১৩ শাওয়াল ১৪৪১ , ঢাকা, রবিবার, ২৪ জ্যৈষ্ঠ ১৪২৭, ৭ জুন , ২০২০
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * মুক্তি পাচ্ছেন বেগম খালেদা জিয়া   * প্রধানমন্ত্রীর দশ নির্দেশনা   * সব ধরনের যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ   * টিসিবি এবং ভোক্তা অধিদফতরের সকলের ছুটি বাতিল   * প্রয়োজনে দেশে জরুরি অবস্থা জারির পরামর্শ   * করোনায় বিশ্বজুড়ে মৃতের সংখ্যা ১১ হাজার ছাড়াল!   * ঢাকা স্যানিটেশন ব্যবস্থার উন্নয়নে বিশ্বব্যাংকের অনুমোদন!   * করোনা প্রতিরোধে চীন থেকে বিশেষজ্ঞ আনার পরিকল্পনা সরকারের   * দেশের সকল নির্বাচন স্থগিত ঘোষণা!   * দেশে করোনায় ২য় ‍একজনের মৃত্যু, আক্রান্তের সংখ্যা ২৪!  

   তথ্যপ্রযুক্তি -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
করোনায় আক্রান্ত কিনা জানিয়ে দেবে গুগল!

অনলাইন ডেস্কঃ

মার্কিন সরকারের নির্দেশে করোনা পরীক্ষা করার জন্য নতুন ওয়েবসাইট বানাচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন সাইট গুগল। শনিবার কোম্পানিটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়েছে।রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭০০ ইঞ্জিনিয়ার করোনা পরীক্ষার জন্য নতুন ওয়েবসাইট তৈরির কাজ করছে। এই ওয়েবসাইটটি করোনা ভাইরাসের লক্ষণ, ঝুঁকি এবং পরীক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানিয়ে দেবে। একটি টুইট বার্তায় গুগলের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমরা মার্কিন সরকারের সঙ্গে সংঘবদ্ধ হয়ে কোভিড-১৯ ভাইরাস প্রতিরোধ এবং আমাদের কমিউনিটির স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অব্যাহতভাবে কাজ করে যাবো।

এদিকে গত শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুগলের এমন কাজের প্রশংসা করেছেন এবং কোম্পানিটিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এ নিয়ে হোয়াইট হাউসের সমন্বয়ক ডেবোরাহ ব্রিক্স বলেন, তারা যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ওয়েবসাইটটির ব্যবহার নিশ্চিত করতে চান। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ৫১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনা ভাইরাস।

করোনায় আক্রান্ত কিনা জানিয়ে দেবে গুগল!
                                  

অনলাইন ডেস্কঃ

মার্কিন সরকারের নির্দেশে করোনা পরীক্ষা করার জন্য নতুন ওয়েবসাইট বানাচ্ছে সার্চ ইঞ্জিন সাইট গুগল। শনিবার কোম্পানিটির পক্ষ থেকে এমনটি জানানো হয়েছে।রয়টার্সের প্রতিবেদনে বলা হয়, ১৭০০ ইঞ্জিনিয়ার করোনা পরীক্ষার জন্য নতুন ওয়েবসাইট তৈরির কাজ করছে। এই ওয়েবসাইটটি করোনা ভাইরাসের লক্ষণ, ঝুঁকি এবং পরীক্ষা বিষয়ক বিভিন্ন প্রশ্নের উত্তর জানিয়ে দেবে। একটি টুইট বার্তায় গুগলের পক্ষ থেকে বলা হয়, আমরা মার্কিন সরকারের সঙ্গে সংঘবদ্ধ হয়ে কোভিড-১৯ ভাইরাস প্রতিরোধ এবং আমাদের কমিউনিটির স্বাস্থ্য সুরক্ষায় অব্যাহতভাবে কাজ করে যাবো।

এদিকে গত শুক্রবার মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প গুগলের এমন কাজের প্রশংসা করেছেন এবং কোম্পানিটিকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন। এ নিয়ে হোয়াইট হাউসের সমন্বয়ক ডেবোরাহ ব্রিক্স বলেন, তারা যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে ওয়েবসাইটটির ব্যবহার নিশ্চিত করতে চান। এখন পর্যন্ত যুক্তরাষ্ট্রে কমপক্ষে ৫১ জনের প্রাণ কেড়ে নিয়েছে করোনা ভাইরাস।

ক্ষমা চাইলো ফেসবুক
                                  
কারিগরি ত্রুটির কারণে একাধিক সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে বিভ্রাট নিয়ে ক্ষমা চাইলো ফেসবুক। বুধবার ফেসবুক, ইনস্টাগ্রাম ও হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারে সমস্যা হওয়ায় গ্রাহকদের কাছে এক বার্তায় ক্ষমা চায় ফেসবুক কর্তৃপক্ষ। খবর গালফ টুডের। জানা গেছে, বুধবার দুপুরের পর থেকে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমটিতে সমস্যার সৃষ্টি হয়। ফেসবুকের পাশাপাশি সমস্যায় পড়তে হয় ছবি শেয়ারিংয়ের জনপ্রিয় অ্যাপ ইনস্টাগ্রাম এবং হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহারকারীদেরও। ফেসবুকের এই বিভ্রান্তি সবচেয়ে বেশি প্রভাব ফেলেছে যুক্তরাষ্ট্র, যুক্তরাজ্য ও ইউরোপের দেশগুলোতে। তবে বাংলাদেশে বুধবার ফেসবুক ব্যবহার করা গেলও তা ছিল খুবই ধীর গতির। রাত পৌনে নয়টা থেকে বাংলাদেশে সমস্যা বেশি দেখা দেয়। প্রায় ৩৯ শতাংশ ফেসবুক ব্যবহারকারী লগইন করার সময় সমস্যার মুখে পড়েন। ফেসবুক বলছে, ফেসবুকে ছবি ও ভিডিও আপলোড, এবং এগুলো পাঠাতে সমস্যা হচ্ছে। আমাদের নজরে এসেছে বিষয়টি। এজন্য আমরা ক্ষমা চাচ্ছি। আমরা সমস্যা সমাধানে কাজ করে যাচ্ছি। দ্রুতই স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে ফেসবুক।
নেটদুনিয়ার নেতিবাচক দিক থেকে দূরে রাখতে গুগলের উদ্যোগ
                                  
ইন্টারনেটের দৌলতে শিশুরা অনেক সময়ই না চিনতে পেরে অজান্তেই ঢুকে পড়ছে অচেনা জগতে। পথটা যদি ভুল হয় তবে তার প্রভাব পড়ে তাদের ওপর। মানসিকভাবে অসুস্থ হয়ে পড়া, আবার কখনও অজান্তেই জড়িয়ে পড়া এমন কিছু ঘটনায় যা বিড়ম্বনায় ফেলে তাদের অভিভাবকদের। শিশুদের নেটদুনিয়ার অন্ধকার জগত থেকে দূরে রাখতে এগিয়ে এসেছে গুগল। সংস্থাটির পরামর্শ, শিশুদের ইন্টারনেট ব্যবহারে ‘‌ক্রোম’র সহায়তা নিতে। যাতে আপত্তিজনক ওয়েব‌সাইট থেকে শিশুদের দূরে সরিয়ে রাখা যায়। শিশুরা কতটা সময় ইন্টারনেট ব্যবহার করবে তা ঠিক করতে হবে অভিভাবকদেরই। প্রয়োজনে অভিভাবকরা গুগলের ‘‌ফ্যামিলি লিঙ্ক’র সাহায্য নিতে পারেন। এর মাধ্যমে ইন্টারনেট ব্যবহারের প্রতিদিনের সময়সীমা নির্দিষ্ট করা এবং ব্যবহারের জন্য শিশুরা যে যন্ত্রটি ব্যবহার করছে তা তাদের জানতে না দিয়েই ‘‌লক’‌ করা যায়। প্রাপ্তবয়স্কদের বিষয়গুলি থেকে শিশুদের দূরে সরিয়ে রাখার জন্যও এটি কাজে লাগে। আবার কী চ্যানেল দেখবে বা কী দেখবে না সেটা ঠিক করার জন্য প্রয়োজনে ‘‌ইউটিউব কিডস’‌র সাহায্যও নেওয়া যেতে পারে। গুগলের আরেকটি উল্লেখযোগ্য প্রোগ্রাম ‘‌বি ইন্টারনেট অসাম’‌। যার সাহায্যে ইন্টারনেট ব্যবহারের সময় কী কী বিষয় মাথায় রাখা উচিত বা আগামী দিনে কীভাবে এ বিষয়ে একজন দায়িত্বপূর্ণ নাগরিক হয়ে ওঠা যায় তা শিশুরা জানতে পারবে।
ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের রাজত্ব, শিকার ৮৬ শতাংশ মানুষ
                                  
ভুয়া খবরের রাজত্ব ইন্টারনেটে। সম্প্রতি ২৫টি দেশের ২৫ হাজার মানুষকে নিয়ে সমীক্ষা চালিয়েছিল একটি মার্কিন থিঙ্ক ট্যাঙ্ক। গত বছরের ২১ ডিসেম্বর থেকে চলতি বছরের ১০ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চালানো সেই সমীক্ষায় উঠে এসেছে, সারা বিশ্বের ইন্টারনেট ব্যবহারকারীদের মধ্যে ৮৬ শতাংশই ভুয়া খবরের শিকার হয়ে চলেছেন। সমীক্ষা বলছে, বেশির ভাগ ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র থেকে। তারপরই রয়েছে রাশিয়া এবং চীন। ভুয়া খবরে প্রতারিত হতে হতে ইন্টারনেটের উপরে ক্রমশ আস্থা হারাচ্ছে সাধরণ মানুষ। তার প্রভাব পড়ছে অর্থনীতি ও রাজনৈতিক চর্চায়। সরকার ও সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলির তাই অবিলম্বে সক্রিয় হওয়া প্রয়োজন বলে মনে করছে থিঙ্ক ট্যাঙ্কটি। থিঙ্ক ট্যাঙ্কটির তরফে ফেন অসলার হ্যাম্পসন বলেন, ‘‘এ বছরের সমীক্ষা শুধু ইন্টারনেট কতটা ভঙ্গুর, সেই প্রশ্নটাই তুলে ধরেনি। দেখা গেছে, সোশ্যাল মিডিয়া সংস্থাগুলি দৈনন্দিন জীবনে তথা ব্যক্তি-পরিসরে যে ভাবে ছড়ি ঘোরাচ্ছে, তা নিয়ে প্রবল অস্বস্তিতে সাধারণ মানুষ।’’ সমীক্ষকেরা দেখেছেন, সবচেয়ে সহজে প্রভাবিত হচ্ছেন মিশরের মানুষেরা। আর সব চেয়ে বেশি সন্দেহগ্রস্ত পাকিস্তানিরা। কিন্তু ব্যক্তিগত জীবনে সামাজিক মাধ্যম সংস্থার উঁকিঝুঁকি এবং ইন্টারনেট জুড়ে অবিশ্বাসের জাল যে বহু দূর ছড়িয়ে গেছে, সমীক্ষার প্রয়োজনে মুখোমুখি ও অনলাইনে নেওয়া সাক্ষাৎকারগুলি তা স্পষ্ট করে দিয়েছে।
২০৩৩ সালের মধ্যে মঙ্গলে যাচ্ছে নাসা?
                                  

চাঁদে প্রথম পা রেখেছিলেন নিল আর্মস্ট্রং এবং বাজ় অল্ড্রিন ১৯৬৯ সাল। এরপরে দীর্ঘ পঞ্চাশ বছর কেটে গিয়েছে। পুরনো সেই মুহূর্ত ফিরিয়ে আনতে চান মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। আর সেই মতো প্রস্তুতি নিচ্ছে মার্কিন মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র নাসাও। ২০১৭ সালের ১১ ডিসেম্বর একটি নির্দেশিকায় সই করেন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। নির্দেশিকার বক্তব্য ছিল এ রকম, চাঁদে ফের মানুষ পাঠানো হোক। এবং তার পরের গন্তব্য হবে মঙ্গল। নাসা জানিয়েছে, সব ঠিক থাকলে ২০২৪ সালে ফের চাঁদে পাড়ি দেবেন মহাকাশচারীরা। আর মঙ্গলে ২০৩৩ সালে। তবে বিশেষজ্ঞরা বলছেন, ২০৩৩ সালের মধ্যে লালগ্রহে পা ফেলা খুবই কঠিন। এক প্রকার অসাধ্য সাধন করতে হবে বিজ্ঞানীদের। সম্প্রতি একটি সম্মেলনে নাসার অন্যতম কর্তা জিম ব্রাইডেনস্টাইন বলেন, ‘‘নতুন চন্দ্রাভিযানে আমাদের দক্ষতা, ক্ষমতা প্রমাণ করতে হবে। সেখানে সফল হলে পরবর্তী লক্ষ্য মঙ্গল।’’ হিউস্টনের জনসন স্পেস সেন্টারের অন্যতম বিশেষজ্ঞ রবার্ট হাওয়ার্ডের মতে, বিষয়টি বিজ্ঞান কিংবা প্রযুক্তিগত ভাবে যত না জটিল, তার থেকেও বেশি চিন্তার বিশাল অঙ্কের খরচ। তাছাড়া রাজনৈতিক বাধার মুখেও পড়তে হতে পারে। সরকার এমন অভিযানে কতটা ইচ্ছুক, সেটাও একটা বড় প্রশ্ন। তিনি বলেন, ‘‘বহু মানুষ চান সেই ‘অ্যাপেলো মোমেন্ট’-এর স্বাদ নিতে। কিন্তু তার জন্য কেনেডির মতো প্রেসিডেন্ট-ও চাই। মানুষকে একযোগে এগিয়ে আসতে হবে।’’ ‘‘তবে ২০২৪ নয়, ২০২৭ সাল তো হয়েই যাবে,’’ বলছেন হাওয়ার্ড। কারণটাও ব্যাখ্যা করেছেন— মহাকাশযানের নকশা তৈরি, তার পর যান নির্মাণ, বিভিন্ন পরীক্ষা, এসব তো রয়েইছে। চাঁদে পাড়ি দেওয়ার পরে পৌঁছতে লাগবে তিন দিন। কিন্তু মঙ্গলে পৌঁছতে কমপক্ষে ৬ মাস। অভিযান শেষ করতে দু’বছরেরও বেশি। ২৬ মাস অন্তর মঙ্গল ও পৃথিবী সবচেয়ে কাছে আসে। মঙ্গলে পাড়ি দেওয়ার জন্য ওই সময়টাই সেরা। বিজ্ঞানীদের একাংশ অবশ্য খরচের থেকে অন্য বিষয়ে বেশি চিন্তিত। নাসার বিজ্ঞানী জুলি রবিনসন বলেন, ‘‘দ্বিতীয় চিন্তা হচ্ছে, খাবার। অত দিনের জন্য খাবার ব্যবস্থা রাখতে হবে।’’ তাছাড়া কেউ অসুস্থ হলে নিজেদের দেখভাল, প্রাথমিক চিকিৎসা প্রক্রিয়া জানতে হবে। মহাকাশচারীদের পোশাকও একটা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। তেজস্ক্রিয় বিকিরণ থেকে বাঁচার মতো পোশাক চাই। সর্বোপরি, টানা দু’বছর জনমানব-বর্জিত হয়ে থাকা। সূত্র: আনন্দবাজার।

নতুন বছরে যেসব ফোনে বন্ধ হচ্ছে হোয়াটস অ্যাপ
                                  

২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বরের পর থেকে বেশ কিছু স্মার্টফোনে অচল হয়ে যাবে হোয়াটস অ্যাপ। ইতিমধ্যে এই সমস্ত হ্যান্ডসেটের একটি তালিকা প্রকাশ করেছে সংস্থা। গেজেটস ৩৬০ এ প্রকাশিত প্রতিবেদন অনুযায়ী, ২০২০ সালের ১ জানুয়ারি থেকেই সমস্ত উইন্ডোজ স্মার্টফোনে হোয়াটস অ্যাপ পরিষেবা বন্ধ হয়ে যাবে। ২০১৯ সালের ৩১ ডিসেম্বরের পর থেকে ওই সব ফোনে শুধু হোয়াটস অ্যাপের আপডেট নেওয়াই বন্ধ হচ্ছে না, একেবারেই অচল হয়ে যাবে হোয়াটস অ্যাপ মেসেজিং অ্যাপ। সম্প্রতি উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম নির্ভর গেজেটগুলোতে সাপোর্ট বন্ধ করে দিয়েছে মাইক্রোসফট। এবার ওই একই পথে হেঁটে উইন্ডোজ এর সমস্ত স্মার্টফোনে মেসেজিং পরিষেবা বন্ধ করছে হোয়াটস অ্যাপ। জানা গেছে, জুন মাসে উইন্ডোজ স্মার্টফোনে নিজেদের শেষ সফ্টওয়্যার আপডেট দেবে হোয়াটস অ্যাপ। তবে শুধুমাত্র উইন্ডোজ অপারেটিং সিস্টেম নির্ভর স্মার্টফোনগুলোতেই নয়, অ্যান্ড্রয়েড এর পুরনো ভার্সানের ফোনেও আর মিলবে না হোয়াটস অ্যাপ পরিষেবা। জানা গিয়েছে, ২০২০ সালের ১ ফেব্রুয়ারি থেকে অ্যান্ড্রয়েড এর v2.3.7 বা তার পুরনো ভার্সানে আর কাজ করবে না হোয়াটস অ্যাপ!

স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমানোর উপায়
                                  

ইন্টারনেট ছাড়া আজকাল যেখানে চলাই মুশকিল সেখানে মোবাইল ফোন বা স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ বেশি হবে সেটাই স্বাভাবিক। তবে বিভিন্ন উপায় অবলম্বন করে স্মার্টফোন ইন্টারনেটের খরচ কমানো যায়। নিচে তেমনই কয়েকটি উপায় নিয়ে আলোচনা করা হলো :  

ডেটা রেসট্রিকশন : অনেকেই জানেন না যে স্মার্টফোনটি যখন ব্যবহার করছেন না কিন্তু ডেটা অন করে রেখেছেন তখনও আপনার ডেটা খরচ হচ্ছে! হ্যাঁ ঠিক তাই। আপানার অ্যানড্রয়েড ফোনটির বেশির ভাগ অ্যাপস ই সার্ভিস সচল রাখার জন্য ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা ব্যবহার করে। যেমন হোয়াটসঅ্যাপ, ভাইবার, প্লে-স্টোর, গুগল অ্যাপস, মেসেঞ্জার ইত্যাদি। এই অ্যাপসগুলো আপনি অন্য কাজ করার সময়ও অকারণে ডেটা কাটতে থাকে। এর থেকে বাঁচতে আপনার সেটিংস অপশনে গিয়ে ডেটা ইউজেস>তারপর রেস্টিক্ট ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা অপশনে টিক দিয়ে দিন। আপনার নোটিফিকেশন বারে একটি বিস্ময়সূচক চিহ্ন দেখাবে। এর মানে অ্যাপগুলি আর ব্যাকগ্রাউন্ডে ডেটা চুরি করতে পারবে না।

শুধু প্রয়োজনীয় অ্যাপস চালু রাখুন : যেহেতু স্মার্টফোন ইউজ করেন সেহেতু নিশ্চয়ই ইন্টারনেটভিত্তিক কোনো একটি বা একাধিক ইনস্টেন্ট মেসেজিং অ্যাপ ব্যবহার করে থাকেন। এর মাঝে এমন একটি অ্যাপ থাকতে পারে যেটিকে সব সময় চালু রাখা দরকার। যদি ব্যাকগ্রাউন্ড ডেটা বন্ধ করে রাখেন তবে সবগুলি অ্যাপ একত্রে ব্যাকগ্রাউন্ডে বন্ধ হয়ে থাকবে। এই সমস্যা থেকে বাঁচতে সেটিংস>ডেটা ইউজেস এ গিয়ে দেখতে পাবেন সবগুলি অ্যাপ দেখাচ্ছে। কোন অ্যাপ কি পরিমাণ ডেটা খরচ করছে সেটাও আপনি দেখতে পারবেন। এখন একটু সময় নিয়ে অ্যাপসগুলোতে ক্লিক করে ভেতরে প্রবেশ করুন এবং যে অ্যাপগুলো আপনার চালু রাখা দরকার সেগুলো বাদ দিয়ে বাকিগুলো রেস্টিক্টেড করে দিন।
ডেটা সেভিংস অ্যাপ ব্যবহার : কিছু কিছু অ্যাপস আছে যেগুলো অনেক লো ডেটা খরচ করে আপনাকে ব্রাউজিংয়ের সুযোগ দেয়। যেমন অপেরা মিনি, অপেরা নিউ, ইউসি ব্রাউজার–এ ডেটা সেভিংস মুড আছে। এই মুড ব্যবহার করে আপনি ৮০ শতাংশ পর্যন্ত ব্রাউজিং খরচ বাঁচাতে পারেন। ইনস্ট্যান্ট মেসেজিং এর ক্ষেত্রে সঠিক অ্যাপ নির্বাচন করুন। যেমন ভয়েস কলিংয়ের ক্ষেত্রে হোয়াটসঅ্যাপ–এ ডেটা খরচ খুবই কম হয়। তাই দেখেশুনে সঠিক সিদ্ধান্ত নিন।

 

সিকিউরিটি অ্যাপ ব্যবহার : বিভিন্ন সিকিউরিটি অ্যাপস ব্যবহার করেও আপনি ডেটা খরচ কমাতে পারেন। এই অ্যাপগুলোর দ্বারা আপনি জানতে পারবেন কোন অ্যাপগুলি আপনার ডেটা চুরি করছে। সেটিংসের মাধ্যামে আপনার পারমিশন ছাড়া সেগুলো ডেটা ব্যাবহার করতে পারবে না। প্লে-স্টোরে সি এম সিকিউরিটি, ৩৬০ সিকিউরিটি ইত্যাদি বিভিন্ন অ্যাপ আছে। এই অ্যাপগুলোর দ্বারা ডেটা প্রটেকশন ছাড়াও ভাইরাস, হ্যাকিং থেকে সুরক্ষিত থাকবেন।

ডেটা সেটিংস : আপনার ফোনে ইন্টারনেট ব্যবহারের ক্ষেত্রে কিছু সেটিংস রয়েছে যেগুলিকে ব্যবহার করা জরুরি। যেমন আপনার স্মার্টফোনটিকে ওয়াইফাই্ হটস্পট হিসেবে ব্যবহার করা যায়। ওয়াইফাই-ভিত্তিক কিছু অ্যাপস যেমন শেয়ার ইট ব্যবহারের সময় আপনার অজান্তেই স্বয়ংক্রিয়ভাবে অনেকসময় হটস্পট চালু হয়ে যায়। এর ফলে আপনার অজান্তে অন্য কেউ আপনার ডেটা ব্যবহারের সুযোগ পাবে। এমনকি ওয়াইফাই নেটোওয়ার্ক ব্যবহার করে আপনার স্মার্টফোনটি হ্যাক হতে পারে। সে ক্ষেত্রে সবকিছু চেক করুন। হটস্পটে পাসওয়ার্ড ব্যবহার করুন। এবং অবশ্যই প্রয়োজন না থাকলে ব্যবহার শেষে আপনার ডেটা কানেকশন বন্ধ রাখুন।

মহাকাশ কেন্দ্রে ব্যাকটেরিয়া, নাসার উদ্বেগ!
                                  

অনলাইন ডেস্ক: পৃথিবীর কক্ষপথে ঘুরতে থাকা আন্তর্জাতিক মহাকাশ গবেষণা কেন্দ্র (আইএসএস)-এ মিলল ব্যাকটেরিয়া। নাসার বিজ্ঞানীদের কথায়, ‘‘এ ধরনের ব্যাকটেরিয়া অফিসে পাওয়া যায়। কিন্তু তা কী ভাবে ওখানে এলো, জানা দরকার। ``
বিপজ্জনক ব্যাকটেরিয়া প্রায়শই রোগভোগের কারণ হয়। তা থেকে বাঁচতে হলে তাই আগাম সতর্কতা প্রয়োজন। নাসার জেট প্রোপালসন ল্যাবের গবেষক কস্তুরী বেঙ্কটেশ্বরনের কথায়, ‘‘মহাকাশ সফরে যাওয়া নভোচারীদের নিরাপত্তার জন্য বিষয়টি খুব গুরুত্বপূর্ণ। কারণ ওই সময়ে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কিছুটা কমে যায়। তাছাড়া পৃথিবীর মতো চিকিৎসা ব্যবস্থা তো ওখানে নেই।’’
দীর্ঘ ১৪ মাস ধরে আইএসএস-এর বিভিন্ন জায়গা, যেমন জানালা, শৌচাগার, খাবার টেবিল, শোওয়ার ঘর থেকে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। ‘কালচার টেকনিক’ ও ‘জিন সিকোয়েন্সিং’ প্রক্রিয়ায় সেগুলোর প্রকৃতি বিচার করা হচ্ছে। মহাকাশে ওই ব্যাকটেরিয়া চরিত্র বদল হয়েছে কিনা, তা-ও লক্ষ করা হয়েছে।
গবেষকেরা জানাচ্ছেন, ব্যাকটেরিয়াগুলো মূলত মনুষ্য-সমাজে পরিচিত, স্ট্যাফাইলোকক্কাস, ব্যাসিলাস ইত্যাদি। স্ট্যাফাইলোকক্কাস অরিয়াস যেমন মানুষের ত্বক, নাকে থাকে। এনটেরোব্যাকটর থাকে অন্ত্রে। গবেষণায় বলা হয়েছে, ‘‘জিম, অফিস, হাসপাতালে যে ধরনের ব্যাকটেরিয়া থাকে, আইএসএস-এ সেগুলোই রয়েছে।’’
তবে মহাকাশে ব্যাকটেরিয়া কেমন (কতটা সক্রিয়) আছে, তা জানা নেই। পরবর্তী গবেষণায় সেটা জানার চেষ্টা করছেন বিজ্ঞানীরা। আনন্দবাজার।

ফিল্মফেয়ারে সেরা রণবীর-আলিয়া
                                  

অনলাইন ডেস্ক:
৬৪তম ফিল্মফেয়ার অ্যাওয়ার্ড অনুষ্ঠানে সেরা অভিনয়শিল্পীর পুরস্কার জিতেছেন রণবীর কাপুর ও আলিয়া ভাট। জনপ্রিয় বিভাগে সঞ্জু ও রাজি ছবি দুটির জন্য এ পুরস্কার পেয়েছেন তারা। এর আগে রকস্টার ও বরফি ছবি দুটির জন্য ফিল্মফেয়ার পেয়েছিলেন রণবীর। আর আলিয়ার এটি দ্বিতীয় ফিল্মফেয়ার। প্রথমটি পেয়েছিলেন উড়তা পাঞ্জাব ছবির জন্য। এ বছর সমালোচকের দৃষ্টিতে সেরা অভিনেতা হয়েছেন রণবীর সিং (পদ্মাবত) ও আয়ুষ্মান খুরানা (আন্ধাদুন) এবং সেরা অভিনেত্রী নির্বাচিত হয়েছেন নীনা গুপ্তা (বাধাই হো)

অন্যান্য বিভাগে যারা জিতেছেন:
সেরা পরিচালক: মেঘনা গুলজার (রাজি)
সেরা ছবি (জনপ্রিয়): রাজি
সমালোচকের দৃষ্টিতে সেরা ছবি: আন্ধাধুন
সেরা সহঅভিনেতা (পুরুষ): ভিকি কৌশল (সঞ্জু) ও গজরাজ রাও (বাধাই হো)
সেরা সহঅভিনেতা (নারী): সুরেখা সিক্রি (বাধাই হো)
সেরা অভিষেক (নারী): সারা আলী খান (কেদারনাথ)
সেরা অভিষেক (পুরুষ): ঈশান খাত্তার (বিয়য়েন্ড দ্য ক্লাউডস)
সেরা কস্টিউম: শীতল শর্মা (মান্টো)
সেরা ভিএফএক্স: রেড চিলিস (জিরো)
সেরা আবহসঙ্গীত: ড্যানিয়েল জর্জ (আন্ধাধুন)
সেরা প্লেব্যাক গায়ক (নারী): শ্রেয়া ঘোষাল (ঘুমর)
সেরা প্লেব্যাক গায়ক (পুরুষ) : অরিজিত সিং (এ ওয়াতান)
সেরা লিরিকস: গুলজার (এ ওয়াতান)
সেরা সঙ্গীত: সঞ্জয় লীলা বানশালি (পদ্মাবত)
সেরা সিনেমাটোগ্রাফি: পঙ্কজ কুমার
সেরা নবাগত পরিচালক: অমর কৌশিক (স্ত্রী)
সেরা মৌলিক গল্প: অনুভব সিনহা (মুল্ক)
সেরা অ্যাকশন: বিক্রয় দাহিয়া ও সুনীল রদ্রিগুয়েজ (মুক্কাবাজ)

পরমাণু বোমার চেয়ে ১০ গুণ বেশি শক্তিশালী উল্কার ছবি প্রকাশ নাসার
                                  

অনলাইন ডেস্ক:
অদেখা শক্তিশালী উল্কার উপগ্রহচিত্র প্রকাশ করল নাসা। গত শুক্রবার নাসা ওই ছবি প্রকাশ করলেও উল্কাপাত হয়েছিল গত বছরের ১৮ ডিসেম্বর রাশিয়ার বেরিং সমুদ্রের উপর। উল্কার বিস্ফোরণে নির্গত হয়েছিল ১৭০ কিলোটন শক্তি যা হিরোশিমায় ফেলা পরমাণু বোমার থেকে ১০ গুণ বেশি শক্তিশালী।
উল্কাপাতের পর আবহাওয়া মন্ডলে আগুনের স্ফুলিঙ্গ মিশে যাওয়ার মুহূর্তে নাসার উপগ্রহ টেরা ওই ছবিগুলি তুলেছিল।ছবিতে মেঘের উপর উল্কার লেজের ছায়া দেখা যাচ্ছে। সেই সময় সূর্য দিগন্তের কাছাকাছি থাকায় উল্কার লেজের ছায়া আরও লম্বাটে দেখাচ্ছে।
উল্কাপাতের উত্তাপে মেঘের রঙও কমলা হয়ে গিয়েছিল। প্রাথমিকভাবে নাসার অনুমান, গ্রিনউইচ মিন টাইম অনুযায়ী রাত ১১.‌৪৮ মিনিটে ২০১৮ সালের ১৮ ডিসেম্বর উল্কাপাত হয়। নাসা জানিয়েছে, ২০১৩ সালে রাশিয়ার চেলিয়াবিঙ্কস্‌ শহরের হওয়া উল্কাপাতের পর এটাই পৃথিবীর আবহাওয়া মন্ডলে হওয়া সব থেকে জোরাল উল্কা বিস্ফোরণ।
চেলিয়াবিঙ্কসর ওই বিস্ফোরণে ৪৪০ কিলোটন শক্তি উৎপন্ন হয়েছিল। উল্কাপাতের ফলে এলাকার বাড়িঘরের জানলার শার্সি ভেঙে কাচের টুকরো ছিটকে জখম হয়েছিলেন ১৫০০ মানুষ। তবে এবার সমুদ্রের উপর উল্কাপাত হওয়ায় কেউ হতাহত হননি।

নতুন অপারেটিং সিস্টেম আনছে হুয়াওয়ে
                                  

অনলাইন ডেস্ক:
বাজারে নতুন অপারেটিং সিস্টেম আনছে হুয়াওয়ে। সম্প্রতি নিরাপত্তার অজুহাতে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞার সম্মুখীন হয়েছে এই কোম্পানির তৈরি প্রযুক্তি পণ্যগুলো। তাই বাজারে আধিপত্য বজায় রাখতে নতুন এক অপারেটিং সিস্টেম চালু করার কথা ভাবছে তারা। মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে নিষেধাজ্ঞার বিষয়টি বেআইনি উদ্ধৃতি করে হুয়াওয়ে জানায়, গুগল এবং মাইক্রোসফট অপারেটিং সিস্টেম ব্যবহার করা বন্ধ করতে বাধ্য হলে এই অপারেটিং সিস্টেমটি বাজারে নিয়ে আসবে হুয়াওয়ে।
এটিকে কোম্পানির বিকল্প ব্যবস্থা উল্লেখ করে এটি বাজারে নিয়ে আসার পরিকল্পনার কথা ইতিমধ্যে স্বীকার করেছেন চিনা কোম্পানিটির সিইও। তবে শুধু অপারেটিং সিস্টেমটি চালু করলেই হবেনা এর সাথে যুক্ত আছে এপ্লিকেশন সহ নানা ধরনের সুবিধা প্রদানের বিষয়টিও।
এর আগে স্যামসাং তাদের অপারেটিং সিস্টেম টাইজেন নিয়ে এলেও নানা প্রতিকূলতায় সেটি জনপ্রিয়তার মুখ দেখেনি।

বিশ্বে ইন্টারনেট স্তা ভারতেসবচেয়ে স
                                  

অনলাইন ডেস্ক

বিশ্বে ইন্টারনেট সবচেয়ে বেশি সস্তা ভারতে। মোবাইল ফোনে এক জিবি ইন্টারনেট ব্যবহারের জন্য ভারতে ব্যয় করতে হয় মাত্র সাড়ে ১৮ রুপি (০.২৬ ডলার)। অন্যদিকে এক জিবি ইন্টারনেটের জন্য যুক্তরাষ্ট্রে ১২.৩৭ ডলার এবং যুক্তরাজ্যে ৬.৬৬ ডলার ব্যয় করতে হয়। বিশ্বের ২৩০টি দেশের ইন্টারনেটের মূল্য তুলে ধরে যুক্তরাজ্য-ভিত্তিক সংস্থা ‘ক্যাবল’ এ তথ্য জানিয়েছে।
ক্যাবল’র প্রতিবেদনটিতে বলা হয়, ভারতের জনসংখ্যার বেশিরভাগ তরুণ এবং তাদের প্রযুক্তি সচেতনতা অনেক বেশি। তাই ভারতে স্মার্টফোনের বিশাল বাজার, মোবাইল টেলিকম সেবায় তীব্র প্রতিযোগিতা এবং ইন্টারনেটের দাম এতো কম।
ভারতীয় গণমাধ্যম টাইমস অব ইন্ডিয়া জানায়, বর্তমানে চীনের পরই বিশ্বের দ্বিতীয় বৃহত্তম স্মার্টফোনের বাজার ভারতে। দেশটিতে স্মার্টফোন ব্যবহারকারীর সংখ্যা ৪৩ কোটি। তিন বছর আগেও দেশটিতে মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেট এতো সস্তা ছিল না।

সালমানের বিরুদ্ধে মন্ত্রীর যুদ্ধ ঘোষণা
                                  

অশালীন ভিডিও ইউটিউবে পোস্ট করার দায়ে ফেঁসে যাচ্ছেন সালমান মুক্তাদির। `অভদ্র প্রেম` নামের ওই ভিডিও নিয়ে বেশ কয়েকদিন ধরেই চলছে সমালোচনা। সালমানের ভক্তরাই বিষয়টি নিয়ে তার ওপর ক্ষিপ্ত এবং বিরক্ত। এবার তার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছেন ডাক, টেলিযোগাযোগ ও তথ্যপ্রযুক্তি (আইসিটি) মন্ত্রী মোস্তাফা জব্বার।

সালমানের অবস্থান জানতে চেয়ে ফেসবুকে একটি পোস্ট করেছেন তিনি। সোমবার নিজের ভেরিফায়েড পেজে মন্ত্রী লেখেন, কেউ কি সালমান মুক্তাদিরের আজকের অবস্থা জানাতে পারবেন?

 

এ বিষয়ে গণমাধ্যমকে মোস্তাফা জব্বার বলেছেন, আমি সালমানদের বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করছি, এটা আমি করতেছি।

৯ ফেব্রুয়ারি সালমান মুক্তাদির তার ইউটিউব চ্যানেলে ‘অভদ্র প্রেম’ টাইটেলে একটি বিতকির্ত ভিডিও টিজার প্রকাশ করেন। ভিডিওটি এখন থেকে আর দেখা যাচ্ছে না।

ভুল করে পাঠানো মেসেজ ফেরত আনবেন যেভাবে
                                  

সেন্ড বোতামটা ক্লিক করার পরের মুহূর্তেই কখনও মনে হয়েছে, ইশ… এই মেসেজটা না পাঠালেই ভালো হত। কিংবা ভুল করে একটি মেসেজ অন্যজনকে পাঠিয়ে দিয়ে মাথায় হাত পড়েছে? আপনার প্রিয় সোশ্যাল নেটওয়ার্কিং সাইট এবার সে সমস্যারও সমাধান করে দিচ্ছে। এবার আপনার ফেসবুক মেসেঞ্জারের অভিজ্ঞতা হয়ে উঠবে আরও আকর্ষণীয়। সম্প্রতি ফেসবুক মেসেঞ্জারে যুক্ত হয়েছে একটি নতুন ফিচার। যার মাধ্যমে পাঠিয়ে দেওয়া মেসেজটি ফেরত পাওয়া সম্ভব।

মেসেজ পাঠানোর পর ১০ মিনিট সময় পাবেন প্রেরক। তার মধ্যে পাঠানো মেসেজটি সরিয়ে ফেলার অপশন পাবেন তিনি। ফলে গ্রাহকের কাছে আর সেই মেসেজ পৌঁছাবে না। তার পরিবর্তে গ্রাহক শুধুই একটি লাইন পড়তে পারবেন। তা হল, ‘একটি মেসেজ মুছে ফেলা হয়েছে।’ যাঁরা হোয়াটসঅ্যাপ ব্যবহার করেন, তাঁরা এই ফিচারটির বিষয়ে অবগত। কারণ এই মেসেজিং অ্যাপেও একই ফিচার রয়েছে। এর ফলে ব্যক্তিগত স্তরে হোক বা গ্রুপে, লজ্জার হাত থেকে অনায়াসে বাঁচতে পারেন আপনি। বয়ফ্রেন্ড বা গার্লফ্রেন্ডকে রোম্যান্টিক কোনও ছবি বা বার্তা মেসেঞ্জারে পাঠাতে গিয়ে ভুল করে অফিসের গ্রুপে কিংবা মা-বাবার কাছে যদি তা পৌঁছে যায়, তাহলেই বিপদ। এমনটা অনেকের ক্ষেত্রেই হয়েছে। আর এই মারাত্মক ভুলের কথা মাথায় রেখেই নতুন এই ফিচার আনল মার্ক জুকারবার্গের সংস্থা। ভুল করে পাঠানো মেসেজটি দশ মিনিটের মধ্যে মুছে ফেললেই নো টেনশন।

যেভাবে সুরক্ষিত রাখবেন মোবাইলের ব্যক্তিগত তথ্য
                                  

প্রযুক্তির উন্নতির সঙ্গে সঙ্গে মানুষও ডিজিটালের উপর নির্ভরশীল হয়ে পড়ছে ক্রমেই। বাড়ি বসেই ফোনের বিল, ইলেকট্রিক বিল মেটানো হয়ে যায়। তাছাড়া অনলাইন শপিং, নেট ব্যাংকিং তো রয়েইছে। কিন্তু প্রযুক্তির অব্যবহারের উদাহরণও বারবার উঠে এসেছে শিরোনামে। হ্যাকারদের থেকে নিজের ডেটা সুরক্ষিত রাখাটা বড় চ্যালেঞ্জে পরিণত হয়েছে। তবে পুরোটাই আপনার সচেতনতার উপর নির্ভর করছে। আপনার সুবিধার জন্য এই প্রতিবেদনে রইল এমন কয়েকটি টিপস যা অনলাইনে লেনদেনের সময় আপনার ব্যক্তিগত তথ্যকে সুরক্ষিত রাখবে। চলুন দেখে নেওয়া যাক।

১. আপনি কি অ্যান্ড্রয়েড ইউজার? তাহলে শুধুমাত্র গুগল প্লে স্টোর থেকেই কোনও অ্যাপ ডাউনলোড করুন। সেটাই আপনার সঙ্গে সবচেয়ে সুরক্ষিত। কারণ গুগল প্লে স্টোরে কোনওরকম ক্ষতিকর অ্যাপ থাকলে ইউজারকে আগেভাগেই সতর্ক করা হয় এবং দ্রুত তা স্টোর থেকে সরিয়েও দেওয়া হয়। তবে মোবাইলে কোনও দরকারি অ্যাপ বা নথি থাকলে অবশ্যই প্যাটার্ন বা পিন কোড দিয়ে স্ক্রিন লক করে রাখুন। ফোনে যদি গুগল অ্যাকাউন্ট লগ ইন করা থাকে, তাহলে আরও ভাল। সাধের ফোনটি হারিয়ে গেলে android.com/find ওয়েবসাইটে গিয়েও তা খুঁজে পেতে পারেন।

২. ফোনে ব্যক্তিগত ডেটা সুরক্ষার দায় কিন্তু সম্পূর্ণ আপনার। কোনও থার্ড পার্টি অ্যাপের মোহে পা দিয়ে যদি ব্যক্তিগত তথ্য দিয়ে দেন, তাহলেই সমস্যা। অনেক সময় আপনার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে সেই সব অ্যাপ আপনার মোবাইলের ক্যামেরা, কনট্যাক্ট নম্বর, লোকেশন ইত্যাদি ব্যবহার করে নিতে পারে। তাই এই সব অ্যাপে কোনওরকম তথ্য দেওয়া আগে সতর্ক থাকুন। ফোন কোন বিষয়গুলির ক্ষেত্রে অনুমতি দেওয়া উচিত, তা আপনার ফোনের সেটিংসেই রয়েছে। সময় করে পড়ে ফেলুন।

 

৩. গুগল অ্যাকাউন্টটি নিশ্চয়ই আপনার কাছে সন্তান তুল্য। এটি ছাড়া প্লে-স্টোর থেকে হোয়াটসঅ্যাপ কিছুই ব্যবহার সম্ভব নয়। তাই গুগল অ্যাকাউন্টটির দেখভাল অতি আবশ্যক। সময়ে সময়ে পাসওয়ার্ড বদলানো, গুগলের নির্দেশাবলির দিকে নজর রাখা জরুরি।

৪. একই পাসওয়ার্ড ব্যবহার করে একাধিক অ্যাকাউন্টে লগ ইন করার প্রবণতা অনেকেরই আছে। যা বিপদজনক হতে পারে। মানে ধরুন, আপনার বাড়ি, গাড়ি, অফিস- সবকিছুর জন্য একটাই চাবি। সেটি হাতে পেলেই কেল্লা ফতে। তাই প্রত্যেকটি অ্যাকাউন্টের জন্য আলাদা পাসওয়ার্ড ব্যবহারই বুদ্ধিমানের কাজ। এবং সেসব যেন হয় বেশ শক্তিশালী।

৫. মাঝে মধ্যে আপনার স্মার্টফোনটি আপডেটেড হতে চায়। তার নির্দেশ মেনে ওয়াই-ফাই কানেক্ট করে সফটওয়্যার আপডেট করে নিন। এতে আপনার ফোন সতেজ ও সুস্থ হয়ে ওঠে।

এছাড়াও টু স্টেপ ভেরিফিকেশনের মাধ্যমে ফোনকে সুরক্ষিত রাখুন। অদ্ভুত নম্বর থেকে ফোন এলে তা ভুল করেও ধরবেন না। এর মাধ্যমেও আপনার প্রয়োজনীয় ডেটা হাতানোর চেষ্টা করা হয়। তাই অনলাইন লেনদেনের ক্ষেত্রে সতর্ক থাকুন।

রোবটের মাধ্যমে পণ্য ডেলিভারি শুরু করলো আমাজন
                                  

বিশ্বের অন্যতম শীর্ষ ই-কমার্স প্রতিষ্ঠান আমাজন রোবটের মাধ্যমে অনলাইনে অর্ডার করা পণ্য ডেলিভারি শুরু করেছে। জানা গেছে, ইতোমধ্যে জনপ্রিয় এ প্রতিষ্ঠানটি পরীক্ষামূলকভাবে ছয়টি রোবট নামিয়েছে যারা গ্রাহকের কাছে পণ্য পৌঁছে দিচ্ছে।

সম্প্রতি আমাজনের ভাইস প্রেসিডেন্ট সিয়ান স্কট প্রতিষ্ঠানটির ব্লগে রোবট দিয়ে পণ্য ডেলিভারির তথ্য নিশ্চিত করেন। এই ছয়টি রোবটের নাম রাখা হয়েছে ‘স্কাউট’। আপাতত শুধু যুক্তরাষ্ট্রের ওয়াশিংটন রাজ্যের স্নোহোমিশ কাউন্টিতে কাজ করবে ‘স্কাউট’। শুধু দিনের বেলায় কাজ করবে তারা। একজন মানুষের হাতে নিয়ন্ত্রিত হবে ‘স্কাউট’।

এদিকে, একটি রোবট গ্রাহককে পণ্য ডেলিভারি করছে এমন প্রমোশনাল ভিডিও প্রকাশ করেছে আমাজন। সেখানে দেখা গেছে, গ্রাহক রোবটের কাছে চলে আসলে ঢাকনা খুলে যায় রোবটটির। তবে ডেলিভারির সময় গ্রাহক সেখান উপস্থিত না থাকলে অথবা সঠিক গ্রাহক পণ্য নিতে না আসলে রোবটটি কী করবে, সে সম্পর্কেও এখনও কিছু জানা যায়নি।


   Page 1 of 13
     তথ্যপ্রযুক্তি
করোনায় আক্রান্ত কিনা জানিয়ে দেবে গুগল!
.............................................................................................
ক্ষমা চাইলো ফেসবুক
.............................................................................................
নেটদুনিয়ার নেতিবাচক দিক থেকে দূরে রাখতে গুগলের উদ্যোগ
.............................................................................................
ইন্টারনেটে ভুয়া খবরের রাজত্ব, শিকার ৮৬ শতাংশ মানুষ
.............................................................................................
২০৩৩ সালের মধ্যে মঙ্গলে যাচ্ছে নাসা?
.............................................................................................
নতুন বছরে যেসব ফোনে বন্ধ হচ্ছে হোয়াটস অ্যাপ
.............................................................................................
স্মার্টফোনে ইন্টারনেটের খরচ কমানোর উপায়
.............................................................................................
মহাকাশ কেন্দ্রে ব্যাকটেরিয়া, নাসার উদ্বেগ!
.............................................................................................
ফিল্মফেয়ারে সেরা রণবীর-আলিয়া
.............................................................................................
পরমাণু বোমার চেয়ে ১০ গুণ বেশি শক্তিশালী উল্কার ছবি প্রকাশ নাসার
.............................................................................................
নতুন অপারেটিং সিস্টেম আনছে হুয়াওয়ে
.............................................................................................
বিশ্বে ইন্টারনেট স্তা ভারতেসবচেয়ে স
.............................................................................................
সালমানের বিরুদ্ধে মন্ত্রীর যুদ্ধ ঘোষণা
.............................................................................................
ভুল করে পাঠানো মেসেজ ফেরত আনবেন যেভাবে
.............................................................................................
যেভাবে সুরক্ষিত রাখবেন মোবাইলের ব্যক্তিগত তথ্য
.............................................................................................
রোবটের মাধ্যমে পণ্য ডেলিভারি শুরু করলো আমাজন
.............................................................................................
কেমন হবে মঙ্গল গ্রহের বাড়ি?
.............................................................................................
মধ্যবিত্তের নাগালে আনতে দাম কমানো হচ্ছে আইফোনের
.............................................................................................
হার্লি ডেভিডসনের প্রথম ইলেকট্রিক বাইক লাইভওয়্যার
.............................................................................................
চাঁদের উল্টো পিঠে লাল মাটির সন্ধান
.............................................................................................
১৫০ কোটি আলোকবর্ষ দূর থেকে রেডিও সিগন্যালের সন্ধান
.............................................................................................
ফেসবুকে যে মেসেজ ফরোয়ার্ড করা বিপজ্জনক
.............................................................................................
মঙ্গলে ৫০.১ মাইল জুড়ে বরফ বিস্তৃত, জানালো ইএসএ
.............................................................................................
চীনের যোগাযোগ উপগ্রহের সফল উৎক্ষেপণ
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রের আকাশে রহস্যময় আলো, জল্পনা তুঙ্গে!
.............................................................................................
গুগল-ফেসবুকের উপর কর বসাচ্ছে ফ্রান্স
.............................................................................................
৬৮ লাখ গ্রাহকের ব্যক্তিগত ছবি ফাঁস, ফেসবুকের ঘোষণায় তোলপাড়
.............................................................................................
মার্কিন সেনেটে গুগলের বিরুদ্ধে শুনানি, সাফাইয়ে কী বললেন পিচাই?
.............................................................................................
ভারতের বিমানবন্দরে নিরাপত্তার দায়িত্ব সামলাবে রোবট কুকুর
.............................................................................................
অ্যাপলকে টপকিয়ে মাইক্রোসফট শীর্ষে
.............................................................................................
নিলামে চাঁদের কণা
.............................................................................................
মঙ্গলে বাস করতে চান স্পেসএক্স প্রধান!
.............................................................................................
বাজারে এলো বিশ্বের প্রথম স্যাটেলাইট অ্যান্ড্রয়েড স্মার্টফোন
.............................................................................................
স্মার্টফোন আসক্তিতে মস্তিষ্কের হতাশা ও উদ্বেগের সৃষ্টি!
.............................................................................................
এবার শুক্রে মহাকাশযান পাঠানোর প্রস্তুতি নিচ্ছে ভারত!
.............................................................................................
নিজের ছবি দিয়ে বানিয়ে ফেলুন হোয়াটসঅ্যাপ স্টিকার
.............................................................................................
মহাকাশেই জন্ম নেবে শিশু!
.............................................................................................
পৃথিবী ছিল বেগুনি রঙের!
.............................................................................................
নাসার পোস্ট করা যে ভিডিওতে মাতল নেটদুনিয়া!
.............................................................................................
১০ কোটিরও বেশি আবর্জনা রয়েছে মহাকাশে!
.............................................................................................
কম্পিউটারে যেভাবে শুরু হয় ভাইরাস আক্রমণ
.............................................................................................
ক্রটির কারণে রুশ মহাকাশযানের জরুরি অবতরণ
.............................................................................................
কীভাবে বুঝবেন আপনার ফেসবুক হ্যাক হয়েছে
.............................................................................................
বিদায় নিচ্ছে ৪ গ্রহের মাটিতে পা রাখা সেই `ভয়েজার-২`
.............................................................................................
এবার `ভয়েস কমান্ড` সুবিধা আসতে চলেছে মেসেঞ্জারে
.............................................................................................
যেসব কারণে স্মার্টফোন গরম হয়, জেনে নিন সমাধান
.............................................................................................
গ্রামীণফোন ছাড়তে চান বেশি গ্রাহক
.............................................................................................
ফোল্ডএবল ৫জি স্মার্টফোন আনবে হুয়াওয়ে
.............................................................................................
মার্কিন নির্বাচন নিয়ে কঠোর সিদ্ধান্ত ফেসবুকের
.............................................................................................
দেশে ইন্টারনেট গ্রাহক সংখ্যা ছাড়াল ৯ কোটি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD