ঢাকা,বৃহস্পতিবার,৬ কার্তিক ১৪২৮,২১,অক্টোবর,২০২১
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * কোনো বিভাগ দেবো না, কু- নাম দিয়ে : প্রধানমন্ত্রী   * কমছে পেঁয়াজের দাম   * বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা   * ব্যর্থতা ঢাকতে সাম্প্রদায়িকতার দানব জাগিয়ে তুলেছে সরকার: রিজভী   * পুরোনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছেন বিএনপি নেতারা : কাদের   * দেশে অন্ধত্ব কমেছে ৩৫ শতাংশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   * শিগগির ট্রেনের টিকিট সম্পূর্ণ অনলাইন করা হবে   * আটক ৩, বিমানবন্দরে ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ   * রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা   * জিআই সনদ পাচ্ছে ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ি  

   তথ্যপ্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
বাংলাদেশে ১৫ শতাংশ, বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ৬০ শতাংশ

 গত এক বছরে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ১৫ দশমিক ৩৮ শতাংশ। তবে, একই সময়ে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ইন্টারনেটের গড় গতি গড়ে বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৫ শতাংশ। এ হিসেবে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধির হার বৈশ্বিক গড়ের প্রায় এক-চতুর্থাংশ। মোবাইল ইন্টারনেটে বৈশ্বিক গড়ের চেয়ে বাংলাদেশের গড় খারাপ হলেও এগিয়ে আছে ব্রডব্যান্ড সংযোগের গতি। গত বছরের জুলাইয়ের তুলনায় চলতি বছরের জুলাইয়ে বিশ্বে ব্রডব্যান্ডের সংযোগের গতি বেড়েছে গড়ে ৩১ দশমিক ৮৭ শতাংশ। সম্প্রতি প্রকাশিত ইন্টারনেটের গতি পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের প্রতিষ্ঠান ‘ওকলা’র তথ্য বিশ্লেষণ করে এই তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বাড়ার হার ১৫ দশমিক ৩৮ শতাংশ। অথচ এ সময়ে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ইন্টারনেটের গতি গড়ে বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৫ শতাংশ। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ২০২০ সালের জুলাইয়ে বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেটের ডাউনলোডের গড় গতি ছিল সেকেন্ডে ৩৪ দশমিক ৫২ মেগাবাইট (এমবিপিএস)। চলতি বছরের জুলাইয়ে এসে তা বেড়ে হয়েছে ৫৫ দশমিক শূন্য ৭ এমবিপিএস। আর বাংলাদেশে গত বছরের জুলাইয়ে মোবাইল ইন্টারনেটের ডাউনলোডের গড় গতি ছিল ১০ দশমিক ৯২ এমবিপিএস। এক বছরের ব্যবধানে তা হয়েছে ১২ দশমিক ৬ এমবিপিএস। প্রতিষ্ঠানটির মতে, ২০২১ সালে মোবাইল ইন্টারনেটের গতিতে শীর্ষ ১০ দেশটি দেশ হলো: সংযুক্ত আরব আমিরাত, দক্ষিণ কোরিয়া, কাতার, চীন, সাইপ্রাস, নরওয়ে, সৌদি আরব, কুয়েত, অস্ট্রেলিয়া ও বুলগেরিয়া। ওকলার মোবাইল ইন্টারনেটের গতির সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান বরাবরই শেষের দিকে। জুনের মতো জুলাইয়েও বাংলাদেশ ছিল ১৩৫ নম্বরে। তবে জুনের প্রতিবেদনে তালিকায় ছিল ১৩৭ দেশ আর জুলাইয়ে ছিল ১৩৯ দেশ।

বাংলাদেশে ১৫ শতাংশ, বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ৬০ শতাংশ
                                  

 গত এক বছরে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ১৫ দশমিক ৩৮ শতাংশ। তবে, একই সময়ে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ইন্টারনেটের গড় গতি গড়ে বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৫ শতাংশ। এ হিসেবে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বৃদ্ধির হার বৈশ্বিক গড়ের প্রায় এক-চতুর্থাংশ। মোবাইল ইন্টারনেটে বৈশ্বিক গড়ের চেয়ে বাংলাদেশের গড় খারাপ হলেও এগিয়ে আছে ব্রডব্যান্ড সংযোগের গতি। গত বছরের জুলাইয়ের তুলনায় চলতি বছরের জুলাইয়ে বিশ্বে ব্রডব্যান্ডের সংযোগের গতি বেড়েছে গড়ে ৩১ দশমিক ৮৭ শতাংশ। সম্প্রতি প্রকাশিত ইন্টারনেটের গতি পরীক্ষা ও বিশ্লেষণের প্রতিষ্ঠান ‘ওকলা’র তথ্য বিশ্লেষণ করে এই তথ্য পাওয়া গেছে। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্য অনুযায়ী, গত এক বছরে বাংলাদেশে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বাড়ার হার ১৫ দশমিক ৩৮ শতাংশ। অথচ এ সময়ে বিশ্বব্যাপী মোবাইল ইন্টারনেটের গতি গড়ে বেড়েছে ৫৯ দশমিক ৫ শতাংশ। প্রতিষ্ঠানটি জানায়, ২০২০ সালের জুলাইয়ে বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেটের ডাউনলোডের গড় গতি ছিল সেকেন্ডে ৩৪ দশমিক ৫২ মেগাবাইট (এমবিপিএস)। চলতি বছরের জুলাইয়ে এসে তা বেড়ে হয়েছে ৫৫ দশমিক শূন্য ৭ এমবিপিএস। আর বাংলাদেশে গত বছরের জুলাইয়ে মোবাইল ইন্টারনেটের ডাউনলোডের গড় গতি ছিল ১০ দশমিক ৯২ এমবিপিএস। এক বছরের ব্যবধানে তা হয়েছে ১২ দশমিক ৬ এমবিপিএস। প্রতিষ্ঠানটির মতে, ২০২১ সালে মোবাইল ইন্টারনেটের গতিতে শীর্ষ ১০ দেশটি দেশ হলো: সংযুক্ত আরব আমিরাত, দক্ষিণ কোরিয়া, কাতার, চীন, সাইপ্রাস, নরওয়ে, সৌদি আরব, কুয়েত, অস্ট্রেলিয়া ও বুলগেরিয়া। ওকলার মোবাইল ইন্টারনেটের গতির সূচকে বাংলাদেশের অবস্থান বরাবরই শেষের দিকে। জুনের মতো জুলাইয়েও বাংলাদেশ ছিল ১৩৫ নম্বরে। তবে জুনের প্রতিবেদনে তালিকায় ছিল ১৩৭ দেশ আর জুলাইয়ে ছিল ১৩৯ দেশ।

শিশুদের জন্য ইউটিউবের বিকল্প বেবিটিউব
                                  

সন্তান চাওয়া মাত্রই আমরা মোবাইল তাদের হাতে দিয়ে দেই। তারাও তাতে দেখছে ভিডিও। বিভিন্ন কার্টুনসহ নানান ভিডিও। কিন্তু এ ব্যাপারে অভিভাবকরা সচেতন কতটুকু? কি দেখছে বাচ্চা? খেয়াল রাখা সম্ভব কি? সম্ভব হলেও কতটুকু খেয়াল করছি! প্রযুক্তির ব্যবহারে সারাক্ষণ বসে থেকে পাহারা দেয়া সম্ভব নয়। আর তাই প্রয়োজন এমন কিছু পদক্ষেপ যা শিশু-কিশোরদের হাতে নিশ্চিন্তে মোবাইল এবং ডিজিটাল ডিভাইসগুলো দেয়া যায়। তাই বাংলাদেশের কয়েকজন শিক্ষার্থী তৈরি করেছে ইউটিউবের মতো একটি অ্যাপ। যার নাম বেবিটিউব। যেকোনো বয়সের যে কেউ এই সাইটে ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। তবে বেবিটিউবে শিশুদের বিকাশের পথে বাধাগ্রস্ত, এমন কোনো ভিডিও দেয়া যাবে না। এর কারণ হচ্ছে, প্রতিটি শিশু নিরাপদে ইন্টারনেটের আওতায় থাকতে পারে এবং অভিভাবকরাও যেনো হতে পারেন নিশ্চিন্ত। সে কারণেই বেবিটিউবে শিশু-কিশোরদের জন্য ক্ষতিকারক ভিডিও থাকবে না। এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক মনিটরিংয়ের মাধ্যমের অনুমোদনের পরই স্বল্প সময়ের মধ্যে অ্যাকাউন্ট হোল্ডারদের ভিডিওটি আপলোড করা হবে। সব ক্যাটাগরির ভিডিও আপলোড করা যাবে। যেমন,- খেলাধুলা, কার্টুন, পড়াশোনা, মুভি, নাটক, গেম, গান, গজল, ট্রাভেল, ব্লগ, টেকনোলজিসহ শিশু-কিশোর নির্ভর সব ধরনের ক্যাটাগরিতে ভিডিও আপ করা যাবে। তবে সেগুলো হতে হবে শিশুদের জন্য পজিটিভ ও মজাদার। বেবিটিউবের চেয়ারম্যান সাইদুল করিম মিন্টু বলেন, আজকের শিশু-কিশোররা মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহার বান্ধব। তথ্য প্রযুক্তির ব্যবহার বেড়ে যাওয়ার কারণে প্রায় সব শিশু-কিশোররা মোবাইল ও ইন্টারনেট ব্যবহারে বেশ আগ্রহী। আর তাই অভিভাবকদের দুশ্চিন্তা তাদের সন্তান যেনো কোনোভাবেই খারাপ কিছুতে জড়িয়ে না যায়? তাদের দুশ্চিন্তার অবসান ঘটাতেই বেবিটিউবের উদ্যোগ। কখন বেবিটিউব এর ধারণা এলো জানতে চাইলে বেবিটিউবের প্রতিষ্ঠাতা শামীম আশরাফ বলেন, আমি যখন ‘মেন্টর মশাই’ নিয়ে কাজ করি তখন দেখলাম শিশু-কিশোররা ইন্টারনেট প্রচুর ব্যবহার করছে। ব্যবহারের মাত্রা দিনদিন বাড়ছে। আমার পরিবারেও একই অবস্থা। মেন্টর মশাই সংগঠনের মাধ্যমে আমরা সচেতনতামূলক কাজ করে থাকি। কাজ করতে গিয়ে লক্ষ্য করলাম শিশু-কিশোররা ভিডিও দেখে বেশি। সেখান থেকে ভাবনা আসে তাহলে বাচ্চাদের জন্য আলাদা একটি ভিডিও শেয়ারিং সাইট তৈরি করা যায় কিনা। যা হবে ইউটিউব এর বিকল্প। আর তখন আমি এবং আমার টিম কাজ শুরু করি। আমাদের টিমের সাজ্জাদ পুরো সাইট এবং অ্যাপ সম্পূর্ণ করেন। কে কে যুক্ত আছেন বেবিটিউবে, এ সম্পর্কে জানতে চাইলে বেবিটিউবের হেড অব পিআর মাইনুল ইসলাম বলেন, ‘বেবিটিউব একটি ভিডিও শেয়ারিং সাইট। এটি একটি অ্যাপ যেখানে ভিডিও কনটেন্ট তৈরি করে আপলোড করা যাবে। শর্ত শুধু একটাই কনটেন্টগুলো হতে হবে শিশু-কিশোর ভিত্তিক। বেবিটিউবে সহজ শর্তে মনিটাইজেশান সিস্টেম আছে কন্টেন্ট ক্রিয়েটরদের জন্য। যারা শিশুতোষ কন্টেন্ট আপলোড করবে তারা বেবিটিউব থেকে মনিটাইজেশানের মাধ্যমে আয় করার সুযোগ পাবে। ফেসবুক, টুইটার, ইনস্ট্রাগ্রাম, লিংকড-ইন, বেবিটিউব ফেসবুক পেইজ, ওয়েবসাইট এবং অ্যাপস এ প্রায় দুই লাখ মানুষ যুক্ত রয়েছে। গুগল প্লে-স্টোর থেকে ডাউনলোডে করে বেবিটিউব (BabyTube) অ্যাপ অনেক মানুষ ব্যবহার করছেন। সহজে জানার জন্য আমরা তৈরি করেছি ওয়েবসাইট। baby-tube.com এ আমাদের সম্পর্কে খুব সহজে জানতে পারবেন। বেবিটিউবে ইতিমধ্যে ছয়শোর অধিক ভিডিও কন্টেন্ট রয়েছে। বেবিটিউবের পিছনে কাজ করছে একদল উদ্যোমী তরুণ দল। সেখানে রয়েছে রাফিন, আবির, আদিবা, সময়, রবিউল, বাবুল, জামিল, হাসিবা, পান্ত, তনুশ্রী, আয়শা, আনিকা, সুনয়না, সামিনা, জুবায়েরসহ অনেকে। বেবিটিউবের সুবিধা সম্পর্কে বেবিটিউবের কো-ফাউন্ডার সাজ্জাদুল ইসলাম বলেন, বেবিটিউবে একসঙ্গে পাওয়া যাচ্ছে খেলাধুলা, কার্টুন, পড়াশোনা, মুভি, নাটক, গেম, গান, গজল, ট্রাভেল, ব্লগ, টেকনোলজিসহ শিশু-কিশোরনির্ভর সব ধরনের কনটেন্ট। দিন দিন বাড়ছে শিশু-কিশোরদের মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেটের ব্যবহার। তথ্যপ্রযুক্তির এই যুগে বেশির ভাগ শিশু-কিশোরই এখন ইন্টারনেটে সময় কাটাতে অভ্যস্ত হয়ে উঠছে। বিনোদনের মাধ্যম হিসেবেও ইউটিউবে ঘুরে বেড়াচ্ছে তারা। তবে অনেক সময় দেখা যায়, আপত্তিকর অনেক ভিডিও তাদের সামনে চলে আসে। অভিভাবকরাও এ নিয়ে দুশ্চিন্তায় থাকেন। বেবিটিউবে শিশু-কিশোরদের জন্য নিরাপদ, মজাদার এবং শিক্ষণীয় ভিডিও শেয়ার করার সুযোগ তৈরি করেছে উদ্যোক্তারা। অ্যাপের পাশাপাশি সেবা পাওয়া যাবে বেবিটিউবের প্রাতিষ্ঠানিক ওয়েবসাইটেও। বয়সভেদে যে কেউ এই সাইটে ভিডিও আপলোড করতে পারবেন। তবে বেবিটিউবে শিশুদের মানসিক বিকাশের পথে বাধা হয়, এমন কোনো কন্টেন্ট আপলোড করা যাবে না। এ বিষয়ে সার্বক্ষণিক মনিটরিংয়ের ব্যবস্থা করেছে বেবিটিউবের টেকনিক্যাল টিম’। বেবিটিউবের উপদেষ্টা সুশান্ত কুমার সাহা জানান, ‘আমরা যখন দেখেছি শিশু-কিশোররা বিভিন্ন অপরাধে জড়িয়ে যাচ্ছে। ভবিষ্যৎ প্রজন্ম ধ্বংস হয়ে যাচ্ছে। বাবা মায়ের কথা অমান্য করা। সামাজিক অবক্ষয়, কিশোর গ্যাংসহ নানান অপরাধে শিশু-কিশোরদের নাম। আমরা বিভিন্ন শিশু-কিশোর এবং অভিভাবকদের উপর জরিপ করি। জরিপ করে ফেলাম শিশু-কিশোরদের অপরাধের অন্যতম একটি কারণ হচ্ছে ঝুঁকিপূর্ণ ইন্টারনেট ব্যবহার। ইন্টারনেটে অনেক খারাপ কন্টেন্ট থাকে। যা শিশু-কিশোরদের জন্য নিরাপদ নয়। এসব কন্টেন্ট দেখে শিশু-কিশোররা অনুকরণ করে। উৎসাহীত হয় এবং বাজে কাজে জড়িয়ে পরে। বেবিটিউবে শিশুড়া শিক্ষা ও অনুপ্রেরণামূলক ভিডিও পাবে। যা তাদের বিভিন্ন ভালো কাজে উৎসাহ দিবে। আমরা ধন্যবাদ জানাই বেবিটিউব টিমকে।

ভারতে ৩০ লক্ষাধিক অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করল হোয়াটসঅ্যাপ
                                  

ভারতে ৩০ লাখেরও বেশি অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ ঘোষণা করেছে জনপ্রিয় মেসেজিং অ্যাপ হোয়াটসঅ্যাপ। জানা গেছে, শুধুমাত্র ১৬ জুন থেকে ৩১ জুলাইয়ের মধ্যবর্তী সময়ে এই অ্যাকাউন্টগুলো নিষিদ্ধ করা হয়েছে। ভারতের নতুন তথ্যপ্রযুক্তি আইন অনুযায়ী সোশ্যাল মিডিয়া কোম্পানিগুলোকে মাসিক কমপ্লায়েন্স রিপোর্ট প্রকাশ করতে নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। গত  (৩১ আগস্ট) মঙ্গলবার হোয়াটসঅ্যাপ সেই রিপোর্ট প্রকাশ করেছে। রিপোর্টে জানা গেছে, মাত্র ৪৬ দিনের ব্যবধানে বিভিন্ন অভিযোগের ভিত্তিতে ৩০ লাখ ২৭ হাজার অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করেছে জনপ্রিয় এই মেসেজিং অ্যাপ। মোট ৫৯৪টি অভিযোগ জমা পড়েছে হোয়াটসঅ্যাপের কাছে।
যাদের মধ্যে অ্যাকাউন্ট সাপোর্টের আবেদন ১৩৭টি, অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করার আবেদন ৩১৬টি, অন্যান্য সাপোর্ট চেয়ে আবেদন ৪৫টি, প্রোডাক্ট সাপোর্টের অভিযোগ ৬৪টি এবং নিরাপত্তার নিয়ো অভিযোগ জনা পড়েছে ৩২টি। মোট ৭৪ টি অ্যাকাউন্টের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে বলে জানা গেছে।

নতুন মডেল নিয়ে আসছে ইয়ামাহা
                                  

 আবারও নতুন মডেলের বাইক নিয়ে আসছে বাইকারদের প্রিয় ব্রান্ড ইয়ামাহা। এরই মধ্যে ইয়ামাহা আর-১৫ সিরিজের প্রতিটি মডেল ব্যাপক জনপ্রিয় হয়েছে। বাইকপ্রেমীরা অপেক্ষায় ছিলেন আর-১৫ এর ভার্সন ফোর কবে লঞ্চ করবে ইয়ামাহা। এবার সেই অপেক্ষার অবসান হতে যাচ্ছে। এবার আর-১৫এম মডেলের আকর্ষণীয় বাইক নিয়ে আসছে ইয়ামাহা। জানা গেছে, ভার্সন থ্রি-এর চেয়ে আরও বেশি ফিচার্স থাকবে এই মডেলে। এর আগেও এই মডেল টেস্ট করার সময় স্পট হয়েছিল। তাই ভার্সন থ্রি-এর মতো এই মডেলে ডুয়েল এলইডি থাকবে না। এর জায়গায় থাকবে সিঙ্গেল প্রোজেক্টর ইউনিট। ইয়ামাহার এন্ট্রি লেভেল স্পোর্টস বাইক হিসেবে এমনিতেই আরওয়ানফাইভ বেশ জনপ্রিয়। আরওয়ানফাইভএম-এ দুটি স্লিক এলইডি ডিআরএল থাকবে বলে জানা যাচ্ছে। ব্লুটুথ কানেক্টিভিটি, ইনস্ট্রুমেন্ট প্যানেল ও ইউএসডি ফোর্কস থাকবে এবারের মডেলে। বাইকের হ্যান্ডলিং আগের থেকে ভালো হবে। ১৫৫সিসি ইঞ্জিনে থাকবে ভিভিএ টেকনোলজি। এবারের মডেলটি ১৮এইচপি পাওয়ার সম্পন্ন। সিক্স স্পিড গিয়ার বক্স থাকবে আগের মতোই।

ইলেকট্রিক মোপেড নিয়ে আসছে কাইনেটিক
                                  

 করোনাকালে সাইকেল ও বাইকের চাহিদা বেড়েছে পৃথিবীর সব দেশে। এই চাহিদার কথা মাথায় রেখে ভারতের কাইনেটিক এনার্জি ইলেকট্রিক মোপেড নিয়ে আসছে। কিছু দিনের মধ্যে এটি লঞ্চ হবে। জানা গেছে, পুরোনো দিনের লুনা মোপেড নতুন করে লঞ্চ করবে কাইনেটিক। কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, চলতি বছরেই ইলেকট্রিক মোপেড লঞ্চ করবে কাইনেটিক। এই মোপেডে ব্যাটারি রেঞ্জ ভালো পাওয়া যাবে বলে মনে করা হচ্ছে। নব্বইয়ের দশকে ৫০ সিসির কাইনেটিক মোপেড খুব জনপ্রিয় হয়েছিল। তবে ২০০০ সালের পর সেই মোপেডের উৎপাদন বন্ধ করে দেয় কোম্পানি। ইলেকট্রিক লুনার সঙ্গে পুরনো ডিজাইনের অনেকটাই মিল থাকবে। কাইনেটিক লুনাতে ১ ডব্লিউ-এর মোটর থাকবে। ফুল চার্জে ৮০ কিলোমিটার পথ অতিক্রম করা যাবে। এর গতি হবে ২৫ কিলোমিটার প্রতি ঘণ্টায়। এটি লো স্পিড ভেহিকেল। এতে এলইডি লাইট, ডিআরএল, ইউএসবি চার্জার, ডিজিটাল ডিসপ্লে থাকবে।

বাংলাদেশি ব্রাউজারে যুক্ত হলো নতুন আইকন ও ফিচার!
                                  

ব্যবহারকারীদের সুবিধার জন্য নতুন ভার্সনে [version-3.8.9] ‘লেভেল আপ’সহ আরও আকর্ষণীয় ফিচার সংযোজন করল রিটস ব্রাউজার!
যুক্ত হওয়া নতুন ফিচারগুলো হলো-
ব্রাউজিং পয়েন্ট: নতুন অ্যালগোরিদমে আপনি আগের থেকে আরও বেশি ব্রাউজিং পয়েন্ট অর্জন করতে পারবেন। রিওয়ার্ড লেভেল: রিওয়ার্ড ভিডিও দেখা এখন আরো বেশি লাভজনক। এই নতুন ভার্সনে আপনার জন্য রিওয়ার্ড ভিডিও কাউন্ট এবং আপনার মেম্বারশিপ অনুযায়ী চারটি লেভেল অফার করা হয়েছে। এখানে আপনি একটি রিওয়ার্ড ভিডিও দেখে সর্বোচ্চ ৬ পয়েন্ট পর্যন্ত আয় করার সুযোগ পাচ্ছেন। নতুন অ্যাপ আইকন: এই ভার্সনে অ্যাপের নতুন একটি আইকন লঞ্চ করা হয়েছে, এই নতুন আইকনটি রিওয়ার্ড এবং স্পিডের নির্দেশনা প্রদান করে। ফ্রি ভাউচার: এখন আপনি পাঁচটি নিউজ পড়লে একটি করে ফ্রি ভাউচার কোড পাবেন। এছাড়াও এই ব্রাউজারটিতে দ্রুতগতির ব্রাউজিংসহ অ্যাড ফ্রি ইউটিউব দেখতে পারবেন। ব্যবহারের উপর অর্জিত রিওয়ার্ড পয়েন্ট দিয়ে উপভোগ করতে পারবেন ফ্রি মোবাইল রিচার্জ, প্রডাক্ট ডিসকাউন্ট অথবা ফিজিক্যাল প্রডাক্ট। ব্রাউজারটি আপনার মোবাইল ডিভাইস থেকে গুগল প্লে স্টোরের https://ritsbrowser.com/download.html লিঙ্কে ক্লিক করে ডাউনলোড করতে পারবেন।অথবা গুগল প্লে স্টোরে গিয়ে RITS Browser লিখে সার্চ করে অ্যাপটি ইনস্টল করতে পারবেন । ব্রাউজার ব্যবহারের উপর রিওয়ার্ড পয়েন্ট পেতে হলে অবশ্যই আপনাকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে, ইনস্টল করার পরে উপরে ডান দিকে থাকা ৪টি ডট আইকন এ ক্লিক করে রেজিস্ট্রেশন করতে পারবেন।

ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চিং ১৫ আগস্ট
                                  

মানুষ এখন আর পেট্রোল চালিত গাড়ি কিংবা স্কুটার ব্যবহার করতে চাচ্ছে না। তাই বিভিন্ন গাড়ি প্রস্তুতকারক প্রতিষ্ঠানও ইলেকট্রিক গাড়ি বাজারে আনতে চেষ্টা চালাচ্ছে। এরই মধ্যে ভারতের বাজারে ওলার ইলেকট্রিক স্কুটারের লঞ্চিংয়ের কথা জানা গেছে। এ স্কুটার দেখতে অসাধারণ, সেইসাথে আকর্ষণীয় ফিচার্সও থাকবে বলে ঘোষণা করা হয়েছে। ওলার সিইও ভাবিশ আগরওয়াল জানিয়েছেন, ১৫ অগাস্ট ভারতের বাজারে আসছে ওলা স্কুটার। দশটি রঙে পাওয়া যাবে এই স্কুটার। প্রতিটি স্কুটারের রঙ অসাধারণ সুন্দর বলে জানা গেছে। ভারতীয় মুদ্রায় ৪৯৯ রুপি দিয়ে অনেকেই বুকিং করেছিলেন ওলার স্কুটার। ওলা এই স্কুটার ক্রেতার বাড়িতে ডেলিভারি করবে বলেও সম্প্রতি জানিয়েছিল। বুকিং ওপেন হওয়ার ২৪ ঘণ্টার মধ্যে এক লাখের বেশি স্কুটার বুক হয়েছিল। ১৫ অগাস্ট লঞ্চের আগে ওলা স্কুটার সম্পর্কে স্পেসিফিকেশন, দাম সম্পর্কে জানাবে সংস্থা। জানা গেছে, ওলা স্কুটার একবার চার্জ দিলে ১৫০ কিলোমিটার পথ চলতে পারবে। এই স্কুটারের সর্বোচ্চ গতি হতে পারে ঘণ্টায় ১০০ কিলোমিটার।

৬০ দেশে গ্রাহক সেবা দিচ্ছে অপো
                                  

বিভিন্ন সেবার মাধ্যমে বিশ্বব্যাপী লাখ লাখ গ্রাহকের মন জয় করে চলেছে গ্লোবাল স্মার্ট ডিভাইস নির্মাতা প্রতিষ্ঠান অপো। সম্প্রতি ট্রাস্টিওর্দি ক্যাম্পেইন শুরুর মাধ্যমে এই আস্থা অর্জনের প্রক্রিয়াকে আরও সামনে এগিয়ে নিয়ে গেছে প্রতিষ্ঠানটি। ২০টির বেশি দেশে চলে এ ক্যাম্পেইন। এরপর তারা নিয়ে এসেছে একগুচ্ছ ডাটা সুরক্ষা সেবা, যার মাধ্যমে মানুষ অনলাইন নিরাপত্তা সম্পর্কে নিশ্চিন্ত হতে পারে। বহুমুখী সেবা দিয়ে মানুষের বিশ্বাস ও আস্থা অর্জন করাই ছিল এসব ক্যাম্পেইনের মূল উদ্দেশ্য। অপোর অন্যান্য গ্রাহক সেবার মধ্যে রয়েছে আউটসোর্সিংয়ের বদলে নিজস্ব সার্ভিস সেন্টার নির্মাণ। এখন পর্যন্ত বিশ্বের ৬০টির বেশি দেশে আড়াই হাজারের বেশি সার্ভিস সেন্টার খোলা হয়েছে এবং ২০২০ সাল থেকে এক স্থানে সব ধরনের সেবা দিতে পরীক্ষামূলকভাবে ‘এক্সপেরিয়েন্স স্টোর’ চালু করেছে অপো। এসব সার্ভিস সেন্টারে গ্রাহকদের সর্বোচ্চ সেবা দিতে কঠোরভাবে মান নিয়ন্ত্রণ করা হয়। অপো ৩৪টি ভাষায় হটলাইন সেবা দিয়ে আসছে। ব্যবহারকারী চাইলে যেকোনো সময় এসব হটলাইনে ফোন দিয়ে বিশেষজ্ঞদের কাছ থেকে ডিভাইস সম্পর্কিত সব ধরনের সেবা নিতে পারবেন, যার উদ্দেশ্য গ্রাহককে সর্বোচ্চ সেবা নিশ্চিত করা। এর সঙ্গে রয়েছে আন্তর্জাতিক ওয়্যারেন্টি সেবা, ফেস-টু-ফেস রিপ্যায়ার এবং ওয়ান আওয়ার ফ্ল্যাশ ফিক্স সেবাও দিয়ে যাচ্ছে স্মার্ট ডিভাইস ব্র্যান্ড অপো। এছাড়া চলমান মহামারি বিবেচনায় অপো কন্টাক্ট-লেস সেবায় জোর দিচ্ছে। এর মাধ্যমে ব্যবহারকারী ঘরে বসে অফিসিয়াল ওয়েবসাইট বা মাই অপো অ্যাপে ভিজিট করে স্পেয়ার পার্টসের মূল্যসহ যাবতীয় তথ্যাদি জেনে ফোন মেরামত করাতে পারেন। ২০২০ সালে ১০ কোটির বেশি অপো ব্যবহারকারী কন্টাক্ট-লেস সেবা গ্রহণ করেছে। গ্রাহকদের এসব প্রশ্নের জবাব ও পণ্য, সেবা ও নীতি সম্পর্কে জানাতে অপো প্রতিষ্ঠা করেছে ‘নলেজ বেজ’। শুধু ট্রাবলশুটিং বের করে ডিভাইস মেরামত বা প্রশ্নের উত্তর দেয়াই অপোর কাজ নয়। ‘কেয়ার অ্যান্ড রিচ’র মাধ্যমে আস্থা ও বিশ্বাস অর্জন করতে অবিরাম কাজ করছে প্রযুক্তি পণ্য নির্মাতা এ প্রতিষ্ঠানটি।

শিশু-কিশোরদের নিয়ে হুইসেলের ফ্রি কোডিং কর্মশালা
                                  

ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মাণে শিশু-কিশোরদের অংশগ্রহণ নিশ্চিতে শিশু-কিশোরদের নিয়ে ফ্রি কোডিং কর্মশালার আয়োজন করে শিশু কিশোর ম্যাগাজিন ও ই-লার্নিং প্ল্যাটফর্ম হুইসেল। এ কর্মশালা আয়োজনে সহযোগিতা করে মালয়েশিয়া ভিত্তিক তারুণ্যনির্ভর সংগঠন ইয়ুথ হাব। ৩০ জুলাই (শুক্রবার) সন্ধ্যা ৭.৩০ এ ভার্চুয়ালি কর্মশালাটি অনুষ্ঠিত হয়। এই কর্মশালায় ৬২ জন শিশু-কিশোর ও তাদের অভিভাবকরা অংশগ্রহণ করেন। আনিকা নায়ার তুর্ণার সঞ্চালনায় কর্মশালায় হুইসেল এর প্রতিষ্ঠাতা ও সিইও আরেফীন দিপু ও ইয়ুথ হাবের কোষাধ্যক্ষ রাদিয়া রাইয়ান চৌধুরী শুভেচ্ছা বক্তব্য প্রদান করেন। তিন ঘণ্টাব্যাপী কর্মশালাটি পরিচালনা করেন ইয়ুথ হাবের সভাপতি পাভেল সারওয়ার, ক্ষুদে কোডার নুসাইবা, সারাফ ও সিনান। শিশুদের কাছে আকর্ষণীয় এবং বিনোদনমূলক কন্টেন্ট এর সমন্বয়ে শিশুদের কোডিং শেখানো হয় এই কর্মশালায়। ভার্চুয়ালি শুরু হওয়া এই কর্মশালাটি দুইমাসব্যাপী চলবে। কর্মশালায় স্ক্র্যাচ প্রোগ্রামিং, পাইথন প্রোগ্রামিং ও এপইনভেন্টর শেখানো হচ্ছে বলে জানিয়েছেন ইয়ুথ হাবের প্রেসিডেন্ট পাভেল সারওয়ার। উল্লেখ্য, হুইসেল একটি শিশু কিশোর ম্যাগাজিন এবং ই লার্নিং প্ল্যাটফর্ম। শিশুদের কাছে ই-লার্নিং জনপ্রিয় করার উদ্যেশ্যে কাজ করছে প্ল্যাটফর্মটি।

জেসিআই ঢাকা হেরিটেজের উদ্যোগে রোবটিক্স নিয়ে অনলাইন আলোচনা
                                  

সম্প্রতি ‘রোবটিক্স: ফোস্টারিং গ্রোথ ইন কান্ট্রিস অটোমেশন সেক্টর’ শীর্ষক অনলাইনভিত্তিক আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি ও জেসিআই ঢাকা হেরিটেজের যৌথ উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানটি অনলাইনভিত্তিক টিভি চ্যানেল ক্যাম্পাস টিভিতে সরাসরি সম্প্রচার করা হয়। ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সহকারী অধ্যাপক কৌশিক সরকারের সঞ্চালনায় শুরুতে বাংলাদেশের রোবটিক্সের বিভিন্ন কার্যক্রম এবং ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির বেশ কিছু উল্লেখযোগ্য উদ্যোগ নিয়ে একটি প্রতিবেদন প্রকাশ করেন বাংলাদেশ রোবটিক্স ফাউন্ডেশনের প্রতিষ্ঠাতা ও ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির প্রভাষক মো. হাফিজুল ইমরান। আলোচনা অনুষ্ঠানের শুরুতে বাংলাদেশ সরকারের এটুআই প্রোগ্রামের টেকনোলজি এক্সপার্ট মো. ফজলে মুনিম চতুর্থ শিল্প বিপ্লবের চ্যালেঞ্জ মোকাবিলা ও রোবটিক্সসহ বিভিন্ন ইমার্জিং টেকনোলজি নিয়ে সরকারের বর্তমান ও ভবিষ্যৎ কর্মপরিকল্পনা তুলে ধরেন। আলোচনায় অংশ নিয়ে ডটলাইনস গ্রুপের ডিরেক্টর এবং চিফ স্ট্রেটেজি অফিসার শারফুল আলম বাংলাদেশের বর্তমান অর্থনৈতিক প্রেক্ষাপটে রোবটিক্সে বিনিয়োগের বিভিন্ন ক্ষেত্র ও চ্যালেঞ্জসমূহ তুলে ধরেন। আলোচনার অপর বক্তা নগদের এক্সিকিউটিভ ডিরেক্টর এবং জেসিআই বাংলাদেশের ন্যাশনাল প্রেসিডেন্ট নিয়াজ মোর্শেদ নতুন প্রজন্মের উদ্যোক্তাদের জন্য রোবটিক্সে বিনিয়োগের অপার সম্ভাবনার কথা তুলে ধরেন এবং বর্তমান চ্যালেঞ্জ মোকাবিলায় বিভিন্ন রূপরেখা নিয়ে আলোচনা করেন। আলোচনার সর্বশেষ বক্তা ড্যাফোডিল ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটির সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ারিং ডিপার্টমেন্টের হেড ড. ইমরান মাহমুদ রোবটিক্স নিয়ে গবেষণার বিভিন্ন চ্যালেঞ্জসমূহ তুলে ধরেন এবং এ ধরনের গবেষণায় সরকারি ও বেসরকারি পৃষ্ঠপোষকতার গুরুত্ব তুলে ধরেন। অনুষ্ঠানের সমাপনী বক্তা নাহিদা আক্তার জেসিআই ঢাকা হেরিটেজের লোকাল প্রেসিডেন্ট জেসিআই বাংলাদেশ সম্পর্কিত একটি তথ্যচিত্র উপস্থাপন করেন এবং সবাইকে ধন্যবাদ জ্ঞাপনের মাধ্যমে অনুষ্ঠানের সমাপনী ঘোষণা করেন।

বাংলাদেশে ই-স্পোর্টস: টুর্নামেন্ট ও ইউটিউব থেকে আয় হচ্ছে
                                  

করোনা ভাইরাসের মহামারিতে বিশ্বে যে কয়টি শিল্প খুব দ্রুত এগিয়েছে তার মধ্যে ই-স্পোর্টস অন্যতম। অনলাইন গেম খেলে অনেকেই প্রতি মাসে লাখ লাখ টাকা রোজগার করছে। বাংলাদেশেও অনেকে ই-স্পোর্টসকে পেশা হিসেবে বেছে নিচ্ছেন। তবে ই-স্পোর্টস সম্পর্কে অনেকের ধারণা নেই। সম্ভাবনাময় এই শিল্প সম্পর্কে তরুণ-তরুণীদের ধারণা দিতে ধারাবাহিক প্রতিবেদন প্রকাশ করছে ইত্তেফাক অনলাইন। আজ থাকছে দ্বিতীয় পর্ব-

শুরুতেই জেনে নেওয়া যাক ই-স্পোর্টস কি?

অনলাইনভিত্তিক কম্পিউটার কিংবা মোবাইল গেমিং টুর্নামেন্টগুলোকে বলা হয় ইলেকট্রনিক স্পোর্টস বা ই-স্পোর্টস। পশ্চিমা দেশগুলোতে বড় বড় মিলনায়তন ও স্টেডিয়ামে জাকজমকভাবে এসব টুর্নামেন্টের আয়োজন করা হয়। টুর্নামেন্টে অংশ নেওয়া গেমারদের বলা হয় পেশাদার ই-স্পোর্টস খেলোয়াড়। তারা দলগত কিংবা এককভাবে টুর্নামেন্টে অংশ নিতে পারেন। অনলাইন গেম খেললে সময়ের অপচয়, পড়ালেখার ক্ষতি ও মানসিক সমস্যা হয়-এসব বিষয় নিয়ে আমাদের দেশে আলোচনা হলেও এটি একটি সম্ভাবনাময় খাত তা নিয়ে কোনো আলোচনা হয় না। আমাদের দেশে এই শিল্প হতে পারে অর্থ আয়ের এক স্বর্ণ খনি। পার্শ্ববর্তী দেশ নেপাল ও পাকিস্তানে ই-স্পোর্টসকে আনুষ্ঠানিক খেলার মর্যাদা দিলেও এখনো অন্ধকারে বাংলাদেশ। তবে কিছু তরুণের হাত ধরে সম্ভাবনাময় এই খাত দিন দিন জনপ্রিয় হচ্ছে। অনেকেই পেশা হিসেবে ই-স্পোর্টসকে বেছে নিচ্ছেন। তাদেরই একজন রাজশাহীর তরুণ মোহাম্মদ শাকিল। বাংলাদেশের অন্যতম জনপ্রিয় পেশাদার পাবজি মোবাইল খেলোয়াড় তিনি। সবাই তাকে সিনিস্টার হিসেবেই চিনে। খেলছেন বাংলাদেশের অন্যতম শীর্ষ পাবজি দল এ১ ই স্পোর্টসে। গত বছর দিয়েছেন এইচএসসি পরীক্ষা। এখন বিশ্ববিদ্যালয়ে ভর্তির অপেক্ষায় আছেন। ছোটকাল থেকেই ছিলো গেম খেলার শখ। সেই শখকে পেশা হিসেবে পরিণত করেছেন তিনি। তার পেশাদার ই-স্পোর্টস খেলোয়াড় হিসেবে জীবনযাপনের বিষয়টি তুলে এনেছে ইত্তেফাক অনলাইন-

শুরুটা কীভাবে হলো?

বন্ধুদের থেকেই প্রথন শুনা হয় পাবজি মোবাইল গেমটির কথা। এতে নাকি সবার সঙ্গে কথা বলে খেলা যায়। আগে আমার এইরকম গেম খেলা হয়নি। তাই বেশ আকর্ষণ নিয়েই খেলা শুরু করি। বন্ধুদের সঙ্গেই শুরু দিকে খেলতাম। গেমটি অনেক হাই রেজুলেশনের আর শুরুর দিকে আমার দিকে উন্নত ডিভাইস ছিলো না। যার কারণে খেলতে অনেক বেগ পেতে হতো। এরপর আস্তে আস্তে টুর্নামেন্টগুলো সম্পর্কে জানতে শুরু করি। প্রথম টুর্নামেন্টটি আমি বন্ধু ও পরিচিত বড় ভাইদের নিয়েই খেলি। এর আর থামা হয়নি। সেসব প্রতিযোগিতামূলক খেলাগুলো খেলতে খেলতেই আমি কিছু ভালো খেলোয়ার খুজে পাই। যাদের মধ্যে দান্তে ও কাপশি অন্যতম। তাদের নিয়ে ২০১৯ সালের দিকে টাইটান ই স্পোর্টস দলটি গঠন করি। পরে সেখান থেকে ২০২০ সালের ফেব্রুয়ারিতে সৃষ্টি হয় এ১ ই স্পোর্টস দলটির। বলে রাখা ভালো, শাকিলের নেতৃত্বাধীন এ১ ই স্পোর্টস বাংলাদেশের অন্যতম সেরা পাবজি দল। গেমটির দেশীয় টুর্নামেন্টে দাপটের পাশাপাশি আন্তর্জাতিক অঙ্গনেও সুনাম কুড়িয়েছে দলটি।

বাংলাদেশে ই স্পোর্টদের ভবিষ্যৎ কেমন দেখছেন?

স্পন্সর ছাড়া এই খাতের উন্নতি করা একটু কঠিন। একটি দল পরিচালনা করতে হলে অনেক কিছু প্রয়োজন হয়। তার মধ্যে স্পন্সর অন্যতম। পৃথিবীর অন্যান্য দেশের দলগুলো ভালো স্পন্সর পেয়ে অনেক সুযোগ সুবধা পাচ্ছে। যা হয়তো আমাদের দেশের ই স্পোর্টস খেলোয়াড়রা পাচ্ছে না। সেসব সুযোগ তাদের স্ব-উদ্যোগে তৈরি করে নিতে হচ্ছে। তবে বাংলাদেশে এই খাত দ্রুত এগোচ্ছে। স্পন্সরের বিষয়টি আরও গতিশীল হলে দ্রুত এই শিল্প এগিয়ে যাবে। এতে পাবজির পাশাপাশি অন্যান্য গেমগুলোও দেশের বাজারে প্রবেশ করতে সক্ষম হবে। সেইসঙ্গে স্ট্রিমিং সাইটগুলোতে গেমিংয়ের সাড়া বেশ ভালো। অনেকেই ইউটিউবসহ অন্যান্য স্ট্রিমিং সাইটগুলোতে কাজ করছে।

একজন পেশাদার ই স্পোর্টস খেলোয়াড় কী কী উপায়ে আয় করতে সক্ষম?

বিশ্বব্যাপী পাবজি গেমের প্রতিযোগিতাগুলোতে যেসব দল ভালো করছে তাদের খেলোয়াড়া বেতনভুক্ত। স্পন্সর ও টিম কর্তৃপক্ষ তাদের বেতন দেওয়ার পাশাপাশি অন্যান্য সুযোগ সুবিধা দিয়ে থাকে। তাদের কারও কারও মাসিক বেতন ৮০ হাজার থেকে ১ লাখ টাকা পর্যন্ত। পাশাপাশি টুর্নামেন্টগুলোর প্রাইজমানি থেকে তো আয় আছেই। বাংলাদেশে বেতনের এই প্রক্রিয়া তেমন চালু হয়নি। আমরা যারা খেলছি তারা কেও বেতনভুক্ত না। টুর্নামেন্ট গুলো থেকে যেসব আয় হয় সেগুলোই আমাদের আপাতত উপার্জন। এছাড়া ইউটিউব ও অন্যান্য স্ট্রিমিং সাইট থেকেও কন্টেন্ট ক্রিয়েটর হিসেবে আয় হচ্ছে। ভবিষ্যতে হয়তো আমাদের দেশের খেলোয়াড়রা ভালো স্পন্সর পাবে, বড় বড় গেমিং প্রতিষ্ঠান আমাদের সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ হবে। আমাদের দেশের খেলোয়াড়রাও বেতনভুক্ত হয়ে খেলবে। বিভিন্ন সূত্রে জানা গেছে, মোহাম্মদ শালিকের বর্তমান মাসিক আয় এমন পর্যায়ে পৌঁছেছে যা ১০-১৫ বছর কোনো বেসরকারি প্রতিষ্ঠানে চাকরী করার পর একজন কর্মকর্তা আয় করেন। মূলত টুর্নামেন্ট ও স্ট্রিমিং সাইটগুলো যেমন- ইউটিউব ও লোকো থেকে আয় করছেন তিনি। বিভিন্ন পরিসংখ্যানে দেখা গেছে, টুর্নামেন্ট খেলে এ১ ই-স্পোর্টস দলটি এখন পর্যন্ত আয় করেছে ৩৩ হাজার ডলার (বাংলাদেশি টাকায় যা প্রায় ২৮ লাখ টাকা)। এছাড়া দলটির প্রত্যেকে স্ট্রিমিং সাইটগুলো যেমন- ইউটিউব ও লোকো থেকে আয় করছেন।

ফুটবল, ক্রিকেটের পেশাদার খেলোয়াড়রা খেলার আগে নিজেদের অনুশীলন করে ম্যাচের জন্য প্রস্তুত করেন। আপনাদের কী এমন কোনো বিষয় আছে?

অবশ্যই আছে। মোবাইল গেম হলেও আমাদের খেলার আগে প্রস্তুতি গ্রহণ করতে হয়। জড়তা কাটাতে হয়। প্রতিদিন খেলার আগে আমরা ৩০ মিনিট থেকে ১ ঘণ্টা পর্যন্ত গেমে বিভিন্ন মুভমেন্টের অনুশীলন করি। যাতে করে ম্যাচে কোনো জড়তা কাজ না করে।

 

গেম খেলা নিয়ে বাসায় কেমন সমালোচনার শিকার হয়েছেন এবং বর্তমান পরিস্থিতি কেমন?

শুরুর দিকে তেমন সমর্থন পাইনি। রাত জেগে খেলা এবং অন্যান্য খেলোয়াড়দের সঙ্গে জোরে কথা বলার জন্য অন্যান্যদের ঘুমের সমস্যা হতো। তাছাড়া দেরি করে ঘুমানোর কারণে দিনেও দেরি করে উঠতাম। সকালে প্রায়ই ক্লাস করতে পারতাম না। যার কারণে বাসা থেকে গেম খেলার জন্য শুরুর দিকে তেমন সমর্থন পাওয়া সম্ভব হয়নি। তবে পাবজি বিশ্বক্যাপ খ্যাত পিএমজিসি কাপ খেলার জন্য যখন দুবাই গেলাম তখন সবকিছুর পরিবর্তন হয়েছে। এখন রাত জেগে খেলার জন্য তেমন কিছু বলেনা। সবদিক দিয়ে ভালোই সমর্থন পাচ্ছি।

সফলতা পাওয়ার পর বন্ধুরা কীভাবে সাপোর্ট করে?

তারা অনেক সাহায্য করে। আমি বাসা থেকে তেমন বের হই না। যদি জরুরী কিছুর প্রয়োজন তারাই এনে দেয়। সব সময় তারা আমাকে সমর্থন ও সাহায্য করে আসছে। আমার সাফল্যে তারাও খুশি। উন্নত দেশগুলোতে ই-স্পোর্টস সম্ভাবনাময় ক্যারিয়ার হলেও বাংলাদেশ অনেক পিছিয়ে। সময় কি হয়েছে বাংলাদেশে ই-স্পোর্টসকে একটি ক্যারিয়ার হিসেবে গণ্য করার? বাংলাদেশে এই খাত দ্রুত এগোচ্ছে। খুব ভালো গ্রো হচ্ছে। এখন ই-স্পোর্টসের সুযোগ সুবিধা সীমিত থাকলেও ভবিষ্যতে এটি ফুলটাইম ক্যারিয়ার হতেই পারে। তবে যারা নতুন আসছেন বা আসতে আগ্রহী তাদের একাগ্র ও নিয়মিত থাকতে হবে। পরিশ্রম ও নিয়মিত অনুশীলন ছাড়া উন্নতি পাওয়া অনেক কঠিন হবে। সেইসঙ্গে আপনাদের পড়ালেখাও চালিয়ে যেতে হএ। মনে রাখতে হবে প্রাতিষ্ঠানিক শিক্ষার কোনো বিকল্প নেই।

গুগল ফটোসের বিনামূল্যের সেবা বন্ধ হচ্ছে
                                  

বন্ধ হচ্ছে গুগল ফটোসের ফ্রি সার্ভিস। এতদিন সব ফটো ডিভাইস থেকে মুছে ফেলার পরও গুগল ফটোসের অনলাইন ফ্রি ক্লাউড স্টোরেজে রাখা যেত। কিন্তু আনলিমিটেড স্টোরেজের সেই সুবিধা শেষ হচ্ছে ১ জুন থেকে। বিশ্বের অন্যতম বৃহৎ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান গুগল ইতিমধ্যেই ঘোষণা করেছে, ১ জুন থেকে শুধু ১৫ জিবি ক্লাউড স্টোরেজ বিনামূল্যে পাবেন গ্রাহকরা। তার বেশি হয়ে গেলেই টাকা দিয়ে স্টোরেজ কিনতে হবে। উল্লেখ্য, এই চার্জ কেবল নতুন ফটো-ভিডিও সেভ করার জন্য। অর্থাৎ আপনার পুরনো ফটো-ভিডিও আগের মতোই সেভড্ থাকবে। যদিও গুগল পিক্সেল ফোন ব্যবহারকারীদের ক্ষেত্রে এই নিয়ম প্রযোজ্য হবে না। তারা আগের মতোই ফ্রি স্টোরেজ পাবেন।

স্মার্টফোন ভিজে গেলে কী করবেন?
                                  

স্মার্টফোন ছাড়া আমরা এক মুহূর্তও চলতে পারি না। সব সময়ই আমাদের সঙ্গেই থাকে। কিন্তু বৃষ্টিতে বা যেকোনোভাবে এটি ভিজে যেতে পারে। ফোন পানিতে ভিজে গেলে প্রথমে পরিষ্কার করে মুছে ফেলুন ৷ যত বেশি তরল পদার্থ থাকবে ফোনটি তত তাড়াতাড়ি ফোনের বিভিন্ন পার্টস খারাপ হওয়ার সম্ভাবনা থাকবে ৷ বেশিক্ষণ থাকলে শর্ট সার্কিট হয়ে যেতে পারে ৷ এতে ফোনে থাকা সমস্ত ডেটা নষ্ট হয়ে যায় ৷ ফোন স্টার্ট করার আগে ভালো করে মুছে নিন ৷ ফোনের ভেতরের সব কিছু, অর্থাৎ ব্যাটারি, সিম কার্ড, মেমরি কার্ড খুলে ফেলুন শিগগিরই। ফোনের খোলা অংশগুলো একটি শুকনো কাপড়ে মুছে কাপড়টি মুড়ে রেখে দিন। দেখবেন ফোনের কোনো ক্ষতি হবে না। ফোনের ভিতরের অংশ পাতলা কাপড় দিয়ে ভালো করে মুছে ফেলুন ৷ সিম কার্ডও বের করে রাখুন ৷ এরপর ফোনের ভেতর ভালো করে মুছে ফেলুন ৷ তারপর সিম কার্ড ইনসার্ট করুন ৷ ফোনে স্ক্রিন গার্ড লাগানো থাকলে সেটাও খুলে রাখুন ৷ ভুল করেও ফোনে হেয়ার ড্রাইয়ারের প্রয়োগ করবেন না ৷ হেয়ার ড্রাইয়ারের গরম হাওয়ায় ভিতরের পার্টসগুলো গলে যেতে পারে ৷ এরপর কিছুক্ষণ ফোনটিকে রোদে রাখুন ৷ যদি কোথাও অল্প পানি থেকে যায় তাহলে রোদে রাখলে তা শুকিয়ে যাবে ৷

এসএমই ব্যবসায়ীদের জন্য ‘অনলাইন স্টোর’ নিয়ে এল এস-ম্যানেজার
                                  

ক্ষুদ্র ও মাঝারি ব্যবসায়ী এবং উদ্যোক্তাদের দৈনন্দিন ব্যবসা পরিচালনার অ্যাপ এস-ম্যানেজার বুধবার (৩ মার্চ) ঢাকায় তাদের অন্যতম ফিচার ‘অনলাইন স্টোর’-এর উদ্বোধন করেছে। প্রধান অতিথ হিসেবে উপস্থিত হয়ে ‘অনলাইন স্টোর’ -এর উদ্বোধন করেন আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক। এছাড়া অনুষ্ঠানে উপস্থিত ছিলেন এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন ড. মো. মাসুদুর রহমান, স্টার্ট আপ বাংলাদেশের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী টিনা এফ জাবিন, সেবা প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডের সিওও ইলমুল হক সজীব, সেবা প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডের ভাইস প্রেসিডেন্ট ও হেড অব এমএসএমই বিজনেস আব্দুর রহমান তন্ময় এবং এস ম্যানেজারের কর্মকর্তা ও ব্যবহারকারীবৃন্দ। ‘অনলাইন স্টোর’ ক্ষুদ্র এবং মাঝারি ব্যবসায়ীদের জন্য এমন একটি যুগোপযোগী ফিচার যার মাধ্যমে ব্রিক অ্যান্ড মর্টার ব্যবসাগুলোর জন্য অনলাইনে ব্যবসা করার দ্বার মাত্র এক মিনিটে উন্মুক্ত হয়ে যায়। এই ফিচারের মাধ্যমে মাত্র কয়েকটি ধাপে পাড়া-মহল্লা এলাকার ছোট মুদি দোকান থেকে শুরু করে যেকোনো ব্যবসাতে ই-কমার্স অনলাইন স্টোর তৈরি করা যায়। ব্যবসা ছোট হোক কিংবা বড় এস-ম্যানেজার অনলাইন স্টোর- এর মাধ্যমে এখন পৃথিবীর যেকোনো জায়গা থেকে যে কাউকে ব্যবসার যেকোনো পণ্য দেখানো যাবে। গ্রাহক কাস্টমার লিংকে ক্লিক করার মাধ্যমে অনলাইন স্টোর- এ গিয়ে অনলাইনে অর্ডার করতে পারবেন যেকোনো সময়, পেমেন্ট লিংকের মাধ্যমে অনলাইনে টাকা পরিশোধ করতে পারবেন আরও সহজে। আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এস-ম্যানেজারের এই সাত লাখের বেশি এমএসএমই ব্যবসায়ীদের কাছে পৌঁছানো এবং ধারাবাহিকভাবে এই ক্ষুদ্র ও মাঝারি উদ্যোক্তাদের জীবনে প্রভাব রাখার জন্য প্রশংসা করেন। তিনি বলেন, ‘এখানে ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তির মাধ্যমে অপারেশন দক্ষতা এবং প্রবৃদ্ধির আরও বিশাল সুযোগ এখনো রয়েছে। ১৪ মাস আগে যাত্রা শুরু করার সময় আমরা এস-ম্যানেজারের সঙ্গে ছিলাম এবং এমএসএমই ব্যবসায়গুলোর জন্য উপকারী হবে এমন যেকোনো উদ্যোগের সঙ্গে থাকবো আমরা।’ এসএমই ফাউন্ডেশনের চেয়ারপারসন ড. মো. মাসুদুর রহমান বলেছেন, ‘আমাদের নিশ্চিত করতে হবে কেবল শহুরে জনগোষ্ঠী নয়, সারা বাংলাদেশ ব্যাপী ক্ষুদ্র উদ্যোক্তা ও ব্যবসায়ীগণ ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তি প্রক্রিয়ার সঙ্গে যুক্ত রয়েছে। ডিজিটাল অন্তর্ভুক্তির এই প্রক্রিয়া ছড়িয়ে দিতে হবে প্রতিটি গ্রাম, ইউনিয়ন ও থানা পর্যায়ে। এসএমইগুলো যেসব সমস্যার মুখোমুখি হয় তা দূরীকরণের যেকোনো উদ্যোগের পাশে এসএমই ফাউন্ডেশন সব সময় থাকবে।’ স্টার্ট আপ বাংলাদেশের এমডি ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা টিনা এফ জাবিন বলেছেন, ‘আর্থিক অন্তর্ভুক্তি প্রক্রিয়াতে এমএসএমইদের অন্তর্ভুক্ত করার ক্ষেত্রে এস-ম্যানেজারের উদ্যোগ সত্যিই প্রশংসনীয়। আমরা এস-ম্যানেজার এবং সেবা প্ল্যাটফর্মকে সবসময় পর্যবেক্ষণ করেছি এবং তাদের এই যাত্রার চলার পথের অংশ হতে পেরে আমরা সত্যিই গর্বিত।’ অনুষ্ঠানে সেবা প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডের সিইও আদনান ইমতিয়াজ হালিম এবং সেবা প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডের সিওও ইলমুল হক সজিব এস-ম্যানেজারের আগামী দিনের পথ চলা ও লক্ষ্যের কথা জানান। অনুষ্ঠানের মূল বক্তব্য উপস্থাপনের পাশাপাশি এস-ম্যানেজারের ভাইস প্রেসিডেন্ট অ্যান্ড হেড অব বিজনেস আবদুর রহমান তন্ময় এস ম্যানেজারের থিম সং উন্মুক্ত করেন। প্রসঙ্গত, এস-ম্যানেজার সেবা প্ল্যাটফর্মের একটি উদ্যোগ যা ২০১৯ সালের ডিসেম্বর মাসে শুরু হয় এবং এর ১৭তম ফিচার হিসেবে ‘অনলাইন স্টোর’-এর উদ্বোধন ঘোষণা করা হলো। এই ফিচার লঞ্চ প্রোগ্রামটি সেবা প্ল্যাটফর্ম লিমিটেডের ‘ডিজিটাল উদ্যোক্তা জয়যাত্রা’ ক্যাম্পেইনের একটি অংশ।

ফেসবুক প্রোফাইল সুরক্ষিত রাখবেন যেভাবে
                                  

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে মানুষের সম্পৃক্ততা বেড়েছে অনেকাংশে। নিজেদের মধ্যে যোগাযোগ রক্ষা, সময় কাটানো ছাড়াও ব্যবসার একটি বড় প্ল্যাটফর্ম হয়ে উঠেছে ফেসবুক। এ কারণে ফেসবুকে ছবি ছাড়াও অনেক গুরুত্বপূর্ণ তথ্য থাকে। তাই ফেসবুক প্রোফাইল সুরক্ষিত রাখা অনেক জরুরি। কারণ বর্তমান সময় অনেকেই ফেসবুকে প্রতারিত হচ্ছেন। আবার হ্যাকিংয়ের ঘটনাও ঘটছে। তথ্যপ্রযুক্তি বিষয়ক ম্যাগাজিনগুলো জানিয়েছে, কয়েকটি কৌশল অবলম্বন করলেই সুরক্ষিত রাখা যায় ফেসবুক প্রোফাইল। ফেসবুক প্রোফাইল সুরক্ষিত রাখার জন্য ব্যবহারকারীদের প্রোফাইলে ‘টু ফ্যাক্টর অথেনটিকেশন’ করে রাখা দরকার। এর ফলে অচেনা কেউ কারো প্রোফাইলে ঢুকতে পারবে না। এছাড়াও প্রোফাইল লক করে রাখলেও এ জাতীয় সমস্যা থেকে অনেকটাই রেহাই পাওয়া যাবে। এই ফিচারের ফলে অচেনা ব্যক্তিরা প্রোফাইল দেখতে পারবে না। তবে প্রোফাইলে থাকা বন্ধুরা ফেসবুকের প্রোফাইল দেখতে পারবেন। পাশপাশি নিজের প্রোফাইল কাদের দেখাতে চান সেই বিষয়ে ধারণা রাখতে হবে। সে অনুযায়ী নিজের টাইম লাইন ঠিক করতে হবে। এর ফলে কোনো পোস্ট বা শেয়ার করা হলে তা সহজেই নির্দিষ্ট কিছু ব্যক্তি দেখতে পারবেন। অচেনা কেউ এই পোস্ট দেখতে পারবেন না। নিজের ফেসবুক টাইমলাইনে কী রাখতে চান সেই বিষয়েও ধারণা রাখতে হবে। এছাড়া পুরনো পোস্ট বা ছবি ডিলিট করে দিতে হবে। এর ফলে সহজেই প্রোফাইল নিয়ন্ত্রণ করতে সুবিধা হবে সকলের। তাই মনে করা হচ্ছে নিজেদের ফেসবুক প্রোফাইল বাঁচানোর জন্য মানুষের কাছে এই কয়েকটি পদ্ধতি বেশ গুরুত্বপূর্ণ। আর এর ফলে সহজেই হ্যাকারদের হাত থেকে রক্ষা করা যাবে ফেসবুক প্রোফাইল। পাশাপাশি ফেসবুকের প্রয়োজনীয় তথ্যের নিরাপত্তা নিয়েও উদ্বিগ্ন হওয়ার প্রয়োজন পরবে না।

শিশু-কিশোরদের নিয়ে টেলিস্কোপ মেকিং ওয়ার্কশপ
                                  

মহাকাশের অজানা রহস্য উন্মোচনে কাজ করার জন্য শিশু-কিশোরদের নিয়ে অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে টেলিস্কোপ মেকিং ওয়ার্কশপ। বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরাম এবং স্পেস ইনোভেশন ক্যাম্প যৌথভাবে ওয়ার্কশপটি আয়োজন করবে। এই ওয়ার্কশপে বাচ্চারা বাসায় বসে টেলিস্কোপ বানাবে। নিজেদের বানানো টেলিস্কোপ দিয়েই তারা দেখবে দূর আকাশের চাঁদ-তারা।

টেলিস্কোপ বানানোর প্রতিটি ধাপ অভিজ্ঞ মেন্টররা ডিজিটাল প্রসপেক্টাস, ভিডিও এবং লাইভ সেশনের মাধ্যমে শিশুদের ধারণা দেবেন।

এরপর ২৮ ফেব্রুয়ারির মধ্যে টেলিস্কোপটি বানিয়ে একটি ভিডিও প্রেজেন্টেশন আয়োজকদের কাছে পাঠাতে হবে। পরবর্তিতে করোনা পরিস্থিতি ভালো হলে রাজধানীর ইউনাইটেড ইন্টারন্যাশনাল ইউনিভার্সিটি মাঠে রাতের আকাশ পর্যবেক্ষণের ব্যবস্থা করা হবে। সেখানে বাচ্চারা তাদের বানানো টেলিস্কোপ নিয়ে আসবে। বাংলাদেশ ইনোভেশন ফোরামের প্রতিষ্ঠাতা আরিফুল হাসান অপু বলেন, ‘শিশু-কিশোরদের মাঝে মহাকাশ বিজ্ঞান নিয়ে নতুন নতুন আবিষ্কারে উৎসাহিত করার লক্ষ্যে আমাদের এই আয়োজন।’

আয়োজনে অংশগ্রহন করতে হলে অংশগ্রহনকারীকে রেজিস্ট্রেশন করতে হবে http://telescope.spacecampbd.com/-এই ঠিকানায় আয়োজনটিতে ই-টিকেট পার্টনার ই-সফট এবং আউটরিচ পার্টনার হিসেবে রয়েছে টিং টং টিউব।


   Page 1 of 14
     তথ্যপ্রযুক্তি
বাংলাদেশে ১৫ শতাংশ, বিশ্বে মোবাইল ইন্টারনেটের গতি বেড়েছে ৬০ শতাংশ
.............................................................................................
শিশুদের জন্য ইউটিউবের বিকল্প বেবিটিউব
.............................................................................................
ভারতে ৩০ লক্ষাধিক অ্যাকাউন্ট নিষিদ্ধ করল হোয়াটসঅ্যাপ
.............................................................................................
নতুন মডেল নিয়ে আসছে ইয়ামাহা
.............................................................................................
ইলেকট্রিক মোপেড নিয়ে আসছে কাইনেটিক
.............................................................................................
বাংলাদেশি ব্রাউজারে যুক্ত হলো নতুন আইকন ও ফিচার!
.............................................................................................
ওলার ইলেকট্রিক স্কুটার লঞ্চিং ১৫ আগস্ট
.............................................................................................
৬০ দেশে গ্রাহক সেবা দিচ্ছে অপো
.............................................................................................
শিশু-কিশোরদের নিয়ে হুইসেলের ফ্রি কোডিং কর্মশালা
.............................................................................................
জেসিআই ঢাকা হেরিটেজের উদ্যোগে রোবটিক্স নিয়ে অনলাইন আলোচনা
.............................................................................................
বাংলাদেশে ই-স্পোর্টস: টুর্নামেন্ট ও ইউটিউব থেকে আয় হচ্ছে
.............................................................................................
গুগল ফটোসের বিনামূল্যের সেবা বন্ধ হচ্ছে
.............................................................................................
স্মার্টফোন ভিজে গেলে কী করবেন?
.............................................................................................
এসএমই ব্যবসায়ীদের জন্য ‘অনলাইন স্টোর’ নিয়ে এল এস-ম্যানেজার
.............................................................................................
ফেসবুক প্রোফাইল সুরক্ষিত রাখবেন যেভাবে
.............................................................................................
শিশু-কিশোরদের নিয়ে টেলিস্কোপ মেকিং ওয়ার্কশপ
.............................................................................................
আনারস পাতার ড্রোন বানালেন মালয়েশিয়ার গবেষকরা
.............................................................................................
ফেসবুকের সঙ্গে তথ্য শেয়ার করবে হোয়াটসঅ্যাপ
.............................................................................................
দেশে ৪০ লাখের বেশি যাত্রী উবার ব্যবহার করেছেন
.............................................................................................
বাংলাদেশে নতুন ফিচার চালু করল গুগল ম্যাপস
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু ইনোভেশন গ্র্যান্টের বিভাগীয় ক্যাম্পেইন শুরু
.............................................................................................
করোনা টেস্ট করবে রোবট নার্স
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত কিনা জানিয়ে দেবে গুগল!
.............................................................................................
ক্ষমা চাইলো ফেসবুক
.............................................................................................
নেটদুনিয়ার নেতিবাচক দিক থেকে দূরে রাখতে গুগলের উদ্যোগ
.............................................................................................
ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের রাজত্ব, শিকার ৮৬ শতাংশ মানুষ
.............................................................................................
২০৩৩ সালের মধ্যে মঙ্গলে যাচ্ছে নাসা?
.............................................................................................
নতুন বছরে যেসব ফোনে বন্ধ হচ্ছে হোয়াটস অ্যাপ
.............................................................................................
স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমানোর উপায়
.............................................................................................
মহাকাশ কেন্দ্রে ব্যাকটেরিয়া, নাসার উদ্বেগ!
.............................................................................................
ফিল্মফেয়ারে সেরা রণবীর-আলিয়া
.............................................................................................
পরমাণু বোমার চেয়ে ১০ গুণ বেশি শক্তিশালী উল্কার ছবি প্রকাশ নাসার
.............................................................................................
নতুন অপারেটিং সিস্টেম আনছে হুয়াওয়ে
.............................................................................................
বিশ্বে ইন্টারনেট স্তা ভারতেসবচেয়ে স
.............................................................................................
সালমানের বিরুদ্ধে মন্ত্রীর যুদ্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
ভুল করে পাঠানো মেসেজ ফেরত আনবেন যেভাবে
.............................................................................................
যেভাবে সুরক্ষিত রাখবেন মোবাইলের ব্যক্তিগত তথ্য
.............................................................................................
রোবটের মাধ্যমে পণ্য ডেলিভারি শুরু করলো আমাজন
.............................................................................................
কেমন হবে মঙ্গল গ্রহের বাড়ি?
.............................................................................................
মধ্যবিত্তের নাগালে আনতে দাম কমানো হচ্ছে আইফোনের
.............................................................................................
হার্লি ডেভিডসনের প্রথম ইলেকট্রিক বাইক লাইভওয়্যার
.............................................................................................
চাঁদের উল্টো পিঠে লাল মাটির সন্ধান
.............................................................................................
১৫০ কোটি আলোকবর্ষ দূর থেকে রেডিও সিগন্যালের সন্ধান
.............................................................................................
ফেসবুকে যে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা বিপজ্জনক
.............................................................................................
মঙ্গলে ৫০.১ মাইল জুড়ে বরফ বিস্তৃত, জানালো ইএসএ
.............................................................................................
চীনের যোগাযোগ উপগ্রহের সফল উৎক্ষেপণ
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে রহস্যময় আলো, জল্পনা তুঙ্গে!
.............................................................................................
গুগল-ফেসবুকের উপর কর বসাচ্ছে ফ্রান্স
.............................................................................................
৬৮ লাখ গ্রাহকের ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস, ফেসবুকের ঘোষণায় তোলপাড়
.............................................................................................
মার্কিন সেনেটে গুগলের বিরুদ্ধে শুনানি, সাফাইয়ে কী বললেন পিচাই?
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD