ঢাকা,বৃহস্পতিবার,৬ কার্তিক ১৪২৮,২১,অক্টোবর,২০২১
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১০ জনের মৃত্যু   * কোনো বিভাগ দেবো না, কু- নাম দিয়ে : প্রধানমন্ত্রী   * কমছে পেঁয়াজের দাম   * বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা   * ব্যর্থতা ঢাকতে সাম্প্রদায়িকতার দানব জাগিয়ে তুলেছে সরকার: রিজভী   * পুরোনো রেকর্ড বাজিয়ে যাচ্ছেন বিএনপি নেতারা : কাদের   * দেশে অন্ধত্ব কমেছে ৩৫ শতাংশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী   * শিগগির ট্রেনের টিকিট সম্পূর্ণ অনলাইন করা হবে   * আটক ৩, বিমানবন্দরে ট্রেনে পাথর নিক্ষেপ   * রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১০ জনের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ চারজন ও নারী ছয়জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৮০১ জনে।বিভাগীয় পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৮টি বিভাগের মধ্যে পাঁচ বিভাগে ১০ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে তিনজন, চট্টগ্রামে চারজন এবং খুলনা, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে মারা গেছেন।আলোচ্য সময়ে বাকি তিন বিভাগ- রাজশাহী, সিলেট এবং রংপুরে করোনা আক্রান্ত কোন রোগীর মৃত্যু হয়নি।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।দেশে গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের ১৮ মার্চ প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) পর্যন্ত এ সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে সর্বমোট ২৭ হাজার ৮০১ জনে দাঁড়িয়েছে।দেশের আট বিভাগের মধ্যে ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ১২ হাজার ১২২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫ হাজার ৬৪৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ২ হাজার ৩৮ জন, খুলনা বিভাগে ৩ হাজার ৫৮৮ জন, বরিশাল বিভাগে ৯৪৪ জন, সিলেট বিভাগে ১ হাজার ২৬১ জন, রংপুর বিভাগে ১ হাজার ৩৬২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৮৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১০ জনের মৃত্যু
                                  

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে রাজধানী ঢাকাসহ সারাদেশে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ জনের মৃত্যু হয়েছে। তাদের মধ্যে পুরুষ চারজন ও নারী ছয়জন। এ নিয়ে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়িয়েছে ২৭ হাজার ৮০১ জনে।বিভাগীয় পরিসংখ্যান অনুসারে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৮টি বিভাগের মধ্যে পাঁচ বিভাগে ১০ জন মারা গেছেন। এদের মধ্যে ঢাকা বিভাগে তিনজন, চট্টগ্রামে চারজন এবং খুলনা, বরিশাল ও ময়মনসিংহ বিভাগে একজন করে মারা গেছেন।আলোচ্য সময়ে বাকি তিন বিভাগ- রাজশাহী, সিলেট এবং রংপুরে করোনা আক্রান্ত কোন রোগীর মৃত্যু হয়নি।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত করোনা পরিস্থিতি সংক্রান্ত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানা গেছে।দেশে গত বছর অর্থাৎ ২০২০ সালের ১৮ মার্চ প্রথম করোনা আক্রান্ত রোগীর মৃত্যু হয়। বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) পর্যন্ত এ সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে সর্বমোট ২৭ হাজার ৮০১ জনে দাঁড়িয়েছে।দেশের আট বিভাগের মধ্যে ঢাকা বিভাগে সর্বোচ্চ ১২ হাজার ১২২ জন, চট্টগ্রাম বিভাগে ৫ হাজার ৬৪৪ জন, রাজশাহী বিভাগে ২ হাজার ৩৮ জন, খুলনা বিভাগে ৩ হাজার ৫৮৮ জন, বরিশাল বিভাগে ৯৪৪ জন, সিলেট বিভাগে ১ হাজার ২৬১ জন, রংপুর বিভাগে ১ হাজার ৩৬২ জন এবং ময়মনসিংহ বিভাগে ৮৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে।

কোনো বিভাগ দেবো না, কু- নাম দিয়ে : প্রধানমন্ত্রী
                                  

 মেঘনা নামে কুমিল্লা এবং পদ্মা নামে ফরিদপুর বিভাগ করা হবে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কুমিল্লা নামে বিভাগের দাবি নাকচ করে তিনি বলেন, কু নাম দিয়ে আমি কোনো বিভাগ দেবো না।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সে কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের নবনির্মিত কার্যালয়ের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে এ নির্দেশনা দেন শেখ হাসিনা।নতুন দুটো বিভাগ করা হবে জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, বিভাগের ব্যাপারে আমি একটা সিদ্ধান্ত নিয়েছি- আমি দুটো বিভাগ বানাবো দুটো নদীর নামে, একটা পদ্মা, আরেকটা মেঘনা। এই দুই নামে দুটো বিভাগ করতে চাই।এ সময় কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহার দাবি জানিয়ে বলেন, আপা কুমিল্লার নামে। সারা কুমিল্লার মানুষ কুমিল্লা নামে চায়।জবাবে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই ‘কু’ নাম দেবো না আমি। আমি কুমিল্লা নামে দেবো না। কারণ তোমার এই কুমিল্লা নামের সঙ্গে মোশতাকের নাম জড়িত। সে জন্য দেবো না। না, আমি দেবো না তো বললাম। তোমরা যদি রাজি থাকো ওই কুমিল্লা নাম নিলেই মোশতাকের কথা মনে আসে।এ সময় বাহাউদ্দিন বাহার বলেন, আপা পৃথিবীর কোনো কুলাঙ্গারের ওপর দেশের পরিচয় হয় না আপা। বাংলাদেশের পরিচয় বঙ্গবন্ধুর ওপর। মোনায়েম খানের ওপর না। বঙ্গবন্ধুকেই চিনে বাংলাদেশ, সারাবিশ্ব। যখন বাংলাদেশ চিনতো বলতো শেখ মুজিবের দেশ।কুমিল্লা নামে অন্য জেলাগুলো আসতে চায় না জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী বলেন, এই নামে অন্য জেলাগুলো আসতে চায় না। আমরা চেষ্টা করেছি তো। নোয়াখালী আসবে না, ফেনী আসবে না, চাঁদপুর আসবে না, লক্ষীপুর আসবে না, ব্রাহ্মণবাড়িয়া আসবে না।তিনি বলেন, ব্রাহ্মণবাড়িয়া চায় ব্রাহ্মণবাড়িয়া নাম হোক, ফেনী চায় ফেনী নাম হোক, চাঁদপুর নাম তো আরও সুন্দর, চাঁদপুর চায় চাঁদপুর হোক।বাহাউদ্দিন বলেন, আপা আপনি দিলেই সবাই মানবে।তখন প্রধানমন্ত্রী বলেন, তুমি (বাহাউদ্দিন) সবার কাছ থেকে লেখায় আনো। তোমাকে দায়িত্ব দিলাম সবার কাছ থেকে মানায় নিয়ে আসো। যাও।রসিকতা করে শেখ হাসিনা বলেন, তাহলে তুমি থাকো, তোমার হবে না। যদি বিভাগ চাও আমি মেঘনা নামে করে দিতে পারি।প্রধানমন্ত্রী বলেন, আমি ফরিদপুর বিভাগ করবো পদ্মা নামে, ফরিদপুর নামও দিচ্ছি না। ফরিদপুর সেটা হবে পদ্মা আর কুমিল্লা হবে মেঘনা নামে। কারণ পদ্মা মেঘনা যমুনা তোমার আমার ঠিকানা। এই স্লোগান দিয়ে বাংলাদেশ মুক্তিযুদ্ধে বিজয় অর্জন করেছে।তিনি বলেন, কুমিল্লার আসল নাম ছিল ত্রিপুরা। এটা ভুলে যেও না এখনো পুরনো কাগজে ত্রিপুরা লেখা আছে। পুরনো দলিলের ত্রিপুরা লেখা আছে।বিভাগের নামকরণ বিষয়ে শেখ হাসিনা বলেন, ঠিক আছে আমার প্রস্তাব রাখলাম যদি পছন্দ হয় ভালো, না হলে হবে না। আমি কি করবো। আমাদের দুইটা বড় নদী, নদীর নামটা আমি সম্মান দিয়ে রাখতে চাই। যে স্লোগান দিয়ে বাংলাদেশ স্বাধীন করেছি সেই স্লোগান দিচ্ছি।কুমিল্লা প্রান্ত থেকে ভিডিও কনফারেন্সে গণভবনের সঙ্গে সংযুক্ত ছিলেন স্থানীয় সরকার মন্ত্রী তাজুল ইসলাম, আওয়ামী লীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আবু সাঈদ আল মাহমুদ স্বপন, কুমিল্লা সদর আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) ও কুমিল্লা মহানগর আওয়ামী লীগের সভাপতি আ ক ম বাহাউদ্দিন বাহারসহ স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মীরা।

কমছে পেঁয়াজের দাম
                                  


হঠাৎ করে বাড়তে থাকা পেঁয়াজের দাম এবার কমতে শুরু করেছে। কয়েকদিন আগেও খুচরা বাজারে প্রতি কেজি পেঁয়াজ ৮০ টাকার বেশি বিক্রি হলেও এখন তা মিলছে মানভেদে ৫৫ থেকে ৬০ টাকায়।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) রাজধানীর কয়েকটি বাজার ঘুরে এমন চিত্র দেখা গেছে।ব্যবসায়ীরা বলছেন, ভারত থেকে প্রচুর পেঁয়াজ আসায় বাজারে দাম কমেছে। সরবরাহ স্বাভাবিক থাকলে আগামীতে আর পেঁয়াজের বাজার অস্থিতিশীল হওয়ার সম্ভাবনা নেই।খুচরা বাজার ঘুরে দেখা গেছে, ভারত থেকে আমদানি করা পেঁয়াজ প্রতি কেজি বিক্রি হচ্ছে ৫৫ থেকে ৬০ টাকার মধ্যে। এতে দেশি পেঁয়াজের দামও কমে ৬০ টাকাতে মিলছে। তবে কিছু দোকানে বাছাই করা ভালো মানের দেশি পেঁয়াজ বিক্রি হচ্ছে ৬৫-৭০ টাকা কেজিতে।এদিকে রাজধানীর সবচেয়ে বড় পাইকারি বাজার শ্যামবাজারেও প্রতি কেজি পেঁয়াজের দাম প্রায় ১০ টাকা করে কমেছে। সেখানে বিক্রমপুর হাইসের স্বত্বাধিকারী খোকন হোসেন জাগো নিউজকে বলেন, তিনি প্রতি কেজি বাছাইকরা দেশি পেঁয়াজ ৫২ থেকে ৫৪ টাকা দরে বিক্রি করছেন। যা কয়েকদিন আগেও ৬২ থেকে ৬৪ টাকা উঠেছিল।তিনি আরও জানান, সাধারণ মানের দেশি পেঁয়াজের দাম ৪৫ থেকে ৪৭ টাকার মধ্যে রয়েছে।কারণ হিসেবে তিনি বলেন, ভারত থেকে প্রচুর পেঁয়াজ এসেছে পূজার ছুটি শেষ হওয়ার পরে। সেগুলো এখন পাইকারিতে ৪২-৪৩ টাকা দরে মিলছে। এ কারণে সব ধরনের পেঁয়াজের দাম কমে গেছে। এভাবে চলতে থাকলে আবার আগের দামে ফিরবে পেঁয়াজ।পেঁয়াজের দামের বিষয়ে কারওয়ান বাজারের পেঁয়াজ ব্যবসায়ী মো. হুমায়ূন বলেন, সরবরাহ কম থাকায় এ মাসের শুরু থেকে পেঁয়াজের দাম খুব বেড়েছিল। এখন পেঁয়াজের সরবরাহ ঠিক হয়ে গেছে। বাজারে প্রচুর ভালো পেঁয়াজ আসছে। এ কারণে দামও কমেছে। দেশি পেঁয়াজের দাম ৫০ টাকার মধ্যে নামলে সেটা স্বাভাবকি দাম বলা যায়। কিছুদিনের মধ্যে এ দামে আসবে।খিলগাঁও বাজারের ব্যবসায়ী ইয়াকুব বলেন, হুট করে পেঁয়াজের দাম বেড়ে যাওয়ার কারণে অনেকে পেঁয়াজ কিনে মজুত করেছে। এখন পেঁয়াজ আসায় সেগুলো আবার বাজারে ছাড়বে। দাম কমবে দ্রুত।তিনি আরও বলেন, বাজারে প্রতিযোগিতা অনেক। ক্রেতা যেখানে কম দাম পাবে সেখান থেকে কিনবে। টিসিবিও কম দামে পেঁয়াজ দিচ্ছে। এখন দাম কমছে, তাই আর চাহিদা নেই।

বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা
                                  

সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে উসকানিমূলক, মিথ্যা ও গুজব ছড়ায় এমন ভিডিও ছড়ানোর অভিযোগে রাজধানীর বেগম বদরুন্নেসা সরকারি মহিলা কলেজের সহকারী অধ্যাপক রুমা সরকারের বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা হয়েছে। র‌্যাব বাদী হয়ে ডিএমপির রমনা থানায় এই মামলা করে। মামলা নম্বর-৩৪।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দুপুরে র‌্যাবের লিগ্যাল অ্যান্ড মিডিয়া উইংয়ের সহকারী পরিচালক সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) আ ন ম ইমরান খান জাগো নিউজকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।তিনি বলেন, রাজধানী পল্লবীতে শাহীন উদ্দিন হত্যাকাণ্ডের নৃশংস ভিডিও সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে নোয়াখালীর যতন সাহা হত্যাকাণ্ড বলে অপপ্রচারের অভিযোগে রুমা সরকারকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য গতকাল বুধবার র‌্যাব সদরদপ্তরে নিয়ে আসা হয়। এরপর তাকে জিজ্ঞাসাবাদ শেষে আজ বৃহস্পতিবার রমনা থানায় র‌্যাব বাদী হয়ে তার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা করে। এরপর তাকে রমনা থানায় হস্তান্তর করা হয়।এর আগে, গতকাল বুধবার সকালে রাজধানীর বেইলি রোডের নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করে র‌্যাব।ওইদিন দুপুরে র‌্যাবের লিগ্যাল আ্যন্ড মিডিয়া উইংয়ের পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন বলেন, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুক ব্যবহার করে একটি ভিডিও ভাইরাল করেন রুমা সরকার। যে ভিডিও অনেক আগের এবং সম্প্রতি কোনো ঘটনার সঙ্গে মিল নেই।এছাড়া তিনি ফেসবুক লাইভে এসে উসকানিমূলক তথ্য ছড়িয়েছেন। এতে সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি বিনষ্ট হতে পারে বলে আশঙ্কা ছিল।

দেশে অন্ধত্ব কমেছে ৩৫ শতাংশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
                                  

দেশে আগের তুলনায় ৩৫ শতাংশ অন্ধত্ব ও চোখের ছানিজনিত সমস্যা ১৮ শতাংশ কমেছে বলে জানিয়েছেন স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণমন্ত্রী জাহিদ মালেক।তিনি বলেছেন, দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলার ৯০টি কমিউনিটি ভিশন সেন্টারের মাধ্যমে বিভিন্ন ধরনের চক্ষুসেবা দেওয়া হচ্ছে। বিনামূল্যে দেওয়া এ চিকিৎসাসেবার মাধ্যমে অন্ধত্ব ও ছানিজনিত সমস্যাসহ চোখের বিভিন্ন ধরনের রোগ থেকে মানুষ মুক্তি পাচ্ছে।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) বিশ্ব দৃষ্টি দিবস উপলক্ষে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের ন্যাশনাল আই কেয়ারের উদ্যোগে আয়োজিত অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এ কথা বলেন।স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে স্বাস্থ্যসেবায় অনেক উন্নতি হয়েছে। কমিউনিটি ক্লিনিকের মাধ্যমে মানুষের দোরগোড়ায় সেবা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। মহামারি করোনা নিয়ন্ত্রণ ও টিকাদানে সফলতা বিশ্ববাসীর কাছে প্রশংসিত হয়েছে।তিনি বলেন, চিকিৎসার অপ্রতুলতাসহ বিভিন্ন কারণে আগে দেশে অসংখ্য মানুষ অন্ধ হতো। বর্তমানে দেশের বিভিন্ন জেলা ও উপজেলায় ৯০টি আইভিশন সেন্টারের মাধ্যমে চক্ষুসেবার ফলে অন্ধত্ব ও ছানিতজনিত সমস্যা আগের তুলনায় বহুলাংশে হ্রাস পেয়েছে।জাহিদ মালেক আরও বলেন, অদূর ভবিষ্যতে সারাদেশে আইভিশন সেন্টার স্থাপনের মাধ্যমে আরও বেশি মানুষের কাছে চক্ষুসেবা সহজলভ্য করা হবে। এজন্য প্রয়োজনে বাজেটও বাড়ানো হবে।জাতীয় চক্ষু বিজ্ঞান ইনস্টিটিউটের পরিচালক ও ন্যাশনাল আই কেয়ারের লাইন ডিরেক্টর অধ্যাপক ডা. গোলাম মোস্তফার সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ মন্ত্রণালয়ের (স্বাস্থ্য সেবা বিভাগের) সিনিয়র সচিব লোকমান হোসেন মিয়া, বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য শারফুদ্দিন আহমেদ, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের মহাপরিচালক অধ্যাপক ডা. আবুল বাশার মোহাম্মদ খুরশীদ আলম, স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সাবেক মহাপরিচালক ও চক্ষু বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. দীন মোহাম্মদ নুরুল হক প্রমুখ।

শিগগির ট্রেনের টিকিট সম্পূর্ণ অনলাইন করা হবে
                                  


ট্রেনের টিকিটের কালোবাজারি বন্ধে সম্পূর্ণ টিকিট অনলাইনে ব্যবস্থা করা হবে বলে জানিয়েছেন রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন।বৃহস্পতিবার (২১ অক্টোবর) দুপুর ২টায় জামালপুর রেল স্টেশনে যাত্রী সুবিধা বাড়াতে প্ল্যাটফর্ম উঁচুকরণ, স্টেশন ভবন আধুনিকায়ন, এক্সেস কন্ট্রোল ও প্ল্যাটফর্ম শেড নির্মাণ কাজের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে তিনি এ কথা বলেন।ময়মনসিংহ বিভাগে রেল যোগাযোগের উন্নয়ন ও বিভিন্ন স্টেশনের অবকাঠামো উন্নয়ন কাজের উদ্বোধন করতে বৃহস্পতিবার সকাল ৮টায় বিশেষ ট্রেনে সফর করছেন রেলমন্ত্রী। রাতে তিনি ঢাকা ফিরবেন।রেলমন্ত্রী নূরুল ইসলাম সুজন বলেন, রেলের টিকিট নিয়ে কালোবাজারির অভিযোগ রয়েছে। এর মধ্যে অনেকেই টিকিট ছাড়া রেলে ওঠেন। ট্রেনের ছাদে যাতায়াতের চেষ্টা করেন। এসব অনিয়ম বন্ধ করতে রেলওয়ে বদ্ধপরিকর।তিনি বলেন, ট্রেনে যাতে কেউ টিকিট ছাড়া যাতায়াত করতে না পারেন, সেজন্য সম্পূর্ণ টিকিট ব্যবস্থা অনলাইনভিত্তিক করা হবে। যাতে যাত্রীরা ঘরে বসেই মোবাইলে টিকিট কাটতে পারেন। তখন কালোবাজারি বা দালালদের দৌরাত্ম থাকবে না বলে জানান তিনি।

রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা
                                  

চীন থেকে টিকার আরও একটি বড় চালান দেশে আসছে রাতে। বুধবার (২০ অক্টোবর) দিবাগত গভীর রাত অর্থাৎ ২১ অক্টোবরের প্রথম প্রহরে চীনের সিনোফার্মের ৫৫ লাখ ডোজ টিকা হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে এসে পৌঁছানোর কথা রয়েছে।এর আগে গত সোমবার রাত ১১টায় চীনের সিনোফার্মের ১০ লাখ ডোজ এবং একই দিন দিবাগত রাত ১২টায় নেদারল্যান্ড থেকে অ্যাস্ট্রাজেনেকার আরও ১০ লাখ ডোজসহ ২০ লাখ ডোজ টিকার চালান আসে।হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরে কর্মরত স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের সহকারী পরিচালক ডা. শাহরিয়ার সাজ্জাদ আজ রাতে চীনের সিনোফার্মের ৫৫ লাখ টিকার চালান আসার বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।চলতি বছরের ২৭ জানুয়ারি দেশে করোনাভাইরাস প্রতিরোধে টিকাদান কর্মসূচি শুরু হয়। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালে ভারতের সিরাম ইনস্টিটিউট উৎপাদিত অক্সফোর্ড-অ্যাস্ট্রাজেনেকার টিকার মাধ্যমে কর্মসূচির উদ্বোধন করেন।এ পর্যন্ত রাজধানীসহ সারাদেশে করোনার টিকা নিবন্ধনকারী সংখ্যা সাড়ে পাঁচ কোটি ছাড়িয়েছে। তাদের মধ্যে জাতীয় পরিচয়পত্রের মাধ্যমে পাঁচ কোটি ৪২ লাখ ৫৮ হাজার ২১৫ জন ও পাসপোর্ট এর মাধ্যমে সাত লাখ ৭৭ হাজার ৪৬১ জন নিবন্ধন করেন।সর্বশেষ গত ২৪ ঘন্টায় সর্বমোট নতুন আরো ৫লাখ ৬২হাজার ২৭৪জন টিকা গ্রহণ করেন। এ নিয়ে দেশে টিকা গ্রহণকারীর সংখ্যা বৃদ্ধি পেয়ে ৫ কোটি ৮৮লাখ ১হাজার ৫৫জনে দাঁড়িয়েছে।তাদের মধ্যে প্রথম ডোজের ৩কোটি ৯১লাখ ৬৮ হাজার ৯৪৮জন ও দ্বিতীয় ডোজের টিকা গ্রহণ করেছেন ১কোটি ৯৬লাখ ৩২ হাজার ৫৯১০৭জন।সর্বশেষ ২৪ ঘণ্টায় টিকা নিয়েছেন পাঁচ লাখ ৬২ হাজার ২৭৪ জন। এ নিয়ে দেশে টিকাগ্রহীতার সংখ্যা দাঁড়ালো পাঁচ কোটি ৮৮ লাখ এক হাজার ৫৫ জনে। তাদের মধ্যে প্রথম ডোজের টিকা নিয়েছেন তিন কোটি ৯১ লাখ ৬৮ হাজার ৯৪৮ জন ও দ্বিতীয় ডোজের টিকা নিয়েছেন এক কোটি ৯৬ লাখ ৩২ হাজার ১০৭ জন।

জিআই সনদ পাচ্ছে ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ি
                                  

ক্ষীরশাপাতি আমের পর এবার রসালো ফজলি আম এবং কালো ডোরা কাটা বাগদা চিংড়ি খুব শীঘ্রই জিওগ্রাফিক্যাল ইনডিকেটর বা জিআই সনদ পেতে যাচ্ছে।ফজলি আমের জিআই সনদের আবেদন করেছিল ফল উন্নয়ন গবেষণা কেন্দ্র।আর বাগদা চিংড়ির জন্য আবেদন করে মৎস্য অধিদপ্তর।  সরকারের পেটেন্টস, ডিজাইন এবং ট্রেডমার্ক বিভাগের রেজিস্টার মো. আবদুস সাত্তার সংবাদ মাধ্যমে জানিয়েছেন, ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ির জিআই পণ্য হিসেবে স্বীকৃতি দিতে গেজেট প্রকাশ করা হয়ে গেছে। ১৫ দিনের মধ্যে সনদ দেওয়ার কাজ শেষ হবে।  জিআই সনদ দেওয়ার ক্ষেত্রে বেশ কিছু দিক লক্ষ্য করা হয়। এর মধ্যে রয়েছে, আবহাওয়া, মাটি, পানি ও ভৌগলিক গঠনের ওপরে যেকোনো কৃষি পণ্যের বৈশিষ্ট্য, ঘ্রাণ ও স্বাদ নির্ভর করে এবং নির্দিষ্ট অঞ্চলেই সেটা হবে।  যেমন এশিয়ার বেশ কিছু দেশে `ব্ল্যাক টাইগার শ্রিম্প` বা বাগদা চিংড়ি পাওয়া যায়। কিন্তু আমাদের এখানে যেটা হয় সেটার বৈশিষ্ট্য অন্য কোনটার সাথে মিলবে না। অন্য কোথাও চাষ হলেও সেটার স্বাদ ও ঘ্রাণ মিলবে না।নিয়ম অনুযায়ী স্বীকৃতির জন্য আবেদন আসার পরে এই দুটি কৃষি পণ্যের ভৌগলিক নির্দেশক যাচাই করা হয়েছে, দুটি জার্নাল প্রকাশ করা হয়েছে। এই পণ্যের নির্দেশক নিয়ে এখনো কেউ আপত্তি করেনি। জার্নাল প্রকাশের দুই মাসের মধ্যে এটি নিজেদের বলে কেউ আপত্তি না করলে সনদ দেওয়া হবে বলে জানান তিনি।জিআই সনদ পেলে সেই পণ্য দেশটির ব্র্যান্ড হয়ে যায়। পণ্যটি উৎপাদন করার অধিকার এবং আইনি সুরক্ষা পায়। অন্য দেশ আর সেগুলোকে নিজেদের বলে দাবি করতে পারে না। আর এতে করে বিশ্ববাজারে এর চাহিদা ও গ্রহণযোগ্যতা বাড়ে। ফলে দামও ভালো পাওয়া যায়।  বাংলাদেশের মোট নয়টি পণ্য এ পর্যন্ত জিআই সনদ পেয়েছে। যার মধ্যে রয়েছে ইলিশ মাছ, চাঁপাইনবাবগঞ্জের ক্ষীরশাপাতি আম, দিনাজপুরের কাটারিভোগ ও বাংলাদেশি কালোজিরা, জামদানি, ঢাকাই মসলিন, রাজশাহীর সিল্ক, রংপুরের শতরঞ্জি এবং নেত্রকোনার বিজয়পুরের সাদা মাটি।

দেড় বছর পর সশরীরে ক্লাসে চবি শিক্ষার্থীরা
                                  

 প্রায় দেড় বছর পর সশরীরে ক্লাস শুরু হলো চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ে (চবি)। গতকাল মঙ্গলবার পূর্ব ঘোষণা অনুযায়ী সশরীরে ক্লাস নিতে শুরু করে বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন বিভাগ। চবি শিক্ষার্থী আবু হানিফ তামিম বলেন, অনেকদিন পর যখন শাটলে চড়ে ক্লাসে আসছিলাম, পুরনো অনুভূতি নতুন করে খুঁজে পাচ্ছিলাম। স্যারদের সঙ্গে দীর্ঘদিন পর দেখা হলো। সব মিলিয়ে অনেক আনন্দিত। শিক্ষার্থী খোকন রায় বলেন, ‘বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রথম দিনের ক্লাসের অনুভূতি খুঁজে পাচ্ছি এই ১৮ মাস পর ক্লাসে এসে। এতদিনের মানসিক চাপ অনেকটা প্রশমিত হয়েছে আজকে সশরীরে ক্লাসে আসতে পেরে। চবির বাংলা বিভাগের সহযোগী অধ্যাপক ড. শেখ সাদী বলেন, আমরা আশা করছি শিক্ষার্থীদের করোনাকালীন ক্ষতি পুষিয়ে দিতে সক্ষম হবো। আমি ব্যক্তিগতভাবে মনে করি, এটা সব শিক্ষকেরই দায়িত্ব। গত সোমবার আবাসিক শিক্ষার্থীদের অন্তত এক ডোজ টিকা গ্রহণ নিশ্চিত সাপেক্ষে খুলে দেওয়া হয় বিশ্ববিদ্যালয়ের হলগুলো। হলে শিক্ষার্থীদের ফুল, মাস্ক, কলম, হ্যান্ড স্যানিটাইজার দিয়ে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেয় কর্তৃপক্ষ।


বাংলাদেশে ‘সাম্প্রদায়িক হামলা’র নিরপেক্ষ তদন্ত চায় জাতিসংঘ
                                  

 কুমিল্লার ঘটনাকে কেন্দ্র করে সারাদেশে দেশের বিভিন্ন স্থানে পূজামণ্ডপ, মন্দির ও হিন্দু জনপদে ‘সাম্প্রদায়িক হামলা’র নিরপেক্ষ তদন্তের ব্যবস্থা নেওয়ার আহ্বান জানিয়েছে জাতিসংঘ। গত সোমবার এক বিবৃতিতে জাতিসংঘের আবাসিক প্রতিনিধি মিয়া সেপ্পো বলেছেন, বাংলাদেশে হিন্দুদের ওপর সাম্প্রতিক হামলাগুলো সামাজিক মাধ্যমে বিদ্বেষমূলক বক্তব্য থেকে উদ্ভূত, যা সংবিধানের মূল্যবোধের পরিপন্থী এবং বন্ধ করা প্রয়োজন। আমরা সরকারের প্রতি সংখ্যালঘুদের সুরক্ষা নিশ্চিত করে নিরপেক্ষ তদন্তের আহ্বান জানাচ্ছি। দুর্গাপূজার সময় এসব হামলার মধ্যে টুইট বার্তায় মিয়া সেপ্পো অন্তর্ভূক্তিমূলক ও সহনশীল বাংলাদেশকে শক্তিশালী করতে দহাতে হাত রেখে এক হওয়ার জন্য সবার প্রতি আহ্বান জানান। এদিকে এসব হামলার ঘটনায় এখন পর্যন্ত সারাদেশে ৭১টি মামলা দায়ের হয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ সদর দপ্তর। এ ছাড়াও ঘটনাগুলোতে জড়িত সন্দেহে ৪৫০ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। সব অপরাধীকে গ্রেপ্তারে পুলিশি অভিযান অব্যাহত রয়েছে উল্লেখ এই সংখ্যা বাড়তে পারে বলেও জানানো হয়েছে।


গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন
                                  


দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় চলতি বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। চলতি বছরের গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়। এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।দেশে করোনাভাইরাসে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও ৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন। এ নিয়ে ভাইরাসটি দেশের ২৭ হাজার ৭৮৫ জনের প্রাণ কেড়ে নিল।মঙ্গলবার বিকালে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে শনাক্ত হয়েছেন ৪৬৯ জন। এখন পর্যন্ত মোট করোনা শনাক্ত হয়েছেন ১৫ লাখ ৬৬ হাজার ২৯৬ জন।গত ২৪ ঘণ্টায় ২১ হাজার ৩০৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়। নমুনা পরীক্ষার তুলনায় শনাক্তের হার ২ দশমিক ২০ শতাংশ।গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়েছেন ৬৬৭ জন। এ পর্যন্ত মোট সুস্থ হয়েছেন ১৫ লাখ ২৯ হাজার ৬৮ জন। দেশে করোনাভাইরাসের প্রথম সংক্রমণ ধরা পড়েছিল গত বছরের ৮ মার্চ। প্রথম রোগী শনাক্তের ১০ দিন পর গত বছরের ১৮ মার্চ দেশে প্রথম মৃত্যুর তথ্য নিশ্চিত করে স্বাস্থ্য অধিদপ্তর। সেই বছর সর্বোচ্চ মৃত্যু হয়েছিল ৬৪ জনের। ডেল্টা ভ্যারিয়েন্ট ছড়িয়ে পড়ায় চলতি বছর জুন থেকে রোগীর সংখ্যা হু-হু করে বাড়তে থাকে। ২৮ জুলাই একদিনে সর্বোচ্চ ১৬ হাজার ২৩০ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল।
চলতি বছরের গত ৭ জুলাই প্রথমবারের মতো দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০০ ছাড়িয়ে যায়। এর মধ্যে ৫ ও ১০ আগস্ট ২৬৪ জন করে মৃত্যু হয়, যা মহামারির মধ্যে একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। বেশকিছু দিন ২ শতাধিক মৃত্যু হয়। এরপর গত ১৩ আগস্ট মৃত্যুর সংখ্যা ২০০ এর নিচে নামা শুরু করে। দীর্ঘদিন শতাধিক থাকার পর গত ২৮ আগস্ট মৃত্যু ১০০ এর নিচে নেমে আসে।

জাতিসংঘ বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ‘শেখ রাসেল দিবস’- ২০২১ উদযাপন
                                  

 জাতিসংঘে বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে যথাযোগ্য মর্যাদায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান কনিষ্ঠ পুত্র শহীদ শেখ রাসেলের জন্মদিন স্মরণে ‘শেখ রাসেল দিবস’-২০২১ উদযাপন করা হয়েছে।কভিড-১৯ এর প্রেক্ষাপটে স্থানীয় র্নিদেশনা অনুযায়ী সামাজিক দূরত্ব মেনে স্থায়ী মিশনের বঙ্গবন্ধু মিলনায়তনে গতকাল আয়োজিত অনুষ্ঠানে মিশনের সকল স্তরের কর্মকর্তা-কর্মচারিগণ অংশগ্রহণ করেন।স্থায়ী মিশনের এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে আজ জানানো হয় অনুষ্ঠানের শুরুতেই শহীদ শেখ রাসেলের প্রতিকৃতিতে পূষ্পস্তবক অর্পণ করা হয়। অত:পর শেখ রাসেলের বিদেহী আত্মার মাগফিরাত কামনা করে দোয়া ও মোনাজাত করা হয়। দিবসটি উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রী প্রদত্ত বাণী পাঠ করা হয়। এর পর শেখ রাসেলের জীবন বিষয়ক একটি প্রামাণ্য চিত্র প্রর্দশন করা হয়।অনুষ্ঠানে স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন জাতিসংঘে নিযুক্ত বাংলাদেশের স্থায়ী প্রতিনিধি ও রাষ্ট্রদূত রাবাব ফাতিমা। তিনি শহীদ শেখ রাসেল এর জন্ম দিবসকে ‘ক’ শ্রেণী ভূক্ত জাতীয় দিবস হিসেবে উদযাপনের সিদ্ধান্তকে অত্যন্ত সময়োপযোগী ও প্রশংসনীয় উদ্যোগ হিসেবে উল্লেখ করেন।তিনি বলেন, এর মাধ্যমে দেশের শিশু-কিশোররা শেখ রাসেল সম্পর্কে আরও জানতে পারবে যা তাদেরকে মানবতাবাদী ও অধিকারবোধ সম্পন্ন ভবিষ্যত নাগরিকে পরিণত করবে। শহীদ শেখ রাসেলকে নিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা রচিত বই ‘আমাদের ছোট রাসেল সোনা’ পড়ার জন্য প্রবাসে বেড়ে ওঠা শিশু-কিশোরদের প্রতি আহবান জানান রাষ্ট্রদূত ফাতিমা।১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের কালরাতে সপরিবারে জাতির পিতার নির্মম হত্যাকান্ডের কথা তুলে ধরে রাষ্ট্রদূত ফাতিমা বলেন ‘ঘাতকরা নিষ্পাপ ও কোমলমতি শিশু রাসেলকেও রেহাই দেয়নি।’ জাতিসংঘ সাধারণ পরিষদের ৭৬তম অধিবেশনে প্রদত্ত ভাষণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ১৫ আগস্টের পালিয়ে থাকা খুনীদের বিচারের আওতায় আনতে বিশ্বসম্প্রদায়ের প্রতি যে আহবান জানিয়েছেন তা তুলে ধরে স্থায়ী প্রতিনিধি বলেন, বিদেশে পালিয়ে থাকা খুনীদের দেশে ফিরিয়ে নিয়ে বিচারের আওতায় আনতে সকলকে একযোগে কাজ করতে হবে।রাষ্ট্রদূতের স্বাগত বক্তব্যের পর মুক্ত আলোচনা পর্বে মিশনের কর্মকর্তা-কর্মচারিরা অংশগ্রহণ করেন। তাঁরা আশা প্রকাশ করেন শেখ রাসেল দিবস উদযাপনের মাধ্যমে শেখ রাসেলের স্মৃতি আজীবন সকলের মাঝে বেঁচে থাকবে যা শিশু-কিশোরদের নতুনভাবে অনুপ্রাণিত করবে।এছাড়া কানডার অটোয়ায় বাংলাদেশ দূতাবাস এবং মেক্সিকোয় বাংলাদেশ দূতাবাসেও যথাযোগ্য মর্যাদায় শেখ রাসেল দিবস উদযাপন করা হয়।

বৃষ্টি থাকতে পারে আরও দুদিন, ৩ নম্বর সংকেত বহাল
                                  

সকাল থেকেই গুঁড়ি গুঁড়ি বৃষ্টি রাজধানীতে মৌসুমি বায়ুর সক্রিয়তায় সারাদেশে বৃষ্টির প্রবণতা আরও দুদিন থাকতে পারে বলে জানিয়েছে আবহাওয়া বিভাগ। একই সঙ্গে সমুদ্রবন্দরগুলোতে ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখা হয়েছে। সারাদেশেই বৃষ্টি হচ্ছে, তবে দক্ষিণাঞ্চলে বৃষ্টির প্রবণতা বেশি। সোমবার (১৮ অক্টোবর) সকাল ৬টা থেকে মঙ্গলবার (১৯ অক্টোবর) সকাল ৬টা পর্যন্ত গত ২৪ ঘণ্টায় সবচেয়ে বেশি বৃষ্টি হয়েছে সাতক্ষীরায়, ৯১ মিলিমিটার। এ সময়ে ঢাকায় বৃষ্টি হয়েছে ২৭ মিলিমিটার। মঙ্গলবার রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের বেশিরভাগ জায়গায় বৃষ্টি থাকবে বলে জানিয়েছেন। গত রাতে ঢাকায় থেমে থেমে বৃষ্টি হয়েছে। মঙ্গলবার সকালে ঢাকার আকাশে মেঘের সঙ্গে রোদও ছিল। তবে বেলা সোয়া ১০টার মধ্যে আকাশ মেঘে মেঘে ছেয়ে যায়। এরপরই শুরু হয় বৃষ্টি। থেমে থেমে চলছিল বৃষ্টি।আবহাওয়াবিদ এ কে এম রুহুল কুদ্দুছ বলেন, তেলেঙ্গানা ও তৎসংলগ্ন এলাকায় বিরাজমান লঘুচাপটি বর্তমানে মধ্যপ্রদেশ ও তৎসংলগ্ন এলাকায় অবস্থান করছে। দক্ষিণ-পশ্চিম মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের উত্তরাঞ্চল থেকে বিদায় নিয়েছে। মৌসুমি বায়ু বাংলাদেশের অন্যত্র সক্রিয় আছে এবং উত্তর বঙ্গোপসাগরে তা মাঝারি অবস্থায় রয়েছে।আগামী দুদিন পর বৃষ্টির প্রবণতা কমতে পারে বলেও জানান এ আবহাওয়াবিদ। মঙ্গলবার সকাল ৯টা থেকে আগামী ২৪ ঘণ্টার পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে, রংপুর, রাজশাহী, ঢাকা, ময়মনসিংহ, খুলনা, বরিশাল ও সিলেট বিভাগের অধিকাংশ জায়গায় এবং চট্টগ্রাম বিভাগের অনেক জায়গায় অস্থায়ীভাবে দমকা হাওয়াসহ হালকা থেকে মাঝারি ধরনের বৃষ্টি বা বজ্রসহ বৃষ্টি হতে পারে। সেইসঙ্গে দেশের কোথাও কোথাও মাঝারি ধরনের ভারী থেকে ভারী বর্ষণ হতে পারে। এ সময়ে সারাদেশে দিন এবং রাতের তাপমাত্রা প্রায় অপরিবর্তিত থাকতে পারে বলেও পূর্বাভাসে জানানো হয়েছে। একই সঙ্গে উত্তর বঙ্গোপসাগর ও বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকায় বায়ুচাপ পার্থক্যের আধিক্য বিরাজ করছে। তাই এর প্রভাবে বাংলাদেশের উপকূলীয় এলাকা, উত্তর বঙ্গোপসাগর এবং সমুদ্রবন্দরগুলোর ওপর দিয়ে বয়ে যেতে পারে। এজন্য চট্টগ্রাম, কক্সবাজার, মোংলা ও পায়রা সমুদ্রবন্দরকে জারি করা ৩ নম্বর স্থানীয় সতর্ক সংকেত বহাল রাখতে বলা রয়েছে বলেও জানিয়েছে আবহাওয়া অধিদপ্তর। সোমবার দেশের সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ৩৪ দশমিক ১ ছিল কুতুবদিয়ায়। ঢাকায় সর্বোচ্চ তাপমাত্রা ছিল ৩১ দশমিক ১ ডিগ্রি সেলসিয়াস।

চবির হল খুললো দেড় বছর পর, উৎসবের আমেজ শিক্ষার্থীদের
                                  

 দেড় বছর পর আনুষ্ঠানিকভাবে খুলে দেওয়া হয়েছে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয়ের (চবি) আবাসিক হলগুলো। গতকাল সোমবার সকাল ১০টায় শহীদ আবদুর রহ হলে আনুষ্ঠানিকভাবে শিক্ষার্থীদের বরণ করে নেন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. শিরীণ আখতার। পরে এ এফ রহমান হল, আলাওল হল, সোহরাওয়ার্দী হল, প্রীতিলতাসহ বাকি হলগুলোতে শিক্ষার্থীদের ফুল, মাস্ক, হ্যান্ড স্যানিটাইজার, চকলেট দিয়ে বরণ করে নেওয়া হয়। এসময় উপস্থিত ছিলেন-বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য অধ্যাপক বেনু কুমার দে, রেজিস্ট্রার (ভারপ্রাপ্ত) অধ্যাপক এস এম মনিরুল হাসানসহ সংশ্লিষ্ট হলের প্রভোস্টরা। এ সময় উপাচার্য শিক্ষার্থীদের উদ্দেশ্যে বলেন, দীর্ঘদিন পর হল খুলছে। তোমরা বিশ্ববিদ্যালয়কে মুখরিত রাখবে, এটাই আমাদের প্রত্যাশা। আবাসিক শিক্ষার্থী আফসানা মিমি বলেন, দীর্ঘদিন পর হল খুলেছে, সবাই অনেক আনন্দিত। কক্ষ পরিষ্কারে ব্যস্ত আছে সবাই। অনেকে আজই উঠে গেছে হলে। শিক্ষকদের সার্বিক ব্যবস্থাপনা ভালো ছিল। হলের সংস্কার কাজও হয়েছে মনে হচ্ছে।

ই-কমার্সে শৃঙ্খলা ফেরাতে একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন দেবে কমিটি
                                  

 ই-কমার্সে শৃঙ্খলা ফেরাতে আগামী এক মাসের মধ্যে সুপারিশসহ প্রতিবেদন দেবে ই-কমার্স ব্যবসায় প্রতারিত ভোক্তা অধিকার সুরক্ষার বিষয়ে গঠিত কমিটি। গতকাল সোমবার দুপুরে সচিবালয়ে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানগুলো থেকে প্রতারিত গ্রাহকদের অধিকার সুরক্ষার বিষয়ে করণীয় নির্ধারণে বৈঠক হয়। বৈঠক শেষে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ের অতিরিক্ত সচিব এ এইচ এম শফিকুজ্জামান এ কথা জানান। ই-কমার্সের টাকা ফেরত আনার বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, যে টাকা চলে গেছে সেটার বিষয়ে মন্ত্রী মহোদয় একাধিকবার বলেছেন। এখানে আমাদের একটা ম্যান্ডেড দেওয়া আছে। তার তিন নাম্বার বলা আছে- ওই অর্থ-সম্পদ রিকভারি করার পদ্ধতি নির্ধারণ। আমরা সেটা নির্ধারণ করে কেবিনেটে পাঠাবো। সেখানে অ্যাডমিনিস্ট্রেটর নিয়োগ করা হবে কি না কেবিনেট ঠিক করবে। ইভ্যালিতে অ্যাডমিনিস্ট্রেটর হাইকোর্ট থেকে নিয়োগ করে দেওয়া হচ্ছে সেভাবে যদি করা হয়, সেটাও হতে পারে। আমরা সুপারিশ কেবিনেটে পাঠাবো সেখান থেকে সিদ্ধান্ত এলে সেই অনুযায়ী ব্যবস্থা নেবো। তিনি বলেন, ভোক্তা অধিকার সুরক্ষায় আমরা আটটি সুপারিশ নির্ধারণ করেছি। এই সুপারিশগুলো আমরা কেবিনেটে পাঠাবো। পরে সেখান থেকে নির্দেশনা আসবে। সব ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানের আর্থিক লেনদেন কীভাবে করা যায় সে বিষয়ে আমরা একটা রিকমেন্ডেশন দেবো। আর আমাদের ই-কমার্স প্রতিষ্ঠানকে ভ্যাট-ট্যাক্সের আওতায় আনতেও আমরা প্রতিবেদন দেবো। শফিকুজ্জামান বলেন, কমিটি আগামী এক মাসের মধ্যে বসে কেবিনেটে এই টোটাল প্রতিবেদন পাঠাবে। এটা পাঠানোর পরে সরকারের সর্বোচ্চ পর্যায় থেকে ডিজিটাল কমার্স নীতিমালা বা ই-কমার্সকে কীভাবে শৃঙ্খলার মধ্যে আনা যায় সেটা হয়তো আমরা পলিসি মেকারদের থেকে পাবো। সেই অনুযায়ী কমিটিতে বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, আইসিটি মন্ত্রণালয়, বাংলাদেশ ব্যাংকের প্রতিনিধি আছে, বিশেষ করে কিছু গোপন সংস্থা আছে। এ ছাড়া ই-ক্যাব ও ক্যাবের প্রতিনিধি আছেন। কীভাবে সেই বিষয়গুলো সামনে এগিয়ে নিয়ে যাওয়া হবে সেটা আমরা বসে সবার দিকনির্দেশনা অনুযায়ী করবো। অতিরিক্ত সচিব বলেন, ই-কমার্সে যে ঘটনা ঘটেছে অবশ্যই এটা একটা ড্যামেজ। ই-কমার্সকে আমরা সামনে নিয়ে যেতে চাই। সবাই মিলে ই-কমার্সকে সামনে এগিয়ে নেওয়ার কোনো বিকল্প নেই। যে ড্যামেজ হয়েছে সেটা রিপেয়ার করে কীভাবে সামনে এগিয়ে নিতে পারবো সেটাই মূল লক্ষ্য, কমিটি সেভাবেই কাজ করছে। আমরা এটা রিপোর্ট আকারে কেবিনেটে পাঠাবো। কেবিনেট থেকে যে নির্দেশনা আসবে সেগুলো রেগুলেটরি অথরিটি ইমপ্লিমেন্ট করবে। তিনি আরও বলেন, ই-কমার্সের নিবন্ধন নিয়ে এরইমধ্যে আমরা কাজ শুরু করেছি। আগামী সপ্তাহে আবারও মিটিং করবো। নিবন্ধনের ফরমেটটাও হয়ে গেছে। আমরা সবকিছু নিবন্ধনের মধ্যে নিয়ে আসবো। অনলাইনে কীভাবে নিবন্ধন করা যায় সেটি নিয়েও কাজ করছি আমরা।


১৫ আগস্টের আড়ালের পরাশক্তি-দোসরদের বের করার সময় এসেছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী
                                  

 ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানকে সপরিবারে হত্যায় আড়ালের পরাশক্তি ও তাদের এ দেশীয় দোসরদের খুঁজে বের করার সময় এসেছে বলে মন্তব্য করেছেন মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রী আ ক ম মোজাম্মেল হক। গতকাল সোমবার মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সভাকক্ষে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের কনিষ্ঠপুত্র শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন উপলক্ষে আলোচনা সভায় মন্ত্রী এ মন্তব্য করেন। ১৫ আগস্টের হত্যাকাণ্ড জাতীয় ও আন্তর্জাতিক চক্রান্তের ফসল ছিল জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, বঙ্গবন্ধু ও শেখ রাসেলের হত্যাকারীদের বিচার কিন্তু হয়নি। ক্ষুদ্র একটা অংশের বিচার হয়েছে, আত্মস্বীকৃত খুনিদের বিচার হয়েছে। এই হত্যাকাণ্ডের মদদদাতা কারা, খুনি মোশতাক, খুনি জিয়াসহ এই দেশের দোসর যারা ছিলেন, আন্তর্জাতিক দোসর যারা ছিলেন তাদের বিচার হয়নি। তিনি বলেন, সেদিন (১৫ আগস্ট) আমেরিকার দূতাবাস সারারাত খোলা ছিল, পাকিস্তানের দূতাবাস খোলা ছিল। সেই রহস্য আজও কিন্তু উন্মোচিত হয়নি। আমি মনে করি সময় এসেছে, সরকারকে এই বিষয়টি অত্যন্ত গুরুত্ব সহকারে ভাবতে হবে। ১৫ আগস্ট হত্যার আড়ালে কোন পরাশক্তি ছিল এবং তাদের এ দেশীয় দোসর কারা ছিল। প্রকৃত খুনিদের কমিশনের মাধ্যমে খুঁজে বের করে তাদের বিচারের আওতায় আনতে হবে। পৃথিবীর ইতিহাসে অনেক হত্যাকাণ্ড সংগঠিত হয়েছে জানিয়ে মন্ত্রী বলেন, ১৫ আগস্ট শেষ রাসেলসহ বঙ্গবন্ধুর পরিবারকে হত্যার সঙ্গে অন্যান্য হত্যাকাণ্ডের পার্থক্য হলো সব জায়গায় শুধু মূল ব্যক্তিকে হত্যা করেছে, এখানে ব্যতিক্রম হচ্ছে রক্তের ছিঁটেফোঁটাও কিছু রাখেনি। এটি রাজনৈতিক কিংবা পারিবারিক হত্যা ছিল না, এটি ছিল একটি আদর্শকে হত্যা করার প্রচেষ্টা। ১০ বছরের শিশু রাসেলের সঙ্গে তো কারো প্রতিযোগিতা, প্রতিহিংসা থাকার কথা নয়। মোজাম্মেল হক বলেন, প্রতিভাময় শিশুটি (শেখ রাসেল) ঝরে না পড়লে আজ তার ৫৮ বছর পূর্ণ হতো। দেশকে-জাতিকে দেওয়ার এটাই হতো সেরা সময়। সবদিক থেকে পরিপক্কতা আসতো। জাঁতি তার সেবা থেকে বঞ্চিত হয়েছে। সে আমাদের মধ্যে বেঁচে আছে, বেঁচে থাকবে। অনুষ্ঠানে মন্ত্রী শেখ রাসেলের জন্মদিনের কেক কাটেন। শেখ রাসেলকে নিয়ে নির্মিত একটি প্রামাণ্যচিত্রও দেখানো হয়। অনুষ্ঠানে মুক্তিযুদ্ধ বিষয়ক মন্ত্রণালয়ের সচিব খাজা মিয়া, জাতীয় মুক্তিযোদ্ধা কাউন্সিলের মহাপরিচালক মো. জহুরুল ইসলাম রোহেলসহ মন্ত্রণালয়ের অন্যান্য কর্মকর্তারা উপস্থিত ছিলেন।


   Page 1 of 105
     জাতীয়
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১০ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
কোনো বিভাগ দেবো না, কু- নাম দিয়ে : প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
কমছে পেঁয়াজের দাম
.............................................................................................
বদরুন্নেসার সেই শিক্ষিকার বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মামলা
.............................................................................................
দেশে অন্ধত্ব কমেছে ৩৫ শতাংশ: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
শিগগির ট্রেনের টিকিট সম্পূর্ণ অনলাইন করা হবে
.............................................................................................
রাতে আসছে সিনোফার্মের আরও ৫৫ লাখ টিকা
.............................................................................................
জিআই সনদ পাচ্ছে ফজলি আম ও বাগদা চিংড়ি
.............................................................................................
দেড় বছর পর সশরীরে ক্লাসে চবি শিক্ষার্থীরা
.............................................................................................
বাংলাদেশে ‘সাম্প্রদায়িক হামলা’র নিরপেক্ষ তদন্ত চায় জাতিসংঘ
.............................................................................................
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় আরও ৭ জন প্রাণ হারিয়েছেন
.............................................................................................
জাতিসংঘ বাংলাদেশ স্থায়ী মিশনে ‘শেখ রাসেল দিবস’- ২০২১ উদযাপন
.............................................................................................
বৃষ্টি থাকতে পারে আরও দুদিন, ৩ নম্বর সংকেত বহাল
.............................................................................................
চবির হল খুললো দেড় বছর পর, উৎসবের আমেজ শিক্ষার্থীদের
.............................................................................................
ই-কমার্সে শৃঙ্খলা ফেরাতে একমাসের মধ্যে প্রতিবেদন দেবে কমিটি
.............................................................................................
১৫ আগস্টের আড়ালের পরাশক্তি-দোসরদের বের করার সময় এসেছে: মুক্তিযুদ্ধ মন্ত্রী
.............................................................................................
সাম্প্রদায়িক অপশক্তি রুখতে পাশে থাকবেন সাংবাদিকরা
.............................................................................................
সড়কে মৃত্যুর মিছিল থামছেই না
.............................................................................................
ডেঙ্গু : আরও ১৭২ জন হাসপাতালে
.............................................................................................
কুমিল্লার ঘটনা সাজানো: স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী
.............................................................................................
করোনা কেড়ে নিলো আরও ১০ প্রাণ
.............................................................................................
শহীদ শেখ রাসেলের ৫৮তম জন্মদিন আজ
.............................................................................................
‘শেখ রাসেল স্বর্ণ পদক’ বিতরণ করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
জাপানে শেখ রাসেলের জন্মদিন উদযাপিত
.............................................................................................
‘স্বাস্থ্যসম্মত স্যানিটেশনের আওতায় ৯৯ % মানুষ’
.............................................................................................
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ১৬ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
৩০ অক্টোবরের মধ্যেই আনতে হবে আমদানির চাল
.............................................................................................
২১ অক্টোবর থেকে জাতীয় বিশ্ববিদ্যালয়ে সশরীরে ক্লাস
.............................................................................................
৬০০ কোটি টাকায় ৩২০ কোরিয়ান এসি বাস কিনবে সরকার
.............................................................................................
জানুয়ারি থেকে ২ সেমিস্টারে ভর্তি নিতে নতুন কৌশল ইউজিসির
.............................................................................................
সরকারের নিয়ন্ত্রণের অভাবে দ্রব্যমূল্য বাড়ছেই: সিপিবি
.............................................................................................
রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের হল খুলছে আজ
.............................................................................................
২১ কেন্দ্রে প্রতিদিন টিকা পাবে ৪০ হাজার শিশু
.............................................................................................
যেই সমাজে বিচার থাকে না, সেই সমাজে অন্যায় প্রতিষ্ঠিত হয়: খন্দকার মোশারফ
.............................................................................................
করোনায় বন্ধ হওয়া ঢাকা মেডিকেলের দুই ওয়ার্ড চালু
.............................................................................................
সাম্প্রদায়িক অপশক্তি পরিকল্পিতভাবে মন্দিরে হামলা চালিয়েছে: কাদের
.............................................................................................
দেশ বিক্রি করে তো আমি ক্ষমতায় আসবো না: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরও ১৮৩ জন হাসপাতালে
.............................................................................................
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৬ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
প্রতিমা বিসর্জনের মধ্য দিয়ে দুর্গোৎসবের সমাপ্তি
.............................................................................................
বৈশ্বিক ক্ষুধা সূচকে এক ধাপ পিছিয়েছে বাংলাদেশ
.............................................................................................
দেশে মোবাইল ইন্টারনেটে ধীরগতি
.............................................................................................
১২-১৭ বছর বয়সী শিক্ষার্থীদের টিকার তথ্য দেওয়ার নির্দেশ
.............................................................................................
আরও বেড়েছে ব্রয়লার মুরগির দাম, কমছে পেঁয়াজের
.............................................................................................
করোনায় আরও ৯ জনের মৃত্যু
.............................................................................................
কেউ যেন সাহস না পায় আর, এমন শাস্তি হবে
.............................................................................................
১ অক্টোবর যুক্তরাজ্য যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় ৭ জনের মৃত্যু, শনাক্ত ৪৬৬
.............................................................................................
বিশ্ব মান দিবস অজ
.............................................................................................
গ্যাটকো দুর্নীতি : খালেদার বিরুদ্ধে অভিযোগ গঠন ১৮ নভেম্বর
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD