|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮.৫৮ শতাংশ   * মোটরসাইকেলে বিধিনিষেধে ‘ষড়যন্ত্র’ দেখছেন চালক-যাত্রীরা   * টিকিটযুদ্ধ শেষ, প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয়   * গরুর চামড়ায় ৭, খাসিতে ৩ টাকা বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ   * যুক্তরাষ্ট্রে স্বাধীনতা দিবসের কুচকাওয়াজে গুলি, নিহত ৬   * শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে শপথবাক্য ঠিকমতো পড়ানো হয় না   * কুমিল্লা সিটির মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন রিফাত   * অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার: প্রধানমন্ত্রী   * হজের নামে প্রতারণার শিকার ৩০০, ব্যবস্থা নিতে এসবি-ডিজিএফআইকে চিঠি   * আফগানিস্তানে জরুরি সহায়তা পাঠাল বাংলাদেশ  

   জাতীয় -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেলেন নবীনগরের দুই সাংবাদিক

সোহেল সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা: 
 
পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদকে কেন্দ্র করে দায়ের হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলায় জামিন পেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার দুই সাংবাদিক। সোমবার চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনাল আদালত ওই দুই সাংবাদিকের জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ বিচারক। জামিন পাওয়া দুই সাংবাদিক হলেন দৈনিক প্রথম আলো ও কালের কণ্ঠের সাবেক নবীনগর প্রতিনিধি, বর্তমানে দৈনিক বাংলা ৭১ এর বিশেষ প্রতিনিধি ও সাংস্কৃতিক সংগঠক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু এবং দৈনিক অবজারভারের নবীনগর প্রতিনিধি মিঠু সূত্রধর পলাশ।
বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে মামলার শুনানীতে অংশ নেয়া আইনজীবী ব্যারিষ্টার আশরাফ রহমান সাংবাদিকদের বলেন,`মামলাটি যে হয়রাণী মূলক ও মত প্রকাশের ক্ষেত্রে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী সেটি আমরা বিজ্ঞ আদালতকে যুক্তি তর্ক দিয়ে বুঝাতে সক্ষম হই। ফলে বিজ্ঞ আদালত আমাদের বক্তব্যে সন্তোষ্ট হয়ে দুই সাংবাদিকের জামিন মঞ্জুর করেন।`
আলোচিত এ মামলার শুনানীতে দুই সাংবাদিকের পক্ষে ব্যারিষ্টার আশরাফ রহমানের সাথে সহযোগীতা করেন চট্টগ্রামের আইনজীবী এডভোকেট জয়দত্ত বড়ুয়া, এডভোকেট সাইফুদ্দিন মো. খালেদ, এডভোকেট মো. ফারুখ, এডভোকেট মোহাম্মদ রিদুয়ান, এডভোকেট জুয়েল কান্তি নাথ, এডভোকেট অভিজিৎ দে, এডভোকেট স্বরূপ কান্তি নাথ প্রমুখ।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিগত  ২০২০ সালের শুরুর দিকে করোনা মহামারি চলাকালে নবীনগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও নবীনগর কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি`র সভাপতি কোটিপতি সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  ত্রাণের তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির সুনির্দিষ্ট তথ্যের আলোকে দৈনিক কালের কণ্ঠে বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক রিপোর্ট করেন সেসময় কালের কণ্ঠের নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি সিনিয়র সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু।
ওইসব রিপোর্টে বলা হয়, সীতানাথ সূত্রধর নিজে কোটিপতি হওয়ার পরও দিনমজুর ও গরীবের জন্য বরাদ্দ হওয়া  সরকারি ত্রাণের মাত্র ২৫০০/ (আড়াই হাজার) টাকার ওই গরীবের তালিকায় সীতানাথ সূত্রধর প্রভাব খাটিয়ে তার নিজের ছেলের বউ, ভগ্নি, ভাগ্নে, ভ্রাতুষ্পুত্রসহ বহু নিকট আত্মীয় স্বজনের নাম অন্তর্ভূক্ত করেন। 
কালের কণ্ঠের ওইসব রিপোর্টের পর সীতানাথ সূত্রধরের ওই দুর্নীতির খবর সেসময় দেশের প্রভাবশালী দৈনিক প্রথম আলো, ডেইলি স্টারসহ প্রায় সবকটি মূলধারার গণমাধ্যমেও ফলাও করে ছাপা হয়।
পত্রিকায় এসব রিপোর্ট প্রকাশ হওয়ার পর সীতানাথ সূত্রধর তখন এক সংবাদ সম্মেলন করে ওইসব রিপোর্টের সত্যতাও প্রকারন্তরে স্বীকার করে নিয়ে বলেছিলেন, `সে সময় তার প্রচন্ড জ্বর থাকায় ত্রাণের তালিকা চেক না করেই তিনি  ওই ত্রাণের তালিকায় হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারী হিসেবে স্বাক্ষর করেছিলেন। 
পরদিন সাংবাদিক সম্মেলনের ওই সংবাদ `অনিয়ম স্বীকার করে অসুস্থতার দোহাই!` শিরোনামে কালের কণ্ঠে আরও একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে সীতানাথ আরও ক্ষিপ্ত হয়ে  সেসময় গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকী দেন। পরে সাংবাদিক অপু বাধ্য হয়ে সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেন। 
এদিকে জাতীয় পত্রপত্রিকায় সীতানাথের ওইসব অনিয়ম ও দুর্নীতির খবর দেখতে পেয়ে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রানা দাসগুপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটিকে লিখিতভাবে `শোকজ` করেন। 
কিন্তু ওই শোকজের জবাব জেলা কমিটি কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সঠিকভাবে দিতে না পারায়, ত্রাণের তালিকায় গরীবের নামের পরিবর্তে সীতানাথ সূত্রধরের পারিবারিক আত্মীয় স্বজনের  নাম অন্তর্ভূক্ত করার কারণে গোটা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অসহায় ও গরীবদের ত্রাণের পুরো তালিকাটি চরম ক্ষুব্ধ হয়ে বাতিল করে দেন রানা দাসগুপ্ত। 
এতে গোটা জেলার দুই হাজারেরও বেশী কর্মহীন গরীব হিন্দু ত্রাণের টাকা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হন।
এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কোটিপতি সীতানাথ সূত্রধর স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতায় সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর ওপর দু`দফায় হামলা করেন। হামলার পর থানায় মামলাও করেন সাংবাদিক অপু। এক পর্যায়ে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মিথ্যে অভিযোগ এনে একটি পিটিশন মামলা (২৫/২৯ ধারায়) করেন সীতানাথ সূত্রধর। যা পরবর্তীতে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনালে স্থানান্তরিত হয়।
এ মামলায় দৈনিক অবজারভারের নবীনগর প্রতিনিধি সাংবাদিক মিঠু সূত্রধর পলাশকেও আসামী করা হয়।
সম্প্রতি চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনাল আদালত থেকে  সাংবাদিক গৌরাঙ্গ ও মিঠুকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ওই মামলায় `সমন` দেয়া হয়।
আদালতের সমন পেয়ে ওই দুই সাংবাদিক গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনালে আত্মসমর্পণ করলে বিজ্ঞ আদালতে মামলাটির শুনানী হয়। শুনানী শেষে সাংবাদিকদ্বয়ের জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ বিচারক।
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেলেন নবীনগরের দুই সাংবাদিক
                                  
সোহেল সরকার, ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা সংবাদদাতা: 
 
পত্রিকায় প্রকাশিত সংবাদকে কেন্দ্র করে দায়ের হওয়া ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের একটি মামলায় জামিন পেলেন ব্রাহ্মণবাড়িয়ার নবীনগর উপজেলার দুই সাংবাদিক। সোমবার চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনাল আদালত ওই দুই সাংবাদিকের জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ বিচারক। জামিন পাওয়া দুই সাংবাদিক হলেন দৈনিক প্রথম আলো ও কালের কণ্ঠের সাবেক নবীনগর প্রতিনিধি, বর্তমানে দৈনিক বাংলা ৭১ এর বিশেষ প্রতিনিধি ও সাংস্কৃতিক সংগঠক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু এবং দৈনিক অবজারভারের নবীনগর প্রতিনিধি মিঠু সূত্রধর পলাশ।
বিষয়টির সত্যতা নিশ্চিত করে মামলার শুনানীতে অংশ নেয়া আইনজীবী ব্যারিষ্টার আশরাফ রহমান সাংবাদিকদের বলেন,`মামলাটি যে হয়রাণী মূলক ও মত প্রকাশের ক্ষেত্রে স্বাধীন সাংবাদিকতার পরিপন্থী সেটি আমরা বিজ্ঞ আদালতকে যুক্তি তর্ক দিয়ে বুঝাতে সক্ষম হই। ফলে বিজ্ঞ আদালত আমাদের বক্তব্যে সন্তোষ্ট হয়ে দুই সাংবাদিকের জামিন মঞ্জুর করেন।`
আলোচিত এ মামলার শুনানীতে দুই সাংবাদিকের পক্ষে ব্যারিষ্টার আশরাফ রহমানের সাথে সহযোগীতা করেন চট্টগ্রামের আইনজীবী এডভোকেট জয়দত্ত বড়ুয়া, এডভোকেট সাইফুদ্দিন মো. খালেদ, এডভোকেট মো. ফারুখ, এডভোকেট মোহাম্মদ রিদুয়ান, এডভোকেট জুয়েল কান্তি নাথ, এডভোকেট অভিজিৎ দে, এডভোকেট স্বরূপ কান্তি নাথ প্রমুখ।
খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, বিগত  ২০২০ সালের শুরুর দিকে করোনা মহামারি চলাকালে নবীনগর হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সাধারণ সম্পাদক ও নবীনগর কেন্দ্রীয় কালীবাড়ি`র সভাপতি কোটিপতি সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার  ত্রাণের তালিকায় ব্যাপক অনিয়ম ও স্বজনপ্রীতির সুনির্দিষ্ট তথ্যের আলোকে দৈনিক কালের কণ্ঠে বেশ কয়েকটি ধারাবাহিক রিপোর্ট করেন সেসময় কালের কণ্ঠের নবীনগর (ব্রাহ্মণবাড়িয়া) প্রতিনিধি সিনিয়র সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপু।
ওইসব রিপোর্টে বলা হয়, সীতানাথ সূত্রধর নিজে কোটিপতি হওয়ার পরও দিনমজুর ও গরীবের জন্য বরাদ্দ হওয়া  সরকারি ত্রাণের মাত্র ২৫০০/ (আড়াই হাজার) টাকার ওই গরীবের তালিকায় সীতানাথ সূত্রধর প্রভাব খাটিয়ে তার নিজের ছেলের বউ, ভগ্নি, ভাগ্নে, ভ্রাতুষ্পুত্রসহ বহু নিকট আত্মীয় স্বজনের নাম অন্তর্ভূক্ত করেন। 
কালের কণ্ঠের ওইসব রিপোর্টের পর সীতানাথ সূত্রধরের ওই দুর্নীতির খবর সেসময় দেশের প্রভাবশালী দৈনিক প্রথম আলো, ডেইলি স্টারসহ প্রায় সবকটি মূলধারার গণমাধ্যমেও ফলাও করে ছাপা হয়।
পত্রিকায় এসব রিপোর্ট প্রকাশ হওয়ার পর সীতানাথ সূত্রধর তখন এক সংবাদ সম্মেলন করে ওইসব রিপোর্টের সত্যতাও প্রকারন্তরে স্বীকার করে নিয়ে বলেছিলেন, `সে সময় তার প্রচন্ড জ্বর থাকায় ত্রাণের তালিকা চেক না করেই তিনি  ওই ত্রাণের তালিকায় হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের সেক্রেটারী হিসেবে স্বাক্ষর করেছিলেন। 
পরদিন সাংবাদিক সম্মেলনের ওই সংবাদ `অনিয়ম স্বীকার করে অসুস্থতার দোহাই!` শিরোনামে কালের কণ্ঠে আরও একটি সংবাদ প্রকাশিত হলে সীতানাথ আরও ক্ষিপ্ত হয়ে  সেসময় গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুকে প্রকাশ্যে হত্যার হুমকী দেন। পরে সাংবাদিক অপু বাধ্য হয়ে সীতানাথ সূত্রধরের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেন। 
এদিকে জাতীয় পত্রপত্রিকায় সীতানাথের ওইসব অনিয়ম ও দুর্নীতির খবর দেখতে পেয়ে বাংলাদেশ হিন্দু বৌদ্ধ খ্রীষ্টান ঐক্য পরিষদের কেন্দ্রীয় কমিটির সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট রানা দাসগুপ্ত ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা কমিটিকে লিখিতভাবে `শোকজ` করেন। 
কিন্তু ওই শোকজের জবাব জেলা কমিটি কেন্দ্রীয় কমিটির কাছে সঠিকভাবে দিতে না পারায়, ত্রাণের তালিকায় গরীবের নামের পরিবর্তে সীতানাথ সূত্রধরের পারিবারিক আত্মীয় স্বজনের  নাম অন্তর্ভূক্ত করার কারণে গোটা ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলার অসহায় ও গরীবদের ত্রাণের পুরো তালিকাটি চরম ক্ষুব্ধ হয়ে বাতিল করে দেন রানা দাসগুপ্ত। 
এতে গোটা জেলার দুই হাজারেরও বেশী কর্মহীন গরীব হিন্দু ত্রাণের টাকা পাওয়া থেকে বঞ্চিত হন।
এতে ক্ষিপ্ত হয়ে কোটিপতি সীতানাথ সূত্রধর স্থানীয় একটি প্রভাবশালী মহলের সহযোগিতায় সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর ওপর দু`দফায় হামলা করেন। হামলার পর থানায় মামলাও করেন সাংবাদিক অপু। এক পর্যায়ে সাংবাদিক গৌরাঙ্গ দেবনাথ অপুর বিরুদ্ধে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনে মিথ্যে অভিযোগ এনে একটি পিটিশন মামলা (২৫/২৯ ধারায়) করেন সীতানাথ সূত্রধর। যা পরবর্তীতে চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনালে স্থানান্তরিত হয়।
এ মামলায় দৈনিক অবজারভারের নবীনগর প্রতিনিধি সাংবাদিক মিঠু সূত্রধর পলাশকেও আসামী করা হয়।
সম্প্রতি চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনাল আদালত থেকে  সাংবাদিক গৌরাঙ্গ ও মিঠুকে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের ওই মামলায় `সমন` দেয়া হয়।
আদালতের সমন পেয়ে ওই দুই সাংবাদিক গতকাল সোমবার চট্টগ্রাম সাইবার ট্রাইবুনালে আত্মসমর্পণ করলে বিজ্ঞ আদালতে মামলাটির শুনানী হয়। শুনানী শেষে সাংবাদিকদ্বয়ের জামিন মঞ্জুর করেন বিজ্ঞ বিচারক।
ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮.৫৮ শতাংশ
                                  

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের (ঢাবি) ২০২১-২২ শিক্ষাবর্ষে সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদভুক্ত ‘ঘ’ ইউনিটের প্রথম বর্ষ স্নাতক (সম্মান) শ্রেণির ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হয়েছে।
মঙ্গলবার (জুলাই) দুপুর ১টায় বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান প্রধান অতিথি হিসেবে প্রশাসনিক ভবনস্থ অধ্যাপক আব্দুল মতিন চৌধুরী ভার্চুয়াল ক্লাসরুমে আনুষ্ঠানিকভাবে এ ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করেন।
এবছর ‘ঘ’ ইউনিটে ৭১ হাজার ২৬২ জন শিক্ষার্থী অংশগ্রহণ করেন। এর মধ্যে পাস করেছেন মাত্র ৬ হাজার ১১১ জন, যা মোট শিক্ষার্থীর ৮ দশমিক শতাংশ ৫৮। বাকি ৯১ দশমিক ৪২ শতাংশ শিক্ষার্থীই ফেল করেছেন। ‌‘ঘ’ ইউনিটে মোট আসন ১ হাজার ৩৩৬টি।
যেভাবে ফলাফল জানা যাবে
ভর্তি পরীক্ষায় অংশগ্রহণকারী শিক্ষার্থীরা উচ্চ মাধমিক পরীক্ষার রোল নম্বর, বোর্ডের নাম, পাসের সন এবং মাধ্যমিক পরীক্ষার রোল নম্বরের মাধ্যমে ওয়েবসাইট থেকে পরীক্ষার ফলাফল জানতে পারবেন।
এছাড়াও আবেদনকারীরা রবি, এয়ারটেল, বাংলালিংক অথবা টেলিটক নম্বর থেকে থেকে DU GHA <roll no> টাইপ করে ১৬৩২১ নম্বরে send করে ফিরতি SMS-এ ফলাফল জানতে পারবেন।
ভর্তি সংক্রান্ত আরও গুরুত্বপূর্ণ তথ্য
(ক) পাসকৃত শিক্ষার্থীদের আগামী ৭ জুলাই বিকেল ৩টা হতে ২৮ জুলাই বিকেল ৫টা পর্যন্ত ভর্তি পরীক্ষার ওয়েবসাইটে বিস্তারিত ফরম ও বিষয়ের পছন্দক্রম ফরম পূরণ করতে হবে।
(খ) ভর্তি পরীক্ষায় উত্তীর্ণ বিভিন্ন কোটায় আবেদনকারীদের ১৮ জুলাই হতে ২৪ জুলাইয়ের মধ্যে সংশ্লিষ্ট কোটার ফরম সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিস হতে সংগ্রহ করতে হবে। যথাযথভাবে পূরণ করে উক্ত সময়ের মধ্যে ডিন অফিসে জমা দিতে হবে।
(গ) ফলাফল নিরীক্ষণের জন্য ১০০০ (এক হাজার) টাকা ফি প্রদান সাপেক্ষে আগামী ১৭ জুলাই হতে ২১ জুলাই পর্যন্ত সামাজিক বিজ্ঞান অনুষদের ডিন অফিসে আবেদন করা যাবে।

মোটরসাইকেলে বিধিনিষেধে ‘ষড়যন্ত্র’ দেখছেন চালক-যাত্রীরা
                                  

এবার ঈদুল ফিতরের যাত্রায় স্বস্তির নিশ্বাস ফেলেছিলেন গ্রামে ফেরা যাত্রীদের একাংশ। ঈদে সড়ক-মহাসড়কে যেমন যানজট তুলনামূলক কম ছিল তেমনি মোটরসাইকেলের ব্যবহার অনেককেই সহজে গন্তব্যে পৌঁছে দিয়েছিল। দুয়ারে কড়া নাড়ছে আরেকটি ঈদ। তবে এ ঈদে আর মোটরসাইকেল নিয়ে গ্রামে যাওয়ার সুযোগ থাকছে না। ঈদুল আজহার আগের ও পরের তিনদিন মিলিয়ে মোট সাতদিন মহাসড়কে যৌক্তিক কারণ ছাড়া মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। পাশাপাশি এক জেলায় রেজিস্ট্রেশন করা মোটরসাইকেল অন্য জেলাতেও চালানো যাবে না।
ফলে গত ঈদের মতো এবারও যারা মোটরসাইকেলে বাড়ি ফেরার পরিকল্পনা করছিলেন তারা পরিকল্পনা বদলাতে বাধ্য হচ্ছেন। অন্যদিকে ট্রেনের টিকিট পেতেও ভোগান্তি চরমে পৌঁছেছে। ফলে একমাত্র উপায় থাকছে বাস। এ কারণে সম্প্রতি মোটরসাইকেল চলাচলে দেওয়া এ বিধিনিষেধের পেছনে পরিবহন (বাস) মালিকদের ইন্ধনের অভিযোগ তুলেছেন মোটরসাইকেলের চালক ও যাত্রীরা। যদিও পরিবহন মালিকদের পক্ষ থেকে এ ধরনের অভিযোগ নাকচ করে দেওয়া হয়েছে।
সম্প্রতি সচিবালয়ে সড়ক পরিবহন বিভাগে অনুষ্ঠিত এক সভা শেষে সচিব এ বি এম আমিন উল্লাহ নুরী জানান, ঈদুল আজহায় ভাড়ায়চালিত মোটরসাইকেল (রাইড শেয়ারিং) মহাসড়কে চলতে পারবে না। রাইড শেয়ারিং শুধু রাজধানী ঢাকাসহ অনুমোদিত এলাকায় চলতে পারবে। আর ঈদুল আজহার আগের তিনদিন, ঈদের দিন ও ঈদের পরের তিনদিন সারাদেশের মহাসড়কে যৌক্তিক কারণ ছাড়া মোটরসাইকেল চালানো যাবে না। পাশাপাশি এক জেলায় রেজিস্ট্রেশন করা মোটরসাইকেল অন্য জেলায় চালানো যাবে না। তবে যৌক্তিক ও অনিবার্য প্রয়োজনে পুলিশের অনুমতি নিয়ে মোটরসাইকেল চালানো যাবে।
এ নিয়ে বাইকার ও যাত্রীরা বলছেন, গতবারের ঈদযাত্রায় বিপুলসংখ্যক মানুষ মোটরবাইকে করে গ্রামে গেছেন এবং ঈদ শেষে ফের কর্মস্থলে ফিরেছেন। এক্ষেত্রে তারা দ্রুত এবং অপেক্ষাকৃত কম খরচে যাতায়াত করতে পেরেছেন। দুই চাকার এই বাহন নিয়ে সহজেই যানজট এড়ানো গেছে। কোনো সিন্ডিকেটের হাতে জিম্মি হয়েও থাকতে হয়নি। কিন্তু এর বিপরীতে গত ঈদে যাত্রী সংকটে ভুগেছে বাসগুলো। বছরের পর বছর ঈদে বাড়তি ভাড়ার নৈরাজ্য চালিয়ে আসা বাসমালিকরা বেশ বেকায়দায় পড়েন গত ঈদে। যাত্রী না পাওয়ার কারণে শিডিউলও বাতিল করতে বাধ্য হয় অনেক পরিবহন।
মোটরসাইকেলের চালক ও যাত্রীদের অভিযোগ, বাসমালিকদের স্বার্থসিদ্ধির জন্য অর্থাৎ মোটরসাইকেলে যারা যাওয়ার পরিকল্পনা করছেন তারাও যেন বাধ্য হয়ে বাসেই যান, সেজন্য এমন বিধিনিষেধ দেওয়া হয়েছে। এই বিধিনিষেধ দিতে ঢাল হিসেবে ব্যবহার করা হয়েছে দুর্ঘটনার অজুহাতকে।এ বিষয়ে আলাপ হয় বাংলাদেশ যাত্রী কল্যাণ সমিতির মহাসচিব মোজাম্মেল হক চৌধুরীর সঙ্গে। পরিবহন সংক্রান্ত সভাগুলোতে অংশ নিয়ে থাকেন তিনি।
মোজাম্মেল হক বলেন, সরকারের ঘোষণাটা ধোঁয়াশার মধ্যে রয়েছে। কারণ মোটরসাইকেল চলাচল নিষিদ্ধ করেনি, রাইড শেয়ারিং নিষিদ্ধ করেছে। এমনিতেই মহাসড়কে রাইড শেয়ারিংয়ের অনুমোদন নেই। ব্যক্তিগত মোটরসাইকেল নিষেধ করেনি। ঈদযাত্রা নিয়ে যে তিন চারটা মিটিং হয়েছে, প্রত্যেকটা মিটিংয়ে আমি ছিলাম।
মোটরসাইকেলে বিধিনিষেধে ‘ষড়যন্ত্র’ দেখছেন চালক-যাত্রীরা
ঈদযাত্রায় এমন যানজট দেখা যায় প্রতি বছরই
সভায় মোটরসাইকেলে রাইড শেয়ারিং নিষিদ্ধ পরিবহন মালিকদেরও দাবি ছিল জানিয়ে তিনি বলেন, পরিবহন মালিক, সড়ক ও জনপথ এবং বিআরটিএ’র পক্ষ থেকে দাবি ছিল বাইকে রাইড শেয়ারিং নিষিদ্ধ করা। আলোচনাও হয়েছে রাইড শেয়ারিং নিয়ে, ব্যক্তিগত পরিবহন নিষিদ্ধ করা হয়নি। এটা স্পষ্ট, এই জায়গায় একটা ভুল ম্যাসেজ যাচ্ছে। পরিবার নিয়ে গ্রামে যাবেন সেটা নিষেধ করেনি, যাত্রী নিয়ে যাবেন সেটা নিষেধ করা হয়েছে।
মোজাম্মেল হকের মতে, ঈদযাত্রায় মোটরসাইকেল নিষিদ্ধ করলে তা হবে মাথা ব্যথায়, মাথা কাটার মতো ব্যাপার। কারণ ঈদযাত্রায় মানুষ পরিবহন মালিকদের হাতে জিম্মি থাকে এবং পদে পদে ভোগান্তি পোহায়। স্বস্তিতে প্রিয়জনের কাছে যেতে তারা মোটরসাইকেলকে বেছে নেয়।
মহাসড়কে মোটরসাইকেল নিষিদ্ধের এমন সিদ্ধান্তে ক্ষুব্ধ প্রতিক্রিয়া ব্যক্ত করেছেন চালক ও যাত্রীরা।
বেসরকারি চাকরিজীবী তামজিদ হাসান প্রতি বছর ঈদে নিজের মোটরসাইকেল চালিয়ে কুড়িগ্রামের বাড়িতে যান। এবারও সেই পরিকল্পনা ছিল তার। তবে এক জেলার মোটরসাইকেল অন্য জেলায় যেতে পারবে না, এমন বিধিনিষেধে বিপাকে পড়েছেন তিনি।
মোটরসাইকেলে যেতে ৭-৮ ঘণ্টা সময় লাগে। ধীরে ধীরে চালিয়ে ভোগান্তি ছাড়াই নিরাপদে বাড়ি যাওয়া যায়। অন্যদিকে বাসে যেতে সময় বেশি লাগে। খরচ আর ভোগান্তি তো আছেই। কুড়িগ্রামের নন এসি বাসের ৮০০ টাকার টিকিট ঈদের সময় ১২০০ টাকা থেকে ১৫০০ টাকা হয়ে যায়। তারপরও টিকিট পাওয়া যায় না। নির্ধারিত সময়েও বাস ছাড়ে না।
তিনি আরও বলেন, গণপরিবহনের প্রতি মানুষের অনীহা বাড়ায় মানুষ মোটরসাইকেলে চেপে বাড়ি যাচ্ছে। কার স্বার্থে এমন সিদ্ধান্ত তা মাথায় ঢুকছে না। সরকারের এমন সিদ্ধান্ত যুগোপযোগী নয়।
ব্যবসায়িক স্বার্থে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়া হতে পারে এমন অভিযোগ করে অ্যাপ-বেইজড ড্রাইভারস ইউনিয়ন অব বাংলাদেশের (ডিআরডিইউ) সাধারণ সম্পাদক বেলাল আহমেদ জাগো নিউজকে বলেন, সরকার এই সিদ্ধান্ত নিয়েছে। এখানে ব্যবসায়িক স্বার্থ থাকতে পারে। কয়েকটা দিন যাক, আমরা ঈদের আগে কোনো কর্মসূচি হাতে নিচ্ছি না। যত যন্ত্রণা আমাদের ওপর দিয়েই যাক। ঈদ আরও আসবে। ঈদের পরে বিষয়টি নিয়ে কথা বলবো এবং কর্মসূচি হাতে নেবো।
তিনি বলেন, যার মোটরসাইকেল আছে সে সেটা নিয়ে যাবে না বাড়িতে? বিষয়টা কেবল রাইড শেয়ারিং কেন ভাবা হচ্ছে? আর সড়ক দুর্ঘটনার অজুহাত তুলে যে বিধিনিষেধ, দুর্ঘটনার জন্য এককভাবে মোটরসাইকেল দায়ী নয়। আমরা মহাসড়ক ও সেতুতে মোটরসাইকেলের জন্য আলাদা লেইন দাবি করছি।
তবে মোটরসাইকেল চলাচলে বিধিনিষেধের বিষয়টিকে পুরোপুরি প্রশাসনের সিদ্ধান্ত বলছেন পরিবহন মালিকরা।
জানতে চাইলে বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির মহাসচিব খন্দকার এনায়েত উল্ল্যাহ ঈদযাত্রায় বাইকের উপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে প্রশাসন। এর সঙ্গে পরিবহন মালিকদের কোনো সম্পৃক্ততা নেই।

টিকিটযুদ্ধ শেষ, প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয়
                                  

শেষ দিনের মতো ঈদের অগ্রিম টিকিট বিক্রি শুরু হয়েছে মঙ্গলবার (৫ জুলাই) সকাল ৮টা থেকে। এর মধ্যে দিয়ে শেষ হয়েছে টিকিটযুদ্ধ।
তবে ঈদযাত্রার প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয় ঘটেছে কমলাপুর থেকে ছেড়ে যাওয়া ট্রেনগুলোর।  
এদিকে কমলাপুর রেলওয়ে স্টেশনে বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে কমেছে টিকিটপ্রত্যাশীদের ভিড়। প্রায় ফাঁকা হয়ে গেছে প্ল্যাটফর্ম। টিকিট হাতে পেয়ে পরিবারকে ট্রেনে তুলে দিতে আসা হাসান নামে এক যাত্রী বাংলানিউজকে বলেন, আমি আনন্দিত। টিকিট পেলাম। এখন পরিবারকে তুলে দেব। আমি যাব দুদিন পর।
তবে বিপর্যয় ঘটেছে ট্রেনের শিডিউলে। মঙ্গলবার সিলেটগামী পারাবত এক্সপ্রেস ট্রেনটি নির্ধারিত সময়ে ছেড়ে গেলেও নীলসাগর এক্সপ্রেস টেনটি সকাল ৬টা ৪০ মিনিটে ছাড়ার কথা থাকলেও সেটি এক ঘণ্টা দেরিতে স্টেশনে পৌঁছায়। একই সঙ্গে জামালপুরগামী তিস্তা এক্সপ্রেস সকাল ৭টায় ছাড়ার কথা থাকলেও ৮টা পর্যন্ত সেটি স্টেশন ছেড়ে যায়নি।
এদিকে কমলাপুর রেলওয়ের স্টেশন ম্যানেজার মাসুদ সারওয়ার সকাল সাড়ে ১০টার দিকে সংবাদ সম্মেলন করেন। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ট্রেন লেট হয়েছে মূলত অপারেশনাল কার্যক্রমের জন্য। এটিকে শিডিউল বিপর্যয় বলা যাবে না। আমরা সবকিছু চেক করে যাত্রীদের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে গিয়ে কিছুটা দেরি হয়েছে। তবে অতীতের মতো সকালের ট্রেন বিকেলে আসার ঘটনা ঘটবে না।
অন্যদিকে ঈদের ফিরতি টিকিট বিক্রি শুরু হবে ৭ জুলাই। ঈদ শেষে ফিরতি ট্রেনের ক্ষেত্রে ১১ জুলাইয়ের টিকিট পাওয়া যাবে ৭ জুলাই, ১২ জুলাইয়ের টিকিট ৮ জুলাই, ১৩ জুলাইয়ের টিকিট ৯ জুলাই এবং ১৪ ও ১৫ জুলাইয়ের টিকিট ১১ জুলাই পাওয়া যাবে।

গরুর চামড়ায় ৭, খাসিতে ৩ টাকা বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ
                                  

কোরবানির পশুর লবণযুক্ত গরুর চামড়ার দাম গতবছরের চেয়ে ৭ টাকা বাড়িয়েছে সরকার। খাসির চামড়ায় দাম বাড়ানো হয়েছে ৩ টাকা।
মঙ্গলবার (০৫ জুন) সচিবালয়ের বাণিজ্য মন্ত্রণালয়ে চামড়ার দাম নির্ধারণ ও সুষ্ঠু ব্যবস্থাপনা বিষয়ক সভায় এ দাম নির্ধারণ করা হয়।
সভা শেষে ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত হয়ে বাণিজ্যমন্ত্রী টিপু মুনশি সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। এসময় ভার্চ্যুয়ালি যুক্ত ছিলেন বাণিজ্য সচিব, শিল্প সচিব ও তথ্য সচিব।  
মন্ত্রী জানান, এবার ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর লবণযুক্ত কাঁচা চামড়ার দাম ৪৭ থেকে ৫২ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ৪০ থেকে ৪৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে। আর খাসির লবণযুক্ত চামড়ার দাম ১৮ থেকে ২০ টাকা এবং বকরির চামড়া ১২ থেকে ১৪ টাকা নির্ধারণ করা হয়েছে।
গত বছর ঢাকায় প্রতি বর্গফুট গরুর লবণযুক্ত কাঁচা চামড়ার দাম ছিল ৪০ থেকে ৪৫ টাকা এবং ঢাকার বাইরে ছিল ৩৩ থেকে ৩৭ টাকা। খাসির লবণযুক্ত চামড়ার দাম ছিল প্রতি বর্গফুট ১৫ থেকে ১৭ টাকা এবং বকরির চামড়া ছিল ১২ থেকে ১৪ টাকা বর্গফুট।
উল্লেখ্য, গত কয়েক বছর ধরে সরকার নির্ধারিত দামে চামড়া বেচাকেনা হচ্ছে না। সিন্ডিকেটের কারণে পানির দরে চামড়া বিক্রি করতে বাধ্য হচ্ছেন সাধারণ মানুষ। এবারও সেই সিন্ডিকেটের ইচ্ছাতেই চামড়া বাজার চলবে কি না সে বিষয়ে কোনো কিছু বলেননি মন্ত্রী।

কুমিল্লা সিটির মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন রিফাত
                                  

কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র হিসেবে শপথ নিয়েছেন আরফানুল হক রিফাত। মঙ্গলবার সকালে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি যুক্ত হয়ে তার শপথ পাঠ করান।
ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে অনুষ্ঠিত শপথ অনুষ্ঠানে স্থানীয় সরকারমন্ত্রী তাজুল ইসলাম উপস্থিত ছিলেন।
মেয়রের পর শপথ নেন কুমিল্লা সিটির নির্বাচনে বিজয়ী সব কাউন্সিলর। তাদের শপথ পড়ান মন্ত্রী তাজুল ইসলাম।
গত ১৫ জুনের নির্বাচনে দুইবারের মেয়র মনিরুল হক সাক্কুকে হারিয়ে কুমিল্লা সিটি করপোরেশনের মেয়র নির্বাচিত হন আরফানুল হক রিফাত। নৌকা নিয়ে রিফাত পান ৫০ হাজার ৩১০ ভোট, ঘড়ি প্রতীকে সাক্কু ভোট পন ৪৯ হাজার ৯৬৭।
অবশ্য সাক্কু নির্বাচনের ফল প্রত্যাখ্যান করেন। দেরিতে প্রকাশ করা চার কেন্দ্রের ফল চ্যালেঞ্জ করে তিনি নির্বাচনি ট্রাইবুনালে যাওয়ার ঘোষণা দিয়েছেন।
বেসরকারিভাবে নির্বাচিত হওয়ার ২০ দিন পর মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন রিফাত।
এর আগে ২১ জুন নির্বাচনের আনুষ্ঠানিক ফল ঘোষণা করে গেজেট প্রকাশ করা হয়।

অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার: প্রধানমন্ত্রী
                                  

রাশিয়া-ইউক্রেন যুদ্ধের কারণে সারা বিশ্বেই তেলের দাম বৃদ্ধি পেয়েছে বলে জানিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। তিনি বলেন, ‘এখন আন্তর্জাতিক বাজারে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উপকরণগুলোর দাম অত্যাধিক বেড়েছে। অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার তৈরি হয়েছে। অনেক উন্নত দেশেও কিন্তু দুর্ভিক্ষ শুরু হয়ে গেছে।’
মঙ্গলবার (৫ জুলাই) ঢাকা সেনানিবাসে পিজিআর সদর দফতরে প্রেসিডেন্ট গার্ড রেজিমেন্টের (পিজিআর) ৪৭তম প্রতিষ্ঠাবার্ষিকী উদযাপন উপলক্ষে আয়োজিত অনুষ্ঠানে তিনি এসব কথা বলেন। প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে এতে যুক্ত হন।
শেখ হাসিনা বলেন, ‘একদিকে করোনার একটা অভিঘাত, তার ওপরে এসেছে রাশিয়া-ইউক্রেনের যুদ্ধ। যার ফলে আজকে সমগ্র বিশ্বেই যেমন তেলের দাম বেড়েছে, অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার। বিদ্যুৎ আমরা ঘরে ঘরে পৌঁছে দিয়েছিলাম এবং নিরবচ্ছিন্ন বিদ্যুৎ সবাই পাচ্ছিল; কিন্তু এখন আন্তর্জাতিক বাজারে বিদ্যুৎ উৎপাদনের উপকরণগুলোর দাম অত্যাধিক বেড়ে গেছে। ডিজেল, তেল, এনএলজির দাম বেড়েছে। সব কিছুর দাম বেড়েছে। কয়লা এখন পাওয়া যায় না।’
প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘পঁচাত্তরে জাতির পিতাকে হত্যার পর বাংলাদেশে যারা স্বাধীনতাবিরোধী, যুদ্ধাপরাধী— যাদের বিচারকার্য শুরু হয়েছিল, তাদেরই রাষ্ট্রীয় ক্ষমতায় বসানো হয়। তাছাড়া জাতির পিতার হত্যাকারীদের ইনডেমনিটি অর্ডিনেন্স জারি করে বিচারের হাত থেকে মুক্তি দেওয়া হয়। বিভিন্ন দূতাবাসে চাকরি দিয়ে তাদের পুরস্কৃত করা হয়।’
‘স্বাধীনতাবিরোধী শক্তি ক্ষমতায় থাকার কারণেই এই সেনাবাহিনীতে ১৯ বারের মতো ক্যু হয় এবং বহু সেনা সদস্য, সৈনিক, অফিসার মৃত্যুবরণ করেন। এমন একটা সময় ছিল, যখন অফিসারদের বাড়িতে বাড়িতে গিয়ে হামলা করা হয়েছে। অনেকের স্ত্রীকে হত্যা করা হয়েছে, পরিবারকে হত্যা করা হয়েছে। এ রকমও ঘটনা তখন ঘটতে থাকে একের পর এক। প্রতিরাতে বাংলাদেশে কারফিউ চলতো। মানুষের কোনও অধিকারই ছিল না। মানুষ স্বাভাবিকভাবে চলাফেরা করতে পারতো না। এ রকম একটা পরিবেশ বাংলাদেশে ছিল’, বলেন সরকারপ্রধান।
তিনি বলেন, ‘২১ বছর পর আওয়ামী লীগ সরকার গঠন করে। পঁচাত্তরে আমি ও আমার ছোট বোন বিদেশে ছিলাম। ১৯৮১ সালে আমাকে দেশে ফিরতে দেওয়া হয়নি। অনেকটা জোর করেই দেশে ফিরতে হয়েছিল। যেখানে খুনিদের রাজত্ব, যেখানে অপরাধীদের রাজত্ব; আমি জানতাম যেকোনও সময় তারা আমাকে মারতে পারে। আমি সেটা পরোয়া করিনি।  মানুষের জন্য ফিরে আসি। আসার পর থেকে আমার লক্ষ্য ছিল, একদিকে যেমন বাংলাদেশের মানুষের মৌলিক চাহিদা পূরণ করা, পাশাপাশি স্বাধীন-সার্বভৌম দেশ যেখানে আমার বাবা নিজের হাতে সেনাবাহিনী, বিমান বাহিনী, নৌ বাহিনী গড়ে তুলে গেছেন; সেগুলো যাতে আরও উন্নত হয় সেদিকে দৃষ্টি দেওয়া।’
শেখ হাসিনা বলেন, ‘ইউক্রেন আর রাশিয়ার যুদ্ধের কারণে পরিবহনের সমস্যার সৃষ্টি হচ্ছে। আগের মতো জাহাজ চলাচল করতে পারছে না। শুধু আমাদের দেশে না, প্রত্যেকটা দেশেই এখন জিনিসের ঘাটতি। এই সমস্যাটা দেখা দিয়েছে। সেখানে আমরা যদি একটু সাশ্রয় করে চলি, মিতব্যয়ী হই এবং নিজেরা নিজেদের সঞ্চয়টা বাড়াতে পারি তাতে যেকোনও সমস্যা মোকাবিলা করা যাবে। অর্থাৎ প্রতিটি পরিবারই যেন সঞ্চয়মুখী হয়, যে আমরা নিজেরা কিছু করবো।’
তিনি বলেন, ‘অনেক উন্নত দেশে কিন্তু দুর্ভিক্ষ শুরু হয়ে গেছে। আমাদের দেশেকে যাতে সে পরিস্থিতিতে পড়তে না হয়, এ জন্য এক ইঞ্চি জমিও যেন অনাবাদি না থাকে। কোনও জলাধার যেন খালি না থাকে। যার যেখানে যতটুকু জায়গা আছে, প্রতিষ্ঠানভিত্তিকও যেখানে যতটুকু খালি জায়গা, যে যা পারবেন কিছু উৎপাদন করবেন। উৎপাদন করে অন্তত নিজেদের খাদ্যটা নিজেরা জোগাড় করার চেষ্টা করা, যাতে বাজারের ওপর চাপ না পড়ে। উদ্বৃত্তটা বিক্রি করে যাতে লাভবান হতে পারেন, সেই ব্যবস্থাটা সবাইকে নিতে হবে।’
করোনা সংক্রমণ প্রশ্নে প্রধানমন্ত্রী বলেন, ‘এখন আবার একটু পাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। এ ক্ষেত্রে সবাইকে স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে হবে। সেইসঙ্গে আমরা টিকা দিচ্ছি। টিকা দেওয়ার সঙ্গে সঙ্গে বুস্টার ডোজটাও নিতে হবে। অনেকেই বুস্টার ডোজ নিচ্ছে না। সাধারণ জনগণ একটু পিছিয়ে থাকে। সেই ব্যাপারেও আমরা যথাযথ ব্যবস্থা নেবো, যাতে প্রত্যেকে বুস্টার ডোজটা নেয়। যাতে পাদুর্ভাব আর বাড়তে না পারে।’

হজের নামে প্রতারণার শিকার ৩০০, ব্যবস্থা নিতে এসবি-ডিজিএফআইকে চিঠি
                                  

কোটা পূরণ হওয়ার পরও এ বছর হজে পাঠানোর নামে ৩০০ জনের কাছ থেকে টাকা হাতিয়ে নিয়েছে বেশ কয়েকটি এজেন্সি। টাকা হাতিয়ে নেওয়ার পর এজেন্সিগুলো ধর্ম মন্ত্রণালয়ে তাদের ভিসা করানোর চেষ্টা করলেও সৌদি সরকারের কোটা শেষ হওয়ায় তারা এবার হজে যেতে পারছেন না।
এ ঘটনায় আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। সোমবার (৪ জুলাই) প্রতারণার বিষয়টি তুলে ধরে তদন্ত সাপেক্ষে এজেন্সিগুলোর বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নিতে পুলিশের স্পেশাল ব্রাঞ্চ (এসবি), ডিজিএফআইসহ আইনশৃঙ্খলা বাহিনীকে চিঠি দিয়েছে মন্ত্রণালয়।
ধর্ম মন্ত্রণালয়ের হজ-১ শাখার উপসচিব আবুল কাশেম মুহাম্মদ শাহীনের পাঠানো ওই চিঠিতে বলা হয়েছে, বারবার সতর্ক করার পরও প্রায় ৩০০ (এখন পর্যন্ত পাওয়া খবর অনুযায়ী) হজযাত্রীর সঙ্গে প্রতারণার উদ্দেশ্যে একটি অসাধু চক্র, ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে অনিবন্ধিত বেনামি এজেন্সি (আল হেলাল এজেন্সি) এবং নিবন্ধিত এজেন্সি মারিয়া, আরবি ট্যুরস হজযাত্রীদের প্রাক-নিবন্ধন ও নিবন্ধন না করেও হজে পাঠানোর কথা বলে লাখ লাখ টাকা হাতিয়ে নিয়েছে।
প্রতারণার শিকার হওয়া ব্যক্তিরা সোমবার ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয়ে বিভিন্ন উপায়ে ভিসা সংগ্রহের জন্য অপতৎপরতা চালিয়েছেন, যা মোটেও কাম্য নয়।চিঠিতে বলা হয়েছে, সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের সব কোটা পরিপূর্ণ হওয়ার পরও কতিপয় অসাধু চক্রের এমন অপতৎপরতা সুষ্ঠু হজ ব্যবস্থাপনা ও সরকারের ভাবমূর্তির জন্য হানিকর।
এ বিষয়ে সংশ্লিষ্টদের অবগত করে সতর্ক করা হলো। অসাধু চক্র/এজেন্সির বিরুদ্ধে হজ ও ওমরাহ ব্যবস্থাপনা আইন, ২০২১ ও দেশে প্রচলিত অন্যান্য সংশ্লিষ্ট আইন অনুযায়ী ব্যবস্থা গ্রহণে ধর্ম বিষয়ক মন্ত্রণালয় বদ্ধ পরিকর। এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় প্রয়োজনীয় প্রশাসনিক ব্যবস্থা গ্রহণ করবে।
এবার বাংলাদেশ প্রথম দফায় থেকে ৫৭ হাজার ৫৮৫ জনকে হজে যাওয়ার সুযোগ দেয় সৌদি সরকার। জুলাইয়ে দ্বিতীয় দফায় অতিরিক্ত ২ হাজার ৪১৫ জন অতিরিক্ত পাঠানোর কোটা মঞ্জুর করে দেশটি।

আফগানিস্তানে জরুরি সহায়তা পাঠাল বাংলাদেশ
                                  

ভূমিকম্প বিধ্বস্ত আফগানিস্তানে মানবিক সহায়তা পাঠিয়েছে সরকার। মঙ্গলবার (৪ জুলাই) আফগান সরকারের কাছে উল্লেখযোগ্য পরিমাণে শুকনো খাবার (বিস্কুট, নুডলস, গুঁড়ো দুধ), কম্বল, তাঁবু ও ওষুধ সামগ্রী পাঠানো হয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সার্বিক তত্ত্বাবধানে সশস্ত্র বাহিনীর সক্রিয় অংশগ্রহণ ও সহযোগিতায় এই ত্রাণ সামগ্রী পাঠানো হয়েছে। বিমানবাহিনীর বিশেষ বিমান সি-১৩০জে যোগে এসব ত্রাণ সামগ্রী আফগানিস্তানে পৌঁছানো হয়েছে।
পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানায়, ভূমিকম্প সৃষ্ট আকস্মিক এ দুর্যোগ মোকাবিলায় আফগানিস্তানের সাধারণ জনগণের জন্য পাঠানো ত্রাণসামগ্রী সশস্ত্র বাহিনী বিভাগ, রাষ্ট্রীয় মালিকানাধীন প্রতিষ্ঠান এসেনশিয়াল ড্রাগস কোম্পানি লিমিটেড, বাংলাদেশ পোশাক প্রস্তুতকারক ও রপ্তানিকারক সমিতি (বিজিএমইএ), প্রাণ-আর এফ এল গ্রুপ, আকিজ ফুড অ্যান্ড বেভারেজ লিমিটেড থেকে অনুদান হিসেবে সংগ্রহ করা হয়েছে।
মন্ত্রণালয় বলছে, আফগানিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের ঐতিহাসিক সম্পর্ক বিদ্যমান। ১৯৭১ সালে মুক্তিযুদ্ধের সময় পাকিস্তানে আটকে পড়া বাংলাদেশিদের নিরাপদে গমনাগমনের বিষয়ে তৎকালীন আফগান সরকার ও সাধারণ জনগণ বিশেষ সহায়তা দিয়েছিল। সম্পর্কের এ ঐতিহাসিক যোগসূত্র ও প্রধানমন্ত্রীর সমন্বিত উন্নয়নের নীতির ভিত্তিতে, সাম্প্রতিককালে আফগানিস্তানে রাজনৈতিক পট পরিবর্তনের ফলে সৃষ্ট সংকট মোকাবিলায় আফগানিস্তানের সাধারণ জনগণকে সহায়তার জন্য ইতোমধ্যে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সংশ্লিষ্ট বাজেট থেকে এক কোটি টাকা জাতিসংঘের অঙ্গসংস্থা ইউএনওসিএইচএর তহবিলে পাঠানো হয়েছে।

ঈদে ১ লাখ টন চাল বরাদ্দ
                                  

পবিত্র ঈদুল আজহা উপলক্ষে সারা দেশের দুঃস্থ ও দরিদ্রদের সহায়তায় এক লাখ ৩৩০ টন ৫৪০ কেজি ভিজিএফ চাল বরাদ্দ দিয়েছে সরকার। রোববার দুর্যোগ ব্যবস্থাপনা ও ত্রাণ মন্ত্রণালয় থেকে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়েছে।
সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, সারা দেশের ৬৪টি জেলার ৪৯২টি উপজেলার জন্য ৮৭ লাখ ৭৯ হাজার ২০৩টি ভিজিএফ কার্ডের বিপরীতে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে। ৩২৯টি পৌরসভার জন্য ১২ লাখ ৫৩ হাজার ৮৫১টি ভিজিএফ কার্ডের বিপরীতে চাল বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে।
দুঃস্থ, অতিদরিদ্র ব্যক্তি বা পরিবারকে এ সহায়তা দিতে বলা হয়েছে। তবে সাম্প্রতিক প্রাকৃতিক দুর্যোগে ক্ষতিগ্রস্ত দুঃস্থ ও অতিদরিদ্র পরিবারকে অগ্রাধিকার দিতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।
আগামী ১০ জুলাই দেশে মুসলমানদের দ্বিতীয় বৃহত্তম  ধর্মীয় উৎসব ঈদুল আজহা উদযাপিত হবে।

ফের শাহজালালে ২ বিমানের সংঘর্ষ
                                  

বিমান বাংলাদেশ এয়ারলাইন্সের দুই বিমানে মধ্যে আবারো সংঘর্ষ হয়েছে। এতে বিমানের বোয়িং-৭৮৭ এবং বোয়িং-৭৩৭ এর ডানা ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।
রোববার রাতে ঢাকার হযরত শাহজালাল আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে বোয়িং ৭৮৭ ড্রিমলাইনারের ডানায় (উইং) বিমানেরই আরেকটি ৭৩৭ উড়োজাহাজের ডানা আঘাত করে।
জানা গেছে, বিমান দুটির মধ্যে একটি আগে থেকেই পার্ক করা অবস্থায় ছিল। অন্যটি যাত্রী নামিয়ে পার্কিংয়ের দিকে আসছিল। তখনই সংঘর্ষ হয়। তবে এতে কোনো হতাহতের ঘটনা ঘটেনি।
এ প্রসঙ্গে বিমানের মহাব্যবস্থাপক (জনসংযোগ) তাহেরা খন্দকার গণমাধ্যমকে বলেন, বিমানের প্রকৌশল বিভাগের একটি দল ঘটনাস্থল পরির্দশন করেছে। তবে দুর্ঘটনার কারণ, ক্ষতির পরিমাণ তদন্ত হওয়ার পর জানা যাবে।
এর আগে গত ১০ এপ্রিল বিমানবন্দরের হ্যাঙ্গারে বিমানের একটি বোয়িংয়ের আরেকটি বোয়িংয়ের সাথে ধাক্কা লাগলে দুটো বিমান কিছু দিনের জন্য বসে যায়। সে ঘটনায় গত ১১ মে বিমানের মুখ্য (প্রিন্সিপাল) প্রকৌশলীসহ পাঁচজনকে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়।

শ্রমিকদের বেতন-বোনাস ৭ জুলাইয়ের মধ্যে পরিশোধের নির্দেশ
                                  

আসন্ন পবিত্র ঈদুল আজহার ছুটির আগে ৭ জুলাইয়ের মধ্যে গার্মেন্টসসহ সকল সেক্টরের শ্রমিকদের বেতন-বোনাস পরিশোধের জন্য মালিকদের নির্দেশ দিয়েছেন শ্রম ও কর্মসংস্থান প্রতিমন্ত্রী বেগম মন্নুজান সুফিয়ান।
গত ২৮ জুন রাজধানীর বিজয়নগরে শ্রম ভবনের সম্মেলন কক্ষে শ্রম প্রতিমন্ত্রীর সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত মন্ত্রণালয়ের আরএমজি বিষয়ক ত্রিপক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ-টিসিসি এবং ২৯ জুন জাতীয় ত্রিপক্ষীয় পরামর্শ পরিষদ-টিসিসি সভার সিদ্ধান্ত মোতাবেক রোববার এক বিবৃতিতে শ্রম প্রতিমন্ত্রী এ নির্দেশ দেন।
বিবৃতিতে প্রতিমন্ত্রী বলেন, দুটি সভায় সিদ্ধান্ত হয়েছে গার্মেন্টসসহ রাষ্ট্রায়ত্ত, বেসরকারি, প্রাতিষ্ঠানিক-অপ্রাতিষ্ঠানিক সকল খাতের শ্রমিকদের ঈদুল আজহার বোনাস, জুন মাসের বেতন এবং যদি কোনো শ্রমিকের কোনো মাসের বেতন-ভাতা বকেয়া থাকে তাও ঈদের ছুটির আগে ৭ জুলাইয়ের মধ্যেই মালিকরা প্রদান করবেন।
সভায় সিদ্ধান্ত হয় ঈদের ছুটি সরকারি ছুটির সাথে মিলিয়ে মালিক-শ্রমিক আলোচনার মাধ্যমে মালিকরা শ্রমিকদের ছুটি নির্ধারণ করবেন। তবে জরুরি রফতানির প্রয়োজনে শ্রমিকদের সাথে আলোচনা সাপেক্ষে ছুটি সুবিধামতো প্রদান করতে পারবেন। সবাই যাতে ভালোভাবে ঈদ উদযাপনে করতে পারে সেজন্য তিনি মালিক-শ্রমিক সকলের সহযোগিতা কামনা করেন এবং সবাইকে অগ্রীম ঈদুল আজহার শুভেচ্ছা জানান।

মঙ্গলবার শপথ নেবেন কুসিক মেয়র রিফাত
                                  

কুমিল্লা সিটি কর্পোরেশনের (কুসিক) নবনির্বাচিত মেয়র আরফানুল হক রিফাত মঙ্গলবার (৫ জুলাই) বেলা ১১টায় শপথ নেবেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা তাকে শপথ বাক্য পাঠ করাবেন।
স্থানীয় সরকার বিভাগের সিটি কর্পোরেশন শাখার উপসচিব মোহাম্মদ শামছুল ইসলামের সই করা এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়
চিঠিতে বলা হয়, আগামীকাল (মঙ্গলবার) বেলা ১১টায় ঢাকার ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে ভার্চুয়ালি আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে কুসিকের নবনির্বাচিত মেয়র শপথ নেবেন। অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথি হিসেবে গণভবন থেকে ভার্চুয়ালি অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।
কুসিকের প্রধান নির্বাহী শফিকুল ইসলাম জানান, মঙ্গলবার ১১টায় ওসমানী স্মৃতি মিলনায়তনে শপথগ্রহণ হবে। স্থানীয় সরকার বিভাগের সিটি কর্পোরেশন শাখা-১ এর উপসচিব শামসুল ইসলাম আমাকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
গত ১৫ জুন অনুষ্ঠিত নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী আরফানুল হক রিফাত প্রথমবারের মতো কুসিকের মেয়র নির্বাচিত হন।
কুসিকে মেয়র ছাড়াও ২৭ জন ওয়ার্ড কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত আসনে নয়জন মহিলা কাউন্সিলর রয়েছেন।

টুঙ্গিপাড়া পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
                                  

প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ের প্রেস উইং সূত্র জানিয়েছে বেলা সাড়ে ১১টার দিকে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় পৌঁছান প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।সোমবার সকাল ৮টার দিকে প্রধানমন্ত্রী তার সরকারি বাসভবন গণভবন থেকে টুঙ্গিপাড়ার উদ্দেশে যাত্রা শুরু করেন। ছেলে সজীব ওয়াজেদ জয় ও মেয়ে সায়মা ওয়াজেদ পুতুলও রয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার সঙ্গে।  সকাল ৮টা ৪৮ মিনিটে মাওয়া টোল প্লাজায় পদ্মা সেতুর টোল দিয়ে সেতুতে ওঠেন শেখ হাসিনা।  সকাল সোয়া ৯টার দিকে তিনি জাজিরা প্রান্তে যান এবং সেখানে ফলকের সামনে কিছু সময় দাঁড়ান। এরপর কিছু সময় বিশ্রাম নেন জাজিরা প্রান্তের সার্ভিস এরিয়া-২ এ।
টুঙ্গিপাড়ায় জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধে পুষ্পস্তবক অর্পণ, সুরা ফাতেহা পাঠ ও মোনাজাতে অংশ নেবেন প্রধানমন্ত্রী। পরে টুঙ্গিপাড়ায় বিভিন্ন সরকারি কর্মসূচিতে অংশ নিয়ে ঢাকায় ফিরে আসার কথা রয়েছে তার।

রাজধানীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ৪৬, মামলা ৩৮
                                  

রাজধানীর বিভিন্ন এলাকায় মাদকবিরোধী অভিযান পরিচালনা করেছে ঢাকা মেট্রোপলিটন পুলিশের (ডিএমপি) বিভিন্ন অপরাধ ও গোয়েন্দা বিভাগ। অভিযানে মাদক বিক্রি ও সেবনের অভিযোগে ৪৬ জনকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। জব্দ করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ মাদক।
সোমবার (৪ জুলাই) সকালে ডিএমপির মিডিয়া অ্যান্ড পাবলিক রিলেশনস বিভাগ থেকে এ তথ্য নিশ্চিত করা হয়েছে।
ডিএমপির পক্ষ থেকে বলা হয়, ডিএমপির নিয়মিত মাদক বিরোধী অভিযানের অংশ হিসেবে রোববার (৩ জুলাই) সকাল ছয়টা থেকে আজ সকাল ছয়টা পর্যন্ত রাজধানীর বিভিন্ন থানা এলাকায় অভিযান চালিয়ে তাদেরকে গ্রেপ্তার করা হয়।
গ্রেপ্তারের সময় তাদের কাছ থেকে ৩ হাজার ১১২ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট, ৬২ কেজি ৩০ গ্রাম গাঁজা ও ৬ গ্রাম হেরোইন জব্দ করা হয়
গ্রেপ্তারদের বিরুদ্ধে সংশ্লিষ্ট থানায় মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ আইনে ৩৮টি মামলা রুজু করা হয়ে বলেও জানানো হয়েছে।

২৭ জুলাইয়ের ইউপি-পৌর ভোটে প্রচারণা শুরু শুক্রবার থেকে
                                  

স্থানীয় সরকারের ইউনিয়ন পরিষদ ও পৌরসভার ভোট আগামী ২৭ জুলাই অনুষ্ঠিত হবে বলে জানিয়েছে নির্বাচন কমিশন (ইসি) । এদিন ২৩ ইউপি ও ৩ পৌরসভার ভোট অনুষ্ঠিত হবে। এ নির্বাচনে ৮ জুলাই (শুক্রবার) থেকে ২৫ জুলাই পর্যন্ত প্রার্থীরা প্রচার-প্রচারণা চালাতে পারবেন।
ইসি জানায়, স্থানীয় সরকারের এ নির্বাচনগুলোতে প্রার্থিতা প্রত্যাহারে শেষ দিন হচ্ছে ৭ জুলাই, প্রতীক বরাদ্দ ৮ জুলাই। অর্থাৎ ৮ জুলাই থেকে প্রার্থীরা প্রচারে নামতে পারবেন।
ইসি আরও জানায়, স্থানীয় সরকার নির্বাচন আইন অনুযায়ী, প্রচার বন্ধ করতে হবে ভোট শুরুর ৩২ ঘণ্টা আগে। এসব নির্বাচনের ভোট শুরু হবে আগামী ২৭ জুলাই সকাল ৮টায়। সকাল ৮টার থেকে ৩২ ঘণ্টা পূর্ব বলতে বোঝায় ২৫ জুলাই রাত ১২টা পর্যন্ত।
অর্থাৎ এরপর আর প্রচার চালানো যাবে না। এ ক্ষেত্রে প্রার্থীরা আগামী ৮ জুলাই থেকে প্রচার চালাতে পারবেন ২৫ জুলাই মধ্যরাত ১২টা পর্যন্ত, মোট ১৮ দিন। প্রচারের সময় শেষ হওয়ার পর থেকে ফলাফল গেজেট আকারে প্রকাশ করা পর্যন্ত কোনো ধরণের মিছিল, মশাল মিছিল, আনন্দ মিছিল, বাইক মিছিল, শোভাযাত্রা বা র‌্যালি করা যাবে না।


   Page 1 of 174
     জাতীয়
ডিজিটাল নিরাপত্তা আইনের মামলায় জামিন পেলেন নবীনগরের দুই সাংবাদিক
.............................................................................................
ঢাবির ‘ঘ’ ইউনিটের ফল প্রকাশ, পাসের হার ৮.৫৮ শতাংশ
.............................................................................................
মোটরসাইকেলে বিধিনিষেধে ‘ষড়যন্ত্র’ দেখছেন চালক-যাত্রীরা
.............................................................................................
টিকিটযুদ্ধ শেষ, প্রথম দিনেই শিডিউল বিপর্যয়
.............................................................................................
গরুর চামড়ায় ৭, খাসিতে ৩ টাকা বাড়িয়ে দাম নির্ধারণ
.............................................................................................
কুমিল্লা সিটির মেয়র হিসেবে শপথ নিলেন রিফাত
.............................................................................................
অনেক দেশেই এখন বিদ্যুতের জন্য হাহাকার: প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
হজের নামে প্রতারণার শিকার ৩০০, ব্যবস্থা নিতে এসবি-ডিজিএফআইকে চিঠি
.............................................................................................
আফগানিস্তানে জরুরি সহায়তা পাঠাল বাংলাদেশ
.............................................................................................
ঈদে ১ লাখ টন চাল বরাদ্দ
.............................................................................................
ফের শাহজালালে ২ বিমানের সংঘর্ষ
.............................................................................................
শ্রমিকদের বেতন-বোনাস ৭ জুলাইয়ের মধ্যে পরিশোধের নির্দেশ
.............................................................................................
মঙ্গলবার শপথ নেবেন কুসিক মেয়র রিফাত
.............................................................................................
টুঙ্গিপাড়া পৌঁছেছেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
রাজধানীতে পুলিশের অভিযানে গ্রেপ্তার ৪৬, মামলা ৩৮
.............................................................................................
২৭ জুলাইয়ের ইউপি-পৌর ভোটে প্রচারণা শুরু শুক্রবার থেকে
.............................................................................................
কোরবানির পশুর হাটে থাকবে নিশ্ছিদ্র নিরাপত্তা বলয়
.............................................................................................
৪৮ ঘণ্টা অপেক্ষার পর মিলেছে ট্রেনের টিকিট
.............................................................................................
পদ্মা সেতু হয়ে টুঙ্গিপাড়ার পথে প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
ভারতে বন্যা ও ভূমিধসে ২৫ জনের মৃত্যু, ৪০ জন নিঁখোজ
.............................................................................................
৩ মাসের মধ্যে ভারতে পুনরায় প্রবেশ নিয়ে খবর ভিত্তিহীন
.............................................................................................
নড়াইলে অধ্যক্ষ লাঞ্ছিত: ২ কমিটির একটির রিপোর্ট জমা
.............................................................................................
নারায়ণগঞ্জে শিক্ষকের পিটুনিতে আইসিইউতে ২ স্কুলছাত্রী
.............................................................................................
রোহিঙ্গা ক্যাম্পে হু হু করে বাড়ছে ডেঙ্গুরোগী
.............................................................................................
প্রধানমন্ত্রীর অনুশাসনসহ সব নির্দেশ অকার্যকর
.............................................................................................
রপ্তানি বৃদ্ধির মাধ্যমে কৃষিকে আরও উন্নত করতে চাই: কৃষিমন্ত্রী
.............................................................................................
ভারী বৃষ্টি হলেই বিপদে পড়বে ঢাকা
.............................................................................................
৫৩৩৬৭ হজযাত্রী সৌদি আরব পৌঁছেছেন
.............................................................................................
কাউন্টারের টিকিট পেতে ধীরগতি, অনলাইনেও ‘যুদ্ধ’
.............................................................................................
রাজধানীতে গ্রেফতার ৫০
.............................................................................................
মনজিলের চাপায় প্রাণ গেল যুবকের
.............................................................................................
মাঙ্কিপক্স বিষয়ে ইউরোপে ‘জরুরি’ পদক্ষেপের আহ্বান ডব্লিউএইচও’র
.............................................................................................
কমলাপুরে দ্বিতীয় দিনও উপচেপড়া ভিড়
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু টানেল দিয়ে ৩০ মিনিটে আনোয়ারা থেকে বিমানবন্দর
.............................................................................................
৩ মাস পর আবারও ভার্চুয়াল পদ্ধতিতে হবে মন্ত্রিসভা বৈঠক
.............................................................................................
সৌদি আরব পৌঁছেছেন ৫০২১৮ জন হজযাত্রী
.............................................................................................
ঈদের আগেই চড়া মসলার বাজার
.............................................................................................
মুকুল বোসের মৃত্যুতে প্রধানমন্ত্রীর শোক
.............................................................................................
২০ ঘণ্টা অপেক্ষা শেষে টিকিট পেয়ে খুশি মনা আফরোজ
.............................................................................................
যুগ্মসচিব পদে ৮২ কর্মকর্তার পদোন্নতি
.............................................................................................
মালয়েশিয়া যেতে ইচ্ছুক কর্মীদের সতর্ক করলো সরকার
.............................................................................................
‘কথায় কথায় চিকিৎসা নিতে দৌড়ে বিদেশে যাওয়া যাবে না’
.............................................................................................
শার্টের ভেতর বিশেষ কায়দায় লুকানো ছিল ২২ লাখ রিয়াল, পালিয়েছেন যাত্রী
.............................................................................................
৬ লাখ ৭৮ হাজার ৬৪ কোটি টাকার বাজেট পাস হচ্ছে আজ
.............................................................................................
বিমানবন্দরে ৬ কোটি টাকার বিদেশি মুদ্রা রেখে মালিক উধাও
.............................................................................................
পদ্মা সেতুতে নাশকতা চেষ্টাকারী গ্রেপ্তার
.............................................................................................
চাঁদ দেখা কমিটির বৈঠক সন্ধ্যায়
.............................................................................................
কোরবানির বাজারে পশুখাদ্যের দামের প্রভাব
.............................................................................................
দুর্যোগে ধানের ক্ষতি, চালের বাজার ঠিক রাখতে তৎপর সরকার
.............................................................................................
চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী হিসাবে জনপ্রিয়তার শীর্ষে এম. আলাউদ্দিন
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com    
Dynamic SOlution IT Dynamic POS | Super Shop | Dealer Ship | Show Room Software | Trading Software | Inventory Management Software Computer | Mobile | Electronics Item Software Accounts,HR & Payroll Software Hospital | Clinic Management Software Dynamic Scale BD Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale Digital Load Cell Digital Indicator Digital Score Board Junction Box | Chequer Plate | Girder Digital Scale | Digital Floor Scale