর ১৫ লাখ লোক।স্যানিটেশন সুবিধাসহ নগরীতে বসবাসের মানোন্নয়নে বিশেষ করে নগরীর দক্ষিণ অংশের উন্নয়নে বিশ্বব্যাংক এই অর্থায়ন করবে। শনিবার এখানে ওয়াশিংটন ডিসি থেকে প্রাপ্ত এক বার্তায় এ কথা বলা হয়। এই প্রকল্প স্যুয়ায়েজ ব্যবস্থার উন্নয়ন করবে, এতে জলাবদ্ধতা পানি দূষণ হ্রাস পাবে।

এই কার্যক্রমের আওতায় বস্তিবাসী ও নিন্মআয়ের লোকদের জীবনমানের উন্নয়নে ৫০ হাজার নতুন পরিবারে স্যুয়ারেজ সংযোগ প্রদান করা হবে। টয়লেটের উন্নয়ন এবং সেপটিক ট্যাঙ্ক স্থাপন করবে। বাংলাদেশ ও ভুটানের জন্য বিশ্বব্যাংকের কান্ট্রি ডিরেক্টর মেরসি টেমবন বলেন, ঢাকার নিন্ম আয়ের প্রায় ৩৫ লাখ লোক বিশেষ করে নারীরা নিন্মমানের স্যানিটেশন ও দূষণের ভোগান্তিতে রয়েছে। তিনি বলেন, এই প্রকল্প নিরাপদ স্যানিটেশন নিশ্চিত করবে যা চরম দারিদ্র্যের পাশাপাশি জনস্বাস্থ্যের ঝুঁকি কমানোর জন্য জরুরি।

প্রকল্পের আওতায় পাগলা এলাকায় নতুন স্যুয়ায়েজ ট্রিটমেন্ট প্লান্ট নির্মাণ করা হবে। এখানে দৈনিক প্রায় ১৫ কোটি লিটার পানি পরিশোধন করা যাবে। - খবর বাসস

করোনা প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ আনার পরিকল্পনা সরকারের
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

বাংলাদেশে করোনা ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে। মৃত্যুও বেড়ে দাঁড়িয়েছে দুইজনে। এমন অবস্থায় ভাইরাস প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও নার্স আনার পরিকল্পনা করছে সরকার।শনিবার দুপুরে রাজধানীর মহাখালীতে স্বাস্থ্য অধিদফতরের সভাকক্ষে সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান।

বর্তমান পরিস্থিতিকে যুদ্ধাবস্থা উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ চিকিৎসকআনার পরিকল্পনা রয়েছে সরকারের। করোনা প্রতিরোধে ইতোমধ্যে দেশের চিকিৎসক ও নার্সদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার জন্য পিপি সংগ্রহ করা হচ্ছে বলেও জানান তিনি। মন্ত্রী আরো জানান, নতুন করে আরও চারজনের দেহে করোনা ভাইরাস শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়ালো ২৪ জনে।

বর্তমানে ৫০ জন প্রাতিষ্ঠানিকভাবে কোয়ারেন্টাইনে আছেন। আর দেশে হোম কোয়ারেন্টাইনে আছেন ১৪ হাজার জন। আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, শেখ হাসিনা বার্ন ইন্সটিটিউট ও শেখ সেল গ্যাস্ট্রোলিভার হাসপাতালে কোয়ারেন্টাইন হচ্ছে। এ দুটি হাসপাতাল যেকোনো সময় গ্রহণ করে উচ্চতর চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হবে। এছাড়া নতুন ৪০০ আইসিইউ ইউনিট স্থাপন করা হবে।

দেশের সকল নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা!
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

করোনাভাইরাসের কারণে চট্টগ্রাম সিটিসহ সকল নির্বাচন স্থগিত ঘোষণার সিদ্ধান্ত নিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)। শনিবার রাজধানীর আগারগাঁওয়ে অবস্থিত নির্বাচন ভবনে কেএম নূরুল হুদার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত সভায় এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।সভায় প্রধান নির্বাচন কমিশনার, চার কমিশনার ও ইসি সচিবসহ সংশ্লিষ্ট শীর্ষ কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন। জানা যায়, করোনাভাইরাসের কারণে চট্টগ্রাম সিটি করপোরেশন (চসিক) নির্বাচন স্থগিত করা হয়েছে। একইসঙ্গে বগুড়া-১ ও যশোর-৬ আসনের উপনির্বাচনও স্থগিত করেছে নির্বাচন কমিশন (ইসি)।

উল্লেখ্য, ২৯ মার্চ চট্টগ্রাম সিটি, দুই আসনে উপনির্বাচন ছাড়া কিছু স্থানীয় সরকার নির্বাচন ছিল। যদিও করোনায় সৃষ্ট ক্রান্তিকালের মধ্যেই আজ ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ ও বাগেরহাট-৪ আসনে উপনির্বাচনে ভোট হচ্ছে।

দেশে করোনায় ২য় ‍একজনের মৃত্যু, আক্রান্তের সংখ্যা ২৪!
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

করোনায় আক্রান্ত হয়ে দেশে আরো একজনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে করোনা আক্রান্ত হয়ে দেশের মধ্যে দুজনের মৃত্যু হলো। নতুন করে করোনায় মৃত ব্যক্তির বয়স ৭৩ বছর। এছাড়াও দেশে নতুন করে আরো ৪ জন আক্রান্ত হয়েছেন । এতে করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ২৪ জনে দাঁড়িয়েছে। দুপুরে মহাখালী স্বাস্থ্য অধিদফতরে এক সংবাদ সম্মেলনে এমনটি জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক।সংবাদ সম্মেলনে স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, সারা দেশে এ পর্যন্ত ৫০ জন প্রাতিষ্ঠানিকভাবে কোয়ারেন্টাইনে আছেন। এছাড়া সারা দেশব্যাপী ১৪ হাজার মানুষ কোয়ারেন্টাইনে আছেন বলে জানান স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক ।

বর্তমান পরিস্থিতিকে যুদ্ধাবস্থা উল্লেখ করে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জানান, এছাড়া করোনা ভাইরাস প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ আনার পরিকল্পনা সরকারের রয়েছে। করোনা প্রতিরোধে ইতিমধ্যে ডাক্তার নার্সদের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। পাশাপাশি স্বাস্থ্যকর্মীদের সুরক্ষার জন্য পিপি সংগ্রহ করা হচ্ছে বলেও জানিয়েছেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ করা হল দেশের সব বিমানবন্দরে
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

করোনা সংকটের কারণে চারটি এয়ারলাইন্স বাদে দেশের সব বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। শনিবার (২১ মার্চ) রাত ১২টা থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত এ সিদ্ধান্ত কার্যকর থাকবে। বেসামরিক বিমান চলাচল কর্তৃপক্ষ (বেবিচক) এ তথ্য জানায়।

 

বেবিচক জানায়, চট্টগ্রামের শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আন্তর্জাতিক ফ্লাইটের কার্যক্রম পুরোপুরি বন্ধ থাকবে। ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে আসবে চায়না ইস্টার্ন, চায়না সাউদার্ন, ক্যাথে প্যাসিফিক (হংকং) ও থাই এয়ারওয়েজ। এছাড়া সিলেটের ওসমানী আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কেবল যুক্তরাজ্য থেকে বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের একটি ফ্লাইট নামবে।

১০ দেশের সঙ্গে বিমান যোগাযোগ বন্ধ করেছে বাংলাদেশ। দেশগুলো হচ্ছে- কাতার, বাহরাইন, কুয়েত, সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, তুরস্ক, মালয়েশিয়া, ওমান, সিঙ্গাপুর ও ভারত। এসব দেশ থেকে কোনও ফ্লাইট ঢাকায় অবতরণ করতে পারবে না।

বেবিচকের চেয়ারম্যান এয়ার ভাইস মার্শাল মো. মফিদুর রহমান বলেন, করোনা পরিস্থিতির মধ্যে যে দেশগুলো মোটামুটি নিরাপদ মনে করেছি, সেখান থেকে ফ্লাইট আসবে। বাকি সব বন্ধ।

প্রধানমন্ত্রী ভোট দিলেন সিটি কলেজ কেন্দ্রে
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

প্রধানমন্ত্রী ও আওয়ামী লীগ সভাপতি শেখ হাসিনা ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে ঢাকা সিটি কলেজ কেন্দ্রে ভোট দিয়েছেন। শনিবার সকাল ৯টা ১০ মিনিটে তিনি তার ভোটাধিকার প্রয়োগ করেন। তিনি ওই আসনের ভোটার।কোন বিরতি ছাড়াই সকাল ৯টা থেকে বিকেল ৫টা পর্যন্ত ঢাকা-১০, গাইবান্ধা-৩ এবং বাগেরহাট-৪ জাতীয় সংসদের উপনির্বাচন অনুষ্ঠিত হচ্ছে। নির্বাচন কমিশন ঢাকা-১০ আসনে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করবে। অপর দুই আসনে ব্যালট পেপার ব্যবহার করা হবে।

গত ২৯ ডিসেম্বর ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করার জন্য আওয়ামী লীগ দলীয় সংসদ সদস্য ব্যারিস্টার ফজলে নুর তাপস পদত্যাগ করলে ঢাকা-১০ নির্বাচনী আসন শূন্য হয়। ঢাকা-১০ আসনের রিটার্নিং কর্মকর্তা জিএম শাহতাব উদ্দিন জানান, ঢাকা-১০ আসনের উপ-নির্বাচনে মোট ছয়জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। ঢাকা-১০ আসনে মোট ভোটার ৩ লাখ ১২ হাজার ২৮১ জন। এখানে ভোট কেন্দ্র ১১৭টি ও ভোটকক্ষ ৭৭৬টি।

দুবাই ও আবুধাবির সব ফ্লাইট বাতিল
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

বিমান বাংলাদেশে এয়ারলাইন্স বৃহস্পতিবার সংযুক্ত আরব আমিরাতের (ইউএই) দুবাই ও আবুধাবির ফ্লাইট বাতিল করেছে। বিশ্বজুড়ে মহামারী আকারে ছড়িয়ে পড়া প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে মধ্যপ্রাচ্যের দেশটির সিদ্ধান্ত অনুযায়ী এ পদক্ষেপ নিয়েছে বিমান।বিমানের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও সিইও মো. মোকাব্বির হোসেন জানান, ইউএইর সিদ্ধান্ত অনুযায়ী আমরা ১৯ মার্চ থেকে ৩১ মার্চ পর্যন্ত দুবাই ও আবুধাবীর সাথে সকল ফ্লাইট বাতিল করছি। যদিও এমির্যারটস এয়ারলাইন্সসহ ইউএই এর বিমানগুলো ঢাকা থেকে তাদের ফ্লাইট অব্যহত রাখবে। এ সব ফ্লাইটে শুধু ট্রানজিট যাত্রীরা যুক্তরাজ্য, যুক্তরাষ্ট্র ও কানাডার মতো অন্যান্য দেশে যাবেন।

বিমান কোম্পানির স্থানীয় কর্মকর্তারা জানান, এখন পর্যন্ত এমির্যা টস এয়ারলাইন্স ঢাকা থেকে তাদের ফ্লাইট হ্রাস করেনি। তারা প্রতিদিনই বরাবরের মতো দুবাই-ঢাকা-দুবাই তিনটি ফ্লাইটই পরিচালনা করছে। এর আগে, প্রাণঘাতী করোনা ভাইরাসের কারণে সৌদি আরব, কুয়েত, কাতার ও ওমান বাংলাদেশের সাথে সকল ফ্লাইট বাতিল করেছে। অন্যদিকে বাংলাদেশ ৩১ মার্চ পর্যন্ত যুক্তরাজ্য ছাড়া ইউরোপের সকল দেশের ফ্লাইট বাতিল করেছে। -খবর বাসস


   Page 1 of 55
     জাতীয়
বাংলাদেশকে দারিদ্র মুক্ত করতে হবে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
বাংলাদেশকে একশ অত্যাধুনিক ভেন্টিলেটর দিবে আমেরিকা
.............................................................................................
বীজ ধানের কেজিতে ১০ টাকা ভর্তুকি দেয়া হবে: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর নির্দেশ নদীতীরে স্থানান্তরযোগ্য শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান স্থাপনের
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী সঙ্গে গণভবনে শ্রিংলার বৈঠক
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর দশ নির্দেশনা
.............................................................................................
সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ
.............................................................................................
টিসিবি এবং ভোক্তা অধিদফতরের সকলের ছুটি বাতিল
.............................................................................................
প্রয়োজনে দেশে জরুরি অবস্থা জারির পরামর্শ
.............................................................................................
ঢাকা স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অনুমোদন!
.............................................................................................
করোনা প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ আনার পরিকল্পনা সরকারের
.............................................................................................
দেশের সকল নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা!
.............................................................................................
দেশে করোনায় ২য় ‍একজনের মৃত্যু, আক্রান্তের সংখ্যা ২৪!
.............................................................................................
আন্তর্জাতিক ফ্লাইট বন্ধ করা হল দেশের সব বিমানবন্দরে
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রী ভোট দিলেন সিটি কলেজ কেন্দ্রে
.............................................................................................
দুবাই ও আবুধাবির সব ফ্লাইট বাতিল
.............................................................................................
লকডাউন করে দেয়া হবে আক্রান্ত ‍এলাকা - স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
করোনা পরিস্থিতিতে স্বাস্থ্য বিভাগের সবার ছুটি বাতিল!
.............................................................................................
বাংলাদেশে মানব পাচার রোধে চুক্তি
.............................................................................................
দেশে ‍আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ১৭
.............................................................................................
দাম কমলো স্বর্ণের
.............................................................................................
কোয়ারেন্টাইনে না থাকলে ‍আইনি ব্যবস্থা: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশে করোনা ‍আক্রান্ত ‍প্রথম একজনের মৃত্যু!
.............................................................................................
দেশে হালকা থেকে মাঝারি বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা
.............................................................................................
দেশে ‍আরো ‍একজন করোনায় ‍আক্রান্ত!
.............................................................................................
আন্তজেলা বাস-যোগাযোগ বন্ধ হওয়ার ‍আশংঙ্কা!
.............................................................................................
শতবর্ষে শ্রদ্ধাভরে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ
.............................................................................................
‍আগামীকাল থেকে মালয়েশিয়াগামী সব ফ্লাইট বাতিল
.............................................................................................
এখনো করোনামুক্ত রোহিঙ্গা শরণার্থী শিবির
.............................................................................................
দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ১০!
.............................................................................................
শিক্ষার্থীদের উদ্দেশে প্রধানমন্ত্রীর খোলা চিঠি
.............................................................................................
জাতির পিতার জন্মক্ষণে দেশজুড়ে আতশবাজি!
.............................................................................................
করোনার প্রকোপ ‍আরো বারো মাস স্থায়ী হতে পারে!
.............................................................................................
কোচিং সেন্টারও বন্ধ রাখতে হবে: শিক্ষামন্ত্রী
.............................................................................................
নমুনা পরীক্ষার জন্য আইইডিসিআর ‍এ না আসার অনুরোধ
.............................................................................................
দেশে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা ৮
.............................................................................................
আগামীকাল থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ
.............................................................................................
শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রাখতে স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের পরামর্শ
.............................................................................................
সাংবাদিক আটকের ঘটনায় কুড়িগ্রাম জেলা প্রশাসক প্রত্যাহার
.............................................................................................
সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের নির্দেশনা চেয়ে হাইকোর্টে রিট
.............................................................................................
‍আগামীকাল রাত থেকে দেশে বজ্রসহ বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা
.............................................................................................
চালু হল দেশের প্রথম ‍এলিভেটেড ‍এক্সপ্রেসওয়ে
.............................................................................................
দেশে করোনা ‍আক্রান্ত দুজন ‍এখন সুস্থ - আইইডিসিআর
.............................................................................................
আগামীকাল ‍উন্মুক্ত হতে যাচ্ছে দেশের প্রথম এক্সপ্রেসওয়ে
.............................................................................................
করোনা প্রতিরোধে আইইডিসিআরের ১ টিই হটলাইন নম্বর
.............................................................................................
দেশের তাপমাত্রা আরো বাড়তে পারে
.............................................................................................
করোনাভাইরাসে আক্রান্ত তিনজন শঙ্কামুক্ত
.............................................................................................
দৃশ্যমান হল পদ্মা সেতুর ৪ কিলোমিটার
.............................................................................................
জনস্বার্থে মুজিববর্ষের মূল সমাবেশ করলেন না প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
৩৮তম বিসিএসের চূড়ান্ত ফল চলতি মাসেই
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD