ঢাকা,শুক্রবার,৩১০ ভাদ্র ১৪২৮,১৪,মে,২০২১
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * বাংলাদেশ বন্ধু সমাজকে জাতীয় করনে দাবী এফ. আহমেদ খান রাজীব   * ৬ মিনিটেই শেষ পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান   * অবশেষে খালেদার সঠিক জন্মদিন প্রকাশ পেল : কাদের   * বিদেশিদের হজের অনুমতি বিষয়ে আলোচনা চলছে: সৌদি   * ৫২ দিন পর হাসপাতাল থেকে বাসায় ফিরলেন রিজভী   * বাংলাদেশের পরিস্থিতি ভারতের চেয়ে ভয়াবহ হতে পারে   * এক ফেরিতে পার হলো ৩০০০ যাত্রী   * ঢাকা-আরিচা মহাসড়কে গাড়িচাপায় নিহত ২   * চারদিন পর ভারতে করোনা শনাক্ত ৪ লাখের নিচে   * চীনের উপহারের ৫ লাখ টিকা দেশে পৌঁছাবে ১২ মে  

   আর্ন্তজাতিক -
                                                                                                                                                                                                                                                                                                                                 
৬ মিনিটেই শেষ পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান

শপথ নিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় নির্বাচিত মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা। আজ সোমবার (১০ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজভবনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শুরু হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি গত সপ্তাহের বুধবার শপথ নিয়েছেন। আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন জানিয়েছে, মহামারি করোনাভাইরাসের উর্ধ্বমুখী সংক্রমণের কারণে স্বল্প সময়ে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়েছে। প্রথমে একসঙ্গে শপথ নিয়েছেন সকল পূর্ণমন্ত্রীরা। এরপর একসঙ্গে শপথ নেন স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রীরা এবং সবশেষে শপথ নেন প্রতিমন্ত্রীরা। এ সময় কয়েকজন মন্ত্রী শপথ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। মাত্র ৬ মিনিটের মধ্যে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়েছে। জানা গেছে, এবার মোট ৪৩ জন মন্ত্রী শপথ নিয়েছেন। এর মধ্যে পূর্ণমন্ত্রী ২৪ জন। বাকি ১৯ জন প্রতিমন্ত্রীর মধ্যে ১০ জন পাচ্ছেন স্বাধীন দফতর। যে তালিকা পাঠানো হয়েছে তাতে ১৭ জন নতুন মুখ রয়েছে মমতার মন্ত্রিসভার পূর্ণ মন্ত্রীরা হলেন- ১. উজ্জ্বল বিশ্বাস, ২. পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ৩. অমিত মিত্র, ৪. বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা, ৫. জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, ৬. সাধন পাণ্ডে , ৭. মানসরঞ্জন ভুঁইয়া, ৮. শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় , ৯. মলয় ঘটক, ১০. অরূপ বিশ্বাস, ১১. সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ১২. অরূপ রায়, ১৩. রথীন ঘোষ, ১৪. ফিরহাদ হাকিম, ১৫. চন্দ্রনাথ সিংহ, ১৬. সৌমেন মহাপাত্র, ১৭. ব্রাত্য বসু, ১৮. পুলক রায়, ১৯. বিপ্লব মিত্র, ২০. গোলাম রব্বানি, ২১. শশী পাঁজা, ২২. জাভেদ আহমেদ খান, ২৩. স্বপন দেবনাথ, ২৪. সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী- ২৫. সুব্রত সাহা, ২৬. বেচারাম মান্না, ২৭. অখিল গিরি , ২৮. হুমায়ুন কবীর, ২৯. চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, ৩০. সন্ধ্যারাণী টুডু , ৩১. রত্না দে নাগ, ৩২. বুলুচিক বরাইক, ৩৩. সুজিত বসু, ৩৪. ইন্দ্রনীল সেন প্রতিমন্ত্রী- ৩৫. দিলীপ মণ্ডল, ৩৬. আক্রুজ্জমান, ৩৭. শিউলি সাহা, ৩৮. শ্রীকান্ত মাহাত, ৩৯. সবিনা ইয়াসমিন, ৪০. বীরবাহা হাঁসদা, ৪১. জ্যোৎস্না মান্ডি, ৪২. পরেশচন্দ্র অধিকারী, ৪৩. মনোজ তিওয়ারি।

৬ মিনিটেই শেষ পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান
                                  

শপথ নিয়েছেন পশ্চিমবঙ্গের বিধানসভায় নির্বাচিত মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রীরা। আজ সোমবার (১০ মে) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে রাজভবনে শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান শুরু হয়। উপস্থিত ছিলেন রাজ্য মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দোপাধ্যায়। তিনি গত সপ্তাহের বুধবার শপথ নিয়েছেন। আনন্দবাজার পত্রিকা অনলাইন জানিয়েছে, মহামারি করোনাভাইরাসের উর্ধ্বমুখী সংক্রমণের কারণে স্বল্প সময়ে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়েছে। প্রথমে একসঙ্গে শপথ নিয়েছেন সকল পূর্ণমন্ত্রীরা। এরপর একসঙ্গে শপথ নেন স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রীরা এবং সবশেষে শপথ নেন প্রতিমন্ত্রীরা। এ সময় কয়েকজন মন্ত্রী শপথ অনুষ্ঠানে ভার্চুয়ালি যুক্ত হন। মাত্র ৬ মিনিটের মধ্যে অনুষ্ঠান শেষ করা হয়েছে। জানা গেছে, এবার মোট ৪৩ জন মন্ত্রী শপথ নিয়েছেন। এর মধ্যে পূর্ণমন্ত্রী ২৪ জন। বাকি ১৯ জন প্রতিমন্ত্রীর মধ্যে ১০ জন পাচ্ছেন স্বাধীন দফতর। যে তালিকা পাঠানো হয়েছে তাতে ১৭ জন নতুন মুখ রয়েছে মমতার মন্ত্রিসভার পূর্ণ মন্ত্রীরা হলেন- ১. উজ্জ্বল বিশ্বাস, ২. পার্থ চট্টোপাধ্যায়, ৩. অমিত মিত্র, ৪. বঙ্কিমচন্দ্র হাজরা, ৫. জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক, ৬. সাধন পাণ্ডে , ৭. মানসরঞ্জন ভুঁইয়া, ৮. শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় , ৯. মলয় ঘটক, ১০. অরূপ বিশ্বাস, ১১. সুব্রত মুখোপাধ্যায়, ১২. অরূপ রায়, ১৩. রথীন ঘোষ, ১৪. ফিরহাদ হাকিম, ১৫. চন্দ্রনাথ সিংহ, ১৬. সৌমেন মহাপাত্র, ১৭. ব্রাত্য বসু, ১৮. পুলক রায়, ১৯. বিপ্লব মিত্র, ২০. গোলাম রব্বানি, ২১. শশী পাঁজা, ২২. জাভেদ আহমেদ খান, ২৩. স্বপন দেবনাথ, ২৪. সিদ্দিকুল্লাহ চৌধুরী। স্বাধীন দায়িত্বপ্রাপ্ত প্রতিমন্ত্রী- ২৫. সুব্রত সাহা, ২৬. বেচারাম মান্না, ২৭. অখিল গিরি , ২৮. হুমায়ুন কবীর, ২৯. চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য, ৩০. সন্ধ্যারাণী টুডু , ৩১. রত্না দে নাগ, ৩২. বুলুচিক বরাইক, ৩৩. সুজিত বসু, ৩৪. ইন্দ্রনীল সেন প্রতিমন্ত্রী- ৩৫. দিলীপ মণ্ডল, ৩৬. আক্রুজ্জমান, ৩৭. শিউলি সাহা, ৩৮. শ্রীকান্ত মাহাত, ৩৯. সবিনা ইয়াসমিন, ৪০. বীরবাহা হাঁসদা, ৪১. জ্যোৎস্না মান্ডি, ৪২. পরেশচন্দ্র অধিকারী, ৪৩. মনোজ তিওয়ারি।

বিদেশিদের হজের অনুমতি বিষয়ে আলোচনা চলছে: সৌদি
                                  

করোনাভাইরাস মহামারি শুরুর পর থেকে বিদেশিদের জন্য হজপালন বন্ধ রেখেছে সৌদি আরব। কিন্তু এ বছর সেই বিধিনিষেধ তুলে নেয়া হবে কি না সে বিষয়ে আলোচনা শুরু হয়েছে বলে জানিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। সোমবার আরব নিউজের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে। রোববার সৌদির হজ ও ওমরাহ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, তাদের আলোচনায় অল্প কিছু বিদেশি হজযাত্রীকে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে প্রবেশের অনুমতি দেয়ার প্রসঙ্গও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। মন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে বলা হয়েছে, অতিথিদের হজ ও ওমরাহ পালনে সৌদি আরবের সুদৃঢ় আগ্রহের ভিত্তিতে এই সিদ্ধান্ত নেয়া হয়েছে। তবে সৌদি আরব মানুষের স্বাস্থ্য এবং সুরক্ষাকে অগ্রাধিকার দেয় বলে জানিয়েছে তারা। চলতি বছর ১৭ জুলাই থেকে পবিত্র হজ শুরু হবে বলে আশা করা হচ্ছে। আরব নিউজ জানিয়েছে, বিশ্বের করোনা পরিস্থিতিতে নজর রেখেছে সৌদির স্বাস্থ্য কর্তৃপক্ষ। পর্যাপ্ত সুরক্ষাবিধি ও মানদণ্ড অনুসরণ করে এ বিষয়ে বিস্তারিত শর্তাদি নির্ধারণ করবে তারা। স্থানীয় বাসিন্দাদের স্বাস্থ্য ও সুরক্ষা নিশ্চিত করতে প্রায় ৫০ লাখ নিরীক্ষণ চালিয়েছে সৌদি কর্তৃপক্ষ। দেশটির হজ মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, এবারের মৌসুমে তাদের প্রত্যক্ষ ও পরোক্ষ সব কর্মীকে অবশ্যই টিকা নিতে হবে। গত বছর করোনা সংক্রমণের কারণে কঠোর স্বাস্থ্যবিধি মেনে মাত্র এক হাজারের মতো স্থানীয় বাসিন্দাকে হজের অনুমতি দিয়েছিল সৌদি কর্তৃপক্ষ। এটি থেকে পাওয়া শিক্ষার ভিত্তিতে কিছুদিন পরেই বিদেশিদের জন্য ওমরাহ পালনের দরজা খুলে দেয় তারা।  করোনাভাইরাস মহামারির আগে প্রতি বছর বিশ্বের বিভিন্ন প্রান্ত থেকে অন্তত ২৫ লাখ ধর্মপ্রাণ মুসলিম হজ করতে মক্কা-মদিনায় যেতেন। হজ ও ওমরাহ থেকে বার্ষিক প্রায় ১ হাজার ২ কোটি ডলার আয় হতো সৌদি সরকারের। কিন্তু করোনাভাইরাস সংক্রমণের কারণে গত বছর শুধু কয়েক হাজার স্থানীয়কে হজের অনুমতি দেয় দেশটি। সৌদি যুবরাজ মোহাম্মদ বিন সালমানের অর্থনৈতিক সংস্কার পরিকল্পনার অংশ হিসেবে ২০২০ সালের মধ্যে ওমরাহ ও হজযাত্রীর সংখ্যা যথাক্রমে দেড় কোটি ও ৫০ লাখ বাড়ানোর লক্ষ্য নিয়েছিল দেশটি। ২০৩০ সালের মধ্যে ওমরাহ পালনকারীর সংখ্যা দ্বিগুণ বাড়িয়ে তিন কোটিতে নেয়ার লক্ষ্য তাদের। ২০৩০ সালের মধ্যে শুধু হজ থেকেই ৫০ বিলিয়ন রিয়াল আয় করতে চায় সৌদি আরব।

চারদিন পর ভারতে করোনা শনাক্ত ৪ লাখের নিচে
                                  

গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন আরও ৩ হাজার ৭৫৪ জন। এ সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৩ লাখ ৬৬ হাজার ১৬১ জনের। এর ফলে দেশটিতে টানা চারদিন পর করোনা শনাক্ত ৪ লাখের নিচে নামল। টানা তিনদিন পর করোনায় মৃত্যু নেমেছে চার হাজারের নিচে। সোমবার সকালে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে আনন্দবাজার পত্রিকা এসব তথ্য জানিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় মৃত্যুর ফলে করোনায় দেশটিতে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ২ লাখ ৪৬ হাজার ১১৬ জনে। আক্রান্ত শনাক্তের মোট সংখ্যা দাঁড়াল ২ কোটি ২৬ লাখ ৬২ হাজার ৫৭৫ জনে। দেশটিতে ৩০ এপ্রিল প্রথমবারের মতো শনাক্তের সংখ্যা ৪ লাখের ওপরে যায়। এরপর শনাক্ত কিছুটা কমে আসলেও গত ৪ দিনে টানা চার লাখের বেশি ছিল। এছাড়া বিশ্বের তৃতীয় দেশ হিসেবে ভারতে গত ৭ মে করোনায় একদিনে চার হাজার মৃত্যু হয়। এর আগে কেবল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে একদিনে এত বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছিলেন। তবে ভারতে একদিনে নমুনা পরীক্ষা এবং টিকাদানও কমেছে। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে মোট ১৪ লাখ ৭৪ হাজার ৬০৬ জনের নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এখন পর্যন্ত মোট নমুনা পরীক্ষা হয়েছে ৩০ কোটি ৩৭ লাখ ৫০ হাজার ৬০৩ জনের। অন্যদিকে, দেশটিতে আরও ৭ লাখ ৩৬ হাজার ৯৪০ জনকে টিকা দেয়া হয়েছে। এখন পর্যন্ত ১৭ কোটি ১ লাখ ৭৬ হাজার ৬০৩ জন টিকা পেয়েছেন ভারতে।

ভারতে আজও ৪ লাখের বেশি শনাক্ত, মৃত্যুও ৪ হাজারের ওপরে
                                  

করোনায় বিপর্যস্ত ভারতে আবারও একদিনে ৪ লাখের বেশি শনাক্ত এবং ৪ হাজারের বেশি মৃত্যুর ঘটনা ঘটেছে। রোববার সকালে দেশটির স্বাস্থ্য অধিদফতরের প্রতিবেদনের বরাত দিয়ে এনডিটিভি জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ৪ লাখ ৩ হাজার ৭৩৮ জন নতুন করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে। এ নিয়ে দেশটিতে মোট করোনা রোগী শনাক্তের সংখ্যা দাঁড়াল ২ কোটি ২২ লাখে। এ সময়ে মারা গেছে ৪ হাজার ৯২। এ নিয়ে দেশটিতে মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ২ লাখ ৪২ হাজার ৩৬২ জনে। এর আগের ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে ৪ হাজার ১৮৭ জনের মৃত্যু হয়। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয় ৪ লাখ ১ হাজার ৫২২ জনের। ওয়ার্ল্ডোমিটারের হিসাব অনুসারে, করোনায় একদিনে চার হাজারের বেশি মৃত্যু দেখা তৃতীয় দেশ ভারত। এর আগে কেবল যুক্তরাষ্ট্র ও ব্রাজিলে একদিনে এত বেশি মানুষ প্রাণ হারিয়েছেন।

অবশেষে চীনের রকেটের ধ্বংসাবশেষ পড়ল মালদ্বীপের কাছে সাগরে
                                  

বিশ্বজুড়ে কয়েকদিনের শ্বাসরুদ্ধকর অপেক্ষার পর স্বস্তি মিলেছে। চাইনিজ ৫-বি রকেটের ধ্বংসাবশেষ পৃথিবীতে ফিরে এসেছে এবং তা মালদ্বীপের পাশে ভারত সাগরে পড়েছে। চীনের জাতীয় মহাকাশ সংস্থার বরাত দিয়ে ডেইলি মেইল জানিয়েছে, রোববার (৯ মে) বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে আটটার দিকে রকেটটির ধ্বংসাবশেষ মালদ্বীপের ওপর দিয়ে পৃথিবীতে পুনরায় প্রবেশ করে। এরপর সেটি ভারত সাগরে আছড়ে পড়ে। ১৮ টন ওজনের এই রকেটের টুকরোটি ছিল গত কয়েক দশকের মধ্যে বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করা সবচেয়ে ভারী মহাকাশ বর্জ্য। শুক্রবার এক টুইটে যুক্তরাষ্ট্রের অ‌্যারোস্পেস করপোরেশন জানায়, তাদের সেন্টার ফর অরবিটাল রিএন্ট্রি এবং ডেব্রিস স্টাডিজ (সিওআরডিএস)-এর সবশেষ অনুমান অনুসারে, রোববার গ্রিনিচ মিন টাইম ০৪:১৯ মিনিটের (বাংলাদেশ সময় সকাল ১০টা ১৯ মিনিট) আট ঘণ্টা আগে বা আট ঘণ্টা পরে পৃথিবীর বায়ুমণ্ডলে প্রবেশ করবে চীনের ‘লং মার্চ ৫বি’ রকেটের ধ্বংসাবশেষ। সিওআরডিএস’র অনুমানে রকেটটি পুনঃপ্রবেশের সম্ভাব্য অঞ্চল হিসেবে নিউজিল্যান্ডের নর্থ আইল্যান্ডের আশপাশের কথা বলা হয়েছে। অবশ্য পৃথিবীতে প্রবেশপথের যেকোনো জায়গায় সেটি আছড়ে পড়তে পারে বলেও জানায় তারা।অবশেষে সেটি মালদ্বীপের পাশে এসে পড়ল। চীনের জাতীয় মহাকাশ সংস্থা জানায়, রকেটটির ধ্বংসাবশেষ আছড়ে পড়ার আগেই এর বেশিরভাগ অংশ পুড়ে শেষ হয়ে যায়। এর ফলে ক্ষয়ক্ষতির পরিমাণ খুব কম হবে।

যুক্তরাজ্যের ভ্রমণ তালিকা প্রকাশ, লাল-এ বাংলাদেশ
                                  

করোনাভাইরাসের মহামারির কারণে বিশ্বের এক দেশ থেকে অন্য দেশে যাতায়াতে বিভিন্ন বিধিনিষেধ জারি করা হয়েছে। কিছু কিছু রাষ্ট্রতে গমন ও সেখান থেকে আগমনে একেবারেই নিষেধাজ্ঞা দেওয়া হয়েছে। এবার এই সংক্রান্ত একটি তালিকা প্রকাশ করেছে যুক্তরাজ্য। সেখান থেকে জানা যাবে কোনো দেশে নাগরিকরা যেতে পারছেন আর কোনো দেশে যেতে পারছেন না। জানা যায়, সংক্রমণের হার ও ঝুঁকি বিবেচনায় বিভিন্ন দেশকে ‘ট্রাফিক লাইট’ ব্যবস্থায় তিনটি ক্যাটাগরিতে তালিকাভুক্ত করেছে যুক্তরাজ্য। এর মধ্যে সবুজ তালিকায় থাকা দেশে বিনাবাধায় ভ্রমণ করা যাবে। আম্বার (হলুদাভ রঙ) তালিকাভুক্ত দেশে বাড়তি সতর্কতা মানতে হবে এবং লাল তালিকায় থাকা দেশগুলো ভ্রমণে যাওয়া প্রায় নিষিদ্ধ। গতকাল শুক্রবার (৭ মে) বহুল প্রত্যাশিত সেই সবুজ তালিকা প্রকাশ করেছে ব্রিটিশ প্রশাসন। তালিকায় রয়েছে পর্তুগাল, অস্ট্রেলিয়া, নিউজিল্যান্ড, সিঙ্গাপুর, ব্রুনেই, আইসল্যান্ড, ফারো দ্বীপপুঞ্জ, জিব্রাল্টার, ফকল্যান্ড দ্বীপপুঞ্জ, সাউথ জর্জিয়া ও সাউথ স্যান্ডউইচ দ্বীপপুঞ্জ; সেন্ট হেলেনা, অ্যাসেনশন এবং ত্রিস্তান দা কুনহা ও ইসরায়েল। আম্বার তালিকাভুক্ত দেশগুলো হলোঃ ফ্রান্স, গ্রিস, স্পেন ও ইতালিকে । অর্থাৎ, এসব দেশ ভ্রমণ করে ফিরলে অন্তত ১০ দিন কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। একই সঙ্গে তুরস্ক, মালদ্বীপ ও নেপালকে আম্বার থেকে লাল তালিকায় পাঠিয়েছে ব্রিটিশ কর্তৃপক্ষ। অর্থাৎ এই দেশগুলো ভ্রমণে একপ্রকার নিষেধাজ্ঞাই কার্যকর হচ্ছে। বাংলাদেশসহ যুক্তরাজ্যের লাল তালিকায় আগে থেকেই নাম রয়েছে ভারত, দক্ষিণ আফ্রিকা, সংযুক্ত আরব আমিরাতের মতো দেশগুলোর। আগামী ১৭ মে থেকে কার্যকর হচ্ছে নতুন ভ্রমণ নির্দেশনা। অর্থাৎ সেদিন থেকে সবুজ তালিকায় থাকা দেশগুলো ভ্রমণে যাওয়ার সুযোগ পাবেন ব্রিটিশরা।

বিক্ষোভকারীদের মরদেহ ফেরত দিতে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ সেনাদের বিরুদ্ধে
                                  

মিয়ানমারে জান্তাবিরোধী বিক্ষোভে নিহতদের মরদেহ হস্তান্তর করতে পরিবার ও স্বজনদের কাছ থেকে চার্জ হিসেবে সামরিক বাহিনী ৮৫ ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭ হাজার ১৯০ টাকা) করে নিচ্ছে বলে অভিযোগ উঠেছে। আজ সোমবার (১২ এপ্রিল) সংশ্লিষ্ট ও প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে এ খবর প্রকাশ করেছে মার্কিন গণমাধ্যম সিএনএন। রাজনৈতিক বন্দিদের পক্ষে আইনজীবী সহায়তা সহায়তা সমিতি (এএপিপি) জানিয়েছে, বিক্ষোভকারীদের বিরুদ্ধে গত শুক্রবার বাগো শহরে রাতভর অভিযান চালিয়েছে নিরাপত্তা বাহিনী। এ সময় তাদের নির্বিচার গুলিতে প্রাণ হারিয়েছেন কমপক্ষে ৮২ জন। ভুক্তভোগী পরিবার বা স্থানীয়রা নিহত সবার মরদেহ সংগ্রহ করতে পারেনি। মরদেহগুলো বেশিরভাগই নিরাপত্তা বাহিনী নিয়ে গেছে বলে অভিযোগ। বিক্ষোভকারীদের দমনে জান্তা বাহিনী বন্দুকের পাশাপাশি মেশিনগানের গুলি, গ্রেনেড এবং মর্টারের ব্যবহার করেছে। নাম প্রকাশ না করার শর্তে এক প্রত্যক্ষদর্শী সিএনএনকে জানান, শুক্রবারের অভিযানের পর থেকে অনেক বাসিন্দা আশপাশের গ্রামে পালিয়েছে। এলাকার ইন্টারনেট সংযোগও কেটে দেওয়া হয়েছে এবং নিরাপত্তা বাহিনী বাসিন্দাদের আটকে করতে এখনো অনুসন্ধান চালাচ্ছে। বাগো ইউনিভার্সিটি স্টুডেন্ট ইউনিয়নের ফেসবুক পোস্ট অনুসারে, শুক্রবারের অভিযানে যারা নিহত হয়েছেন তাদের মরদেহগুলো হস্তান্তর করতে পরিবার ও স্বজনদের কাছ থেকে ৮৫ ডলার (বাংলাদেশি মুদ্রায় ৭ হাজার ১৯০ টাকা) করে নিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। রেডিও ফ্রি এশিয়াস বার্মিজ সার্ভিসের প্রতিবেদনের সাথে এ তথ্য মিলে। তবে সিএনএন স্বাধীনভাবে এই প্রতিবেদনটি এখন পর্যন্ত যাচাই করতে পারেনি। পিপির তথ্যমতে, গত ১ ফেব্রুয়ারি জান্তা সরকার ক্ষমতা দখল করার পর থেকে মিয়ানমারে চলমান বিক্ষোভে এখন অবধি ৭০০ এর অধিক মানুষ নিহত হয়েছেন। এর মধ্যে নারী ও শিশুও আছে। বন্দি করা হয়েছে ৩ হাজারের অধিক বিক্ষোভকারীকে। আন্দোলন থামাতে জান্তা সরকার পুলিশ ও সেনাবাহিনীকে লেলিয়ে দিয়েছে। 

ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে সংক্রমণ তালিকায় দুইয়ে ভারত
                                  

করোনাভাইরাসের দ্বিতীয় ঢেউয়ে টালমাটাল ভারত। গেল কয়েকদিন ধরেই দেশটিতে প্রতিদিন সংক্রমণের রেকর্ড ছাড়িয়ে যাচ্ছে। রোববারও (১১ এপ্রিল) একদিনে দেড় লাখেরও বেশি মানুষ নতুন করে করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে বিশ্বে সংক্রমণ তালিকায় ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে তিন থেকে দুই নম্বর স্থানে উঠে এসেছে দক্ষিণ এশিয়ার বৃহৎ এই দেশটি। আর তালিকায় তিনে নেমে গেছে লাতিন আমেরিকার দেশ ব্রাজিল। সোমবার (১২ এপ্রিল) ভোরে আন্তর্জাতিক পরিসংখ্যানভিত্তিক ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটার থেকে এ তথ্য জানা গেছে। ওয়েবসাইট ওয়ার্ল্ডোমিটারের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, ভারতে এখন পর্যন্ত করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছেন ১ কোটি ৩৫ লাখ ২৫ হাজার ৩৬৪ জন। মারা গেছেন ১ লাখ ৭০ হাজার ২০৯ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ২১ লাখ ৫৩ হাজার ৬৯৯ জন। দেশটিতে সবচেয়ে ভয়াবহ পরিস্থিতির মধ্যে রয়েছে মহারাষ্ট্র। রোববার এ রাজ্যে একদিনে ৬৩ হাজার ২৯৪ জন নতুন রোগী শনাক্ত হয়েছেন। আর মারা গেছেন ৩৪৯ জন। দেশের মধ্যে প্রায় ৫২ শতাংশ রোগীই মহারাষ্ট্রের। সোমবার সকাল ৭টা থেকে মহারাষ্ট্রে এক সপ্তাহের লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। এছাড়া ছত্তিশগড়, কর্নাটক, উত্তরপ্রদেশ, কেরালা ও পশ্চিমবঙ্গের অবস্থাও ভয়াবহ। সংক্রমণ বাড়তে থাকায় বেশিরভাগ রাজ্যেই রাত্রীকালীন কারফিউ জারি করেছে প্রশাসন। নতুন বিধি-নিষেধ জারি করেছে দিল্লি সরকার। সেখানে জনসমাগমে নিষেধাজ্ঞা আনা হয়েছে। এছাড়া রেস্টুরেন্ট, থিয়েটার, গণপরিবহ, বিয়ে এবং শেষকৃত্যের মতো অনুষ্ঠানে লোকজনের অংশগ্রহণে সীমিত করার নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। এদিকে বিশ্বে সংক্রমণ-মৃত্যুর দিক থেকে এখনও শীর্ষে যুক্তরাষ্ট্র। দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনায় ৫ লাখ ৭৫ হাজার ৮১৮ জন মারা গেছেন। এছাড়া শনাক্ত হয়েছে ৩ কোটি ১৯ লাখ ১৫ হাজার ১৭৯ জনের। আর সুস্থ হয়েছেন ২ কোটি ৪৪ লাখ ৭৫ হাজার ৯৯২ জন। তালিকায় তৃতীয় স্থানে নেমে গেলেও মৃত্যুর দিক থেকে এখনও দুইয়ে রয়েছে ব্রাজিল। লাতিন আমেরিকার এই দেশটিতে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ১ কোটি ৩৪ লাখ ৮২ হাজার ২৩ জন। তাদের মধ্যে মারা গেছেন ৩ লাখ ৫৩ হাজার ১৩৭ জন। আর সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ১৮ লাখ ৩৮ হাজার ৫৬৪ জন। সংক্রমণের তালিকায় চতুর্থ স্থানে ফ্রান্স, পঞ্চম স্থানে রাশিয়া, ষষ্ঠ স্থানে যুক্তরাজ্য, সপ্তম স্থানে তুরস্ক, অষ্টম স্থানে ইতালি, নবম স্থানে স্পেন এবং দশম স্থানে রয়েছে জার্মানি। বাংলাদেশের অবস্থান ৩৩তম। বাংলাদেশ সময় সোমবার ভোর ৫টার তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বে এখন পর্যন্ত এই মহামারিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ কোটি ৬৫ লাখ ৭০ হাজার ৯০৯ জন। এখন পর্যন্ত মৃত্যু হয়েছে ২৯ লাখ ৪৮ হাজার ৮৮ জনের। কোভিড-১৯ থেকে সুস্থ হয়েছেন ১০ কোটি ৯৭ লাখ ৬০ হাজার ৫৭৫ জন। ২০১৯ সালের ডিসেম্বরে চীনের উহানে প্রথম করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়। দেশটিতে করোনায় প্রথম রোগীর মৃত্যু হয় ২০২০ সালের ৯ জানুয়ারি। ওই বছরের ১৩ জানুয়ারি চীনের বাইরে প্রথম করোনা রোগী শনাক্ত হয় থাইল্যান্ডে। পরে ধীরে ধীরে বিভিন্ন দেশে ছড়িয়ে পড়ে। করোনা প্রাদুর্ভাবের পরিপ্রেক্ষিতে গত বছরের ৩০ জানুয়ারি বৈশ্বিক স্বাস্থ্য জরুরি অবস্থা ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। গত বছরের ২ ফেব্রুয়ারি চীনের বাইরে করোনায় প্রথম কোনো রোগীর মৃত্যুর ঘটনা ঘটে ফিলিপাইনে। ওই বছরেরই ১১ মার্চ করোনাকে বৈশ্বিক মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

ভারতে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ, সোয়া লাখ শনাক্তে ফের রেকর্ড
                                  

ভারতে করোনা সংক্রমণ ভয়াবহ রূপ নিয়েছে। দেশটিতে দিন দিন বাড়ছে শনাক্তের সংখ্যা। এরই ধারাবাহিকতায় ভারতে আবারও একদিনে সোয়া লাখের বেশি করোনা রোগী শনাক্ত হলো। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশটিতে ১ লাখ ২৬ হাজার ২৬৫ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এর আগে মঙ্গলবার (৬ এপ্রিল) ১ লাখ ৭ হাজার জনের করোনা শনাক্ত হয়েছিল। করোনা সংক্রমণের দিক দিয়ে সবচেয়ে খারাপ অবস্থা বিরাজ করছে মহারাষ্ট্রে। সেখানে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫৯ হাজার ৯০৭ জনের করোনা শনাক্ত হয়। রাজ্যটিতে মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা ৫ লাখ ১ হাজার ৫৫৯ জন। সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ায় মহারাষ্ট্রে আংশিক লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। রাতে কারফিউ এবং প্রতি শুক্রবার রাত ৮টা থেকে সোমবার সকাল ৭টা পর্যন্ত কড়া লকডাউন চালু করা হয়। ভারতের কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য দফতরের পরিসংখ্যান অনুযায়ী, দেশটিতে মোট করোনা শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে হয়েছে ৯ লাখ ৫ হাজার ২১ জন। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনায় প্রাণ হারিয়েছেন ৬৮৪ জন। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গিয়েছেন ১ লাখ ৬৬ হাজার ৮৬২ জন। এছাড়া গত ২৪ ঘণ্টায় করোনা থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৫৯ হাজার ২৫৮ জন। মোট সুস্থ হয়েছেন ১ কোটি ১৮ লাখ ৫১ হাজার ৩৯৩ জন। দেশটিতে আক্রান্তের তুলনায় সুস্থতার হার অনেকটাই কম। রাজ্যগুলোর মধ্যে মুম্বাইয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ১০ হাজার ৪৪২ জন নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়। এই রাজ্যে এখন পর্যন্ত ৪ লাখ ৮৩ হাজার ৪২ জনের করোনা শনাক্ত হয়। এছাড়া প্রাণ হারান ১১ হাজার ৮৫৬ জন। অপরদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় পশ্চিমবঙ্গে নতুন করে করোনা রোগী শনাক্ত হয়েছে ২ হাজার ৩৯০ জন। এ নিয়ে রাজ্যটিতে শনাক্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ৬ লাখ ২৪ জন। এছাড়া একই সময়ে মৃত্যু হয়েছে ৮ জনের। এ নিয়ে মৃতের সংখ্যা হয়েছে ১০ হাজার ৩৬৩ জন। দিল্লিতে করোনা শনাক্ত রোগী হয়েছে ৫ হাজার ৫০৬ জন। মধ্যপ্রদেশে করোনা আক্রান্ত ৪ হাজার ৪৩ জন। উত্তরপ্রদেশে ৬ হাজার ২৩ জন করোনা রোগী শনাক্ত হয়। কর্ণাটকে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৬ হাজার ৯৭৬ জন।

করোনা রেকর্ড, মৃত্যু ৯ হাজার ছাড়াল
                                  

সারাদেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে গত ২৪ ঘণ্টায় ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এ নিয়ে মোট মৃতের সংখ্যা দাঁড়াল ৯ হাজার ৪৬ জনে। একই সময়ে করোনা শনাক্ত হয়েছে ৫ হাজার ৩৫৮ জনের। এ নিয়ে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা দাঁড়াল ৬ লাখ ১১ হাজার ২৯৫ জন। বুধবার (৩১ মার্চ) স্বাস্থ্য অধিদফতরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা স্বাক্ষরিত এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে এসব তথ্য জানানো হয়। এতে বলা হয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ২৬ হাজার ৯৩১টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়।

বিএনপি নেতাদের ‘টপ টু বটম’ পদত্যাগ করা উচিত : কাদের
                                  

বিএনপি নেতাদের ‘টপ টু বটম’ দল থেকে পদত্যাগ করা উচিত বলে মনে করেন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ওবায়দুল কাদের। তিনি বলেন, নিজেদের জনবিচ্ছিন্নতা আড়াল করতে বিএনপি এখন সরকারের পদত্যাগ দাবি করছে। সরকারের পদত্যাগ দাবি না করে নির্বাচন ও আন্দোলনে ব্যর্থতার জন্য বিএনপি নেতাদের ‘টপ টু বটম’ দল থেকে পদত্যাগ করা উচিত। বুধবার সকালে সরকারি বাসভবনে ব্রিফিংকালে এসব কথা বলেন তিনি। ওবায়দুল কাদের বলেন, সরকারকে পদত্যাগের আহ্বান বিএনপির অগণতান্ত্রিক আচরণ। জনগণ নির্দিষ্ট মেয়াদের জন্য সরকারকে ক্ষমতায় বসিয়েছে, সুতরাং মেয়াদ শেষ হলেই সংবিধান অনুযায়ী নির্বাচন হবে। তিনি বলেন, প্রকৃতপক্ষে বিচার বিভাগ স্বাধীনভাবেই কাজ করছে। বিচার বিভাগের ওপর সরকারের কোনো হস্তক্ষেপ নেই। বিএনপির কাছে নিরপেক্ষতা হচ্ছে, তাদের পক্ষে রায় গেলে বিচার বিভাগ স্বাধীন, আর বিপক্ষে গেলে বলে সরকার হস্তক্ষেপ করেছে। সেতুমন্ত্রী বলেন, ক্ষমতা ফিরে পাওয়ার মোহে বিএনপি এখন অন্ধ। যারা ভারত সফর শেষ করে বিমানবন্দরে এসে বলে গঙ্গার পানি বণ্টনের কথা বলতে ভুলে গেছে তাদের মুখে তিস্তাসহ অভিন্ন নদীর পানি বণ্টনের কথা মানায় না। গত কয়দিনে চট্টগ্রামের হাটহাজারী, ব্রাহ্মণবাড়িয়াসহ বিভিন্ন স্থানে যে তাণ্ডবলীলা চালানো হয়েছে তা অত্যন্ত দুঃখজনক উল্লেখ করে ওবায়দুল কাদের বলেন, এ নিয়ে বিএনপি নেতারা বলেছেন এর সাথে তাদের কোনো যোগসূত্র নেই- তাদের একথা শুনলে হাসি পায়, ঠাকুর ঘরে কে রে, আমি কলা খাই না। একটি দায়িত্বশীল রাজনৈতিক দল হিসেবে বিএনপি এ সব সন্ত্রাসী কার্যকলাপের উস্কানি ও প্রশ্রয় দিচ্ছে। তারা জনগণের সম্পদে আগুন ধরিয়ে দেয়ার নির্দেশদাতা হয়ে আবার সমাবেশও করে। বিএনপির মায়াকান্না মাছের পুত্রশোকের মতো। ওবায়দুল কাদের বিএনপিকে সরকারের অন্ধ সমালোচনা না করে করোনাকালে মানুষের পাশে দাঁড়িয়ে দায়িত্বশীল ভূমিকা পালন করার আহ্বান জানিয়ে বলেন, নিজেরা স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলুন এবং জনগণকেও স্বাস্থ্যবিধি মানতে উদ্ধুদ্ধ করুন- এটাই দেশপ্রেমিক নাগরিক হিসেবে সবার দায়িত্ব। এর আগে আজ বুধবার সকাল সাড়ে ১০টায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিক্যাল বিশ্ববিদ্যালয়ে করোনার প্রথম ডোজের টিকা গ্রহণ করেন ওবায়দুল কাদের।

আরও তিন রাফায়েল জেট আসছে ভারতে
                                  

ভারতে আসছে আরও তিনটি রাফায়েল জেট। বুধবার সন্ধ্যা ৭টার দিকে ওই তিন যুদ্ধ বিমান গুজরাটে অবতরণ করবে। ফ্রান্স থেকে উড্ডয়নের পর মাঝ আকাশেই জ্বালানি ভরে পুরো যাত্রা শেষ করবে বিমানবাহিনীতে যুক্ত হওয়া এই নতুন তিন সদস্য। আরও তিনটি রাফায়েল যুক্ত হওয়ার পর গোল্ডেন অ্যারোজ স্কোয়াড্রনের মোট রাফায়েলের সংখ্যা হবে ১৪ টি। ফলে সামরিক দিক থেকে আরো শক্তিশালী হবে ভারত। আগত রাফায়েলের মধ্যে কয়েকটিকে পশ্চিমবঙ্গের হাসিমারা এয়ার ফোর্স স্টেশনে রাখা হতে পারে। হাসিমারাতে বিমান বাহিনীর ঘাঁটিতে ওই রাফায়েলগুলোকে অন্তর্ভুক্ত করা হবে। ২০২০ সালের ২৯ জুলাই সর্বপ্রথম ভারত রাফায়েল হাতে পায়। ১০ সেপ্টেম্বর সেগুলো বিমান বাহিনীতে যুক্ত হয়। দ্বিতীয় দফায় ওই বছরেরই ৪ নভেম্বর ভারতের হাতে আসে আরও ৪ টি রাফায়েল। উল্লেখ্য, ২০১৬ সালে ৩৬টি রাফায়েল কেনার জন্য ফ্রান্সের সঙ্গে চুক্তি করে ভারত। ৫৯ হাজার কোটি টাকা দিয়ে এই চুক্তি করা হয়। সেই চুক্তির ভিত্তিতেই ভারতের হাতে রাফায়েল জেট তুলে দিচ্ছে ফ্রান্স। ২০২০ সালের ১০ সেপ্টেম্বর প্রথম ভারতীয় বিমান বাহিনীতে যখন ৫টি রাফায়েল আনা হয়েছিল সে সময় ওই অনুষ্ঠানে ৯ লাখ ১৮ হাজার জিএসটিসহ মোট খরচ হয়েছিল ৪১ লাখ ৩২ হাজার টাকা। এই বিমানের কিছু বিশেষত্ব রয়েছে। এই যুদ্ধবিমানে একবার জ্বালানি ভরা হলে এটি ১০ ঘন্টা একটানা উড়তে পারে। এছাড়া উড়তে উড়তেও জ্বালানি ভরতে পারে এই যুদ্ধবিমান। রাফায়েলের সর্বাধিক গতি প্রতি ঘণ্টায় ২ হাজার ১৩০ কিলোমিটার, যা সমস্যায় ফেলতে পারে অন্য যুদ্ধবিমানকে। রাফালের আকার এই যুদ্ধবিমানকে দ্রুত লড়াই করতে সাহায্য করে। রাফায়েল দৈর্ঘ্যে ১৫.২৭ মিটার এবং প্রস্থে ১০.৮০ মিটার। রাফায়েলে স্কাল্প ইজি স্টর্ম শ্যাডো, এএএসএম, ৭৩০ এ ট্রিপল ইজেক্টর র্যাক, ড্যামোক্লস পড, হামার মিসাইল অস্ত্র হিসেবে ব্যবহার করা যেতে পারে। এতে মোট তিন ধরনের মিসাইল বসানো যেতে পারে। এয়ার-টু-এয়ার মেটিওর মিসাইল, এয়ার-টু-গ্রাউন্ড স্কাল্প মিসাইল এবং হ্যামার মিসাইল। এর ফলে বিমানবাহিনীর শক্তি আরও কয়েকগুণ বৃদ্ধি পায়।

যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের জন্য মেক্সিকো সীমান্তে মানুষের ঢল
                                  

মেক্সিকো সীমান্তে দিয়ে যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের জন্য হাজার হাজার মানুষের ঢল নেমেছে। গত দুই দশকে মেক্সিকো সীমান্তে এত বেশিসংখ্যক অভিবাসীদের জড়ো হতে দেখা যায়নি। ইতোমধ্যে সীমান্তে জড়ো হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশী অভিভাবকহীন ১৫ হাজার ৫শ শিশুকে হেফাজতে নিয়েছেন মার্কিন কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্যাট্রোল (সিপিবি)। অভিবাসীদের সংখ্যা বেড়ে যাওয়ায় মানবিক সংকটও বেড়েছে বলে আন্তর্জাতিক গণমাধ্যমগুলো জানিয়েছেন। মার্কিন প্রশাসন জানিয়েছে, সীমান্তে জড়ো হওয়া অভিবাসনপ্রত্যাশীদের অধিকাংশই প্রাপ্তবয়স্ক।  তাদের বহিষ্কার করা হচ্ছে। একইভাবে যেসব পরিবার জড়ো হয়েছে তাদেরও ফেরত পাঠানো হচ্ছে। তবে যেসব শিশুরা অভিভাবকহীন, তাদের আশ্রয় দেওয়া হচ্ছে। সীমান্তে হাজার হাজার অভিভাবকহীন শিশু সীমান্তরক্ষীদের হেফাজতে রয়েছে। তবে তাদের সরকার পরিচালিত যে শিবিরে রাখা হয়েছে সেখানকার পরিস্থিতি অমানবিক বলে দাবি করেছেন সমালোচকরা। এমন পরিস্থিতিতে চাপের মুখে পড়েছে জো বাইডেন প্রশাসন। দ্রুত পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য নীতিমালা তৈরিতে সরকারের ওপর চাপ বাড়ছে।  সবচেয়ে চাপের মুখে পড়েছেন হোমল্যান্ড সিকিউরিটি সেক্রেটারি আলেজান্দ্রো মায়োরাকাস। তিনি অভিবাসীদের উদ্দেশ্যে বলেছেন, আপনারা আসবেন না। সীমান্ত বন্ধ আছে।  করোনা মহামারির কারণে এখনো ভ্রমণের সময় আসেনি। বাইডেন প্রশাসন তাদের জন্য উপযুক্ত আবাসনের ব্যবস্থা করার চেষ্টা করছে। গত ২১ মার্চ পর্যন্ত মার্কিন কাস্টমস অ্যান্ড বর্ডার প্যাট্রোল (সিপিবি) অভিভাবকহীন ১৫ হাজার ৫শ শিশুকে হেফাজতে নিয়েছে। প্রেসিডেন্ট বাইডেন দায়িত্ব গ্রহণের পর শিবিরগুলোতে এখনো সাংবাদিকদের প্রবেশের অনুমতি দেওয়া হয়নি। যদিও গত সপ্তাহে শিবিরের ছবি প্রকাশ পায়। তাতে দেখা গেছে, অল্প জায়গায় গাদাগাদি করে রয়েছে অভিবাসী শিশুরা।  এরপর হোয়াইট হাউজের প্রেস সচিব জেন সাকি বলেন, অভিবাসীদের বসবাসের আরো সুবিধা দেওয়ার জন্য সরকার কাজ করে যাচ্ছে। ঐসব স্থানে শিশুদের স্বাস্থ্যসেবা, শিক্ষা লাভের সুবিধা ও আইনি সহায়তা দেওয়া হবে। সাবেক ট্রাম্প প্রশাসনের সময়ে হন্ডুরাস, গুয়াতেমালা এবং অন্যান্য দেশের অভিবাসনপ্রত্যাশীদের যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশ করা কঠিন হয়ে উঠেছিল। ঐ প্রশাসন অভিবাসীদের প্রবেশে কিছু বিধি-নিষেধ আরোপ করেছিল। এছাড়া মেক্সিকো সীমান্তে দেয়াল নির্মাণের কাজ শুরু করা হয়। কিন্তু গত জানুয়ারিতে শপথ গ্রহণের পর বাইডেন যুক্তরাষ্ট্রে অবৈধভাবে প্রবেশকারীদের ওপর থেকে কিছু বিধি-নিষেধ প্রত্যাহার করেন। একই সঙ্গে দেয়াল নির্মাণে ডোনাল্ড ট্রাম্পের ১৪০ কোটি মার্কিন ডলারের তহবিল আটকে দেয় বাইডেন প্রশাসন। বর্তমান পরিস্থিতির জন্য রিপাবলিকান আইনপ্রণেতারা বাইডেন প্রশাসনকে দায়ী করেছে। তারা সতর্ক করে বলেছেন, পরিস্থিতি আরো খারাপ হতে চলেছে। বসন্তে, গ্রীষ্মে আরো অনেক লোক আসবে।  গ্রীষ্ম নাগাদ এই সংখ্যা ১০ লাখে পৌঁছতে পারে। তারা অভিবাসীদের প্রবেশ নিয়ন্ত্রিত করতে বাইডেন প্রশাসনের প্রতি আহ্বান জানিয়েছেন। প্রেসিডেন্ট হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর গত বৃহস্পতিবার নিজের প্রথম সংবাদ সম্মেলনে অভিবাসী সংকট নিয়ে কথা বলেন জো বাইডেন। তার দাবি, সীমান্তে মানবিক সংকটের জন্য সাবেক ট্রাম্প প্রশাসন দায়ী।  আর শীতের সময়ে ঐ সীমান্তে অভিবাসী বেড়ে যাওয়ার বিষয়টি স্বাভাবিক। তিনি এসব অভিবাসীদের আসার জন্য তাদের দেশের অবস্থা বিশেষ করে প্রাকৃতিক দুর্যোগ, অপরাধ ও অর্থনৈতিক সুযোগের অভাবকেও দায়ী করেন।  চাপের মুখে এই অভিবাসী সংকট মোকাবিলার জন্য ভাইস প্রেসিডেন্ট কমলা হ্যারিসকে দায়িত্ব দিয়েছেন জো বাইডেন। গত সপ্তাহে এই ঘোষণা দেওয়া হয়েছে। এ ব্যাপারে কমলা হ্যারিস জানান, অভিবাসন সমস্যা নিরসনে তিনি হন্ডুরাসের সঙ্গে কূটনৈতিক আলোচনায় বসতে চান। এ ক্ষেত্রে মেক্সিকো এবং অন্যান্য দেশের সহযোগিতাও প্রত্যাশা করেন তিনি। 

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশকে পোপ ফ্রান্সিসের শুভেচ্ছা
                                  

স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। বাংলাদেশের নেতৃত্ব এবং দেশের মানুষকে আন্তরিক শুভেচ্ছা বার্তা পাঠিয়েছেন তিনি। পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের দেয়া তথ্য অনুযায়ী, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং বাংলাদেশের স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তী উপলক্ষে রাষ্ট্রপতি আবদুল হামিদ, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা এবং বাংলাদেশের জনগণকে শুভেচ্ছা জানিয়েছেন পোপ ফ্রান্সিস। তিনি এক ভিডিও বার্তায় বঙ্গবন্ধুর কথা স্মরণ করেছেন। বাংলাদেশের প্রশংসা করে পোপ ফ্রান্সিস বলেন, প্রাকৃতিক সৌন্দর্য এবং সাংস্কৃতিক ঐক্য, ভাষা নিয়ে সহাবস্থানে থাকা আধুনিক নাগরিকের দেশ বাংলাদেশ। এর আরেকটি পরিচয় হচ্ছে সোনার বাংলা। লাতিন ভাষায় দেওয়া ওই ভিডিও বার্তায় পোপ ফ্রান্সিস বলেন, সোনার বাংলার স্বপ্ন দেখেছিলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান। তিনি এমন এক সমাজ ও রাষ্ট্রের স্বপ্ন দেখেছেন যেখানে শান্তি, স্বাধীনতা ও নিরাপত্তার সঙ্গে সব সম্প্রদায় বসবাস করবে। শেখ মুজিবুর রহমানের উত্তরাধিকার হিসেবেই আজকের প্রজন্ম পর্যন্ত এই ধারাবাহিকতা এসেছে। তিনি বলেন, ‘আমার দৃঢ় বিশ্বাস, স্বাধীনতার ৫০ বছরপূর্তিতে দাঁড়িয়ে বাংলাদেশের গণতন্ত্রের ভবিষ্যৎ ও রাজনৈতিক জীবন দেশটির প্রতিষ্ঠাকালীন লক্ষ্যের সঙ্গে সংযুক্ত। পাশাপাশি এটা বিগত সময়ের সংলাপ ও বৈচিত্র্যের চেতনার সঙ্গে সম্পর্কিত।’ দেশের জন্য কাজ করতে সবার প্রতি আহ্বান জানিয়ে পোপ বলেন, ‘বাংলাদেশের বন্ধু হিসেবে আমি আপনাদেরকে, বিশেষ করে তরুণদের আহ্বান জানাই, আসুন মহান জাতির শান্তি ও অগ্রগতির জন্য কাজ করি।’ একইসঙ্গে মিয়ানমার থেকে পালিয়ে আসা রোহিঙ্গাদের বাংলাদেশে আশ্রয় দেওয়ার প্রশংসা করে পোপ বলেন, শরণার্থীদের প্রতি বাংলাদেশ যে মহানুভবতা ও মানবিকতা দেখিয়েছে, তা ভবিষ্যতেও অব্যাহত থাকবে বলে তার দৃঢ় প্রত্যাশা রয়েছে।

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ ৫৬ হাজার ছাড়িয়েছে
                                  

যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যুর সংখ্যা ৫ লাখ ৫৬ হাজার ছাড়িয়েছে। যা বিশ্বে সর্বোচ্চ। দেশটিতে এ ভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ কোটি ৬ লাখ ৩৬ হাজার ৫৩৪ জন। মঙ্গলবার (২৪ মার্চ) আন্তর্জাতিক জরিপ সংস্থা ওয়ার্ল্ডোমিটারস এ তথ্য জানিয়েছে। প্রতিষ্ঠানটির ওয়েবসাইটে বলা হয়েছে, এ পর্যন্ত বিশ্বের ২১৯টি দেশ ও অঞ্চলের লোকজন করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন। বিশ্বে করোনা শনাক্ত হয়েছে ১২ কোটি ৪৭ লাখ ৯৯ হাজার ৩৫১ জন। এর মধ্যে ২৭ লাখ ৪৬ হাজার ২৪২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ইতিমধ‌্যে সুস্থ হয়েছেন ১০ কোটি আট লাখ ২৭ হাজার ৯২০ জন। আক্রান্তের হিসাবে দ্বিতীয় স্থানে রয়েছে ব্রাজিল। দেশটিতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ২১ লাখ ৩৬ হাজার ৬১৫। এর মধ্যে দুই লাখ ৯৮ হাজার ৮৪৩ জনের মৃত্যু হয়েছে। ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা এক কোটি ১৭ লাখ ৩৩ হাজার ৫৯৪। এর মধ্যে এক লাখ ৬০ হাজার ৪৭৭ জনের মৃত্যু হয়েছে। বাংলাদেশে আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ লাখ ৭৭ হাজার ২৪১। এর মধ্যে আট হাজার ৭৩৮ জনের মৃত্যু হয়েছে। উৎপত্তিস্থল চীনে আক্রান্তের সংখ্যা ৯০ হাজার ১২৫। এর মধ্যে চার হাজার ৬৩৬ জনের মৃত্যু হয়েছে। যদিও দেশটির বিরুদ্ধে প্রকৃত পরিস্থিতি গোপন করার অভিযোগ রয়েছে। চীনের বাইরে করোনার প্রকোপ ১৩ গুণ বেড়ে যাওয়ায় গত ১১ মার্চ একে মহামারি ঘোষণা করে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। তবে আশার কথা হচ্ছে, এরইমধ্যে করোনার একাধিক টিকা আবিষ্কৃত হয়েছে। 

উইঘুর নির্যাতন: চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা
                                  

উইঘুরদের বিরুদ্ধে `গুরুতর মানবাধিকার লঙ্ঘন` করার জন্য চীনা কর্মকর্তাদের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞার ঘোষণা দিয়েছে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ও তার মিত্ররা। সংবাদ মাধ্যম সিএনএন এর বরাতে জানা যায়, শিনজিয়াং অঞ্চলে উইঘুর মুসলিমদের মানবাধিকার লঙ্ঘনের জন্য বেশ কয়েকটি পশ্চিমা দেশ চীনের বিরুদ্ধে নিষেধাজ্ঞা আরোপের কথা ঘোষণা করেছে। যুক্তরাজ্য, কানাডা, মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র এবং ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের এক সমন্বিত প্রয়াসের অংশ হিসেবে এ নিষেধাজ্ঞার কথা ঘোষণা করা হয়। ইউরোপীয় ইউনিয়নের পররাষ্ট্রমন্ত্রীরা চীনের ওপর যে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছেন – তাতে চারজন ব্যক্তি এবং একটি প্রতিষ্ঠানের সম্পদ জব্দ করা ও তাদের ভ্রমণের ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপের বিষয়টি অনুমোদন করা হয়েছে। তাদের মধ্যে শিনজিয়াং-এর পুলিশ প্রধানও রয়েছেন। এর পরপরই চীন – ইউরোপিয়ান ইউনিয়নের দশজন ব্যক্তি ও চারটি সংস্থার ওপর নিষেধাজ্ঞা আরোপ করেছে মানবাধিকার গোষ্ঠীগুলোর মতে, উত্তর-পশ্চিমাঞ্চলীয় শিনজিয়াং প্রদেশের বন্দীশিবির গুলোতে লক্ষ লক্ষ উইঘুরকে আটকে রেখেছে চীন – যেখানে বন্দীদের ওপর নির্যাতন, জোরপূর্বক শ্রমিক হিসেবে কাজ করানো এবং যৌন নির্যাতনের অভিযোগ বিভিন্ন সময় প্রকাশ পেয়েছে। চীন এগুলোকে ‘সন্ত্রাস দমনের লক্ষ্যে পরিচালিত পুনঃশিক্ষণ কেন্দ্র’ হিসেবে বর্ণনা করে থাকে।


   Page 1 of 66
     আর্ন্তজাতিক
৬ মিনিটেই শেষ পশ্চিমবঙ্গের মন্ত্রিসভার শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান
.............................................................................................
বিদেশিদের হজের অনুমতি বিষয়ে আলোচনা চলছে: সৌদি
.............................................................................................
চারদিন পর ভারতে করোনা শনাক্ত ৪ লাখের নিচে
.............................................................................................
ভারতে আজও ৪ লাখের বেশি শনাক্ত, মৃত্যুও ৪ হাজারের ওপরে
.............................................................................................
অবশেষে চীনের রকেটের ধ্বংসাবশেষ পড়ল মালদ্বীপের কাছে সাগরে
.............................................................................................
যুক্তরাজ্যের ভ্রমণ তালিকা প্রকাশ, লাল-এ বাংলাদেশ
.............................................................................................
বিক্ষোভকারীদের মরদেহ ফেরত দিতে অর্থ নেওয়ার অভিযোগ সেনাদের বিরুদ্ধে
.............................................................................................
ব্রাজিলকে ছাড়িয়ে সংক্রমণ তালিকায় দুইয়ে ভারত
.............................................................................................
ভারতে করোনা পরিস্থিতি ভয়াবহ, সোয়া লাখ শনাক্তে ফের রেকর্ড
.............................................................................................
করোনা রেকর্ড, মৃত্যু ৯ হাজার ছাড়াল
.............................................................................................
বিএনপি নেতাদের ‘টপ টু বটম’ পদত্যাগ করা উচিত : কাদের
.............................................................................................
আরও তিন রাফায়েল জেট আসছে ভারতে
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে প্রবেশের জন্য মেক্সিকো সীমান্তে মানুষের ঢল
.............................................................................................
স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশকে পোপ ফ্রান্সিসের শুভেচ্ছা
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে করোনায় মৃত্যু ৫ লাখ ৫৬ হাজার ছাড়িয়েছে
.............................................................................................
উইঘুর নির্যাতন: চীনের বিরুদ্ধে যুক্তরাষ্ট্রের নিষেধাজ্ঞা
.............................................................................................
যুক্তরাষ্ট্রে বন্দুকধারীর গুলিতে নিহত ১০
.............................................................................................
বর্ণবাদ বিষয়টি গুরুত্বের সঙ্গে নিয়েছে ব্রিটিশ রাজপরিবার
.............................................................................................
ট্রাম্পের সর্বশেষ মামলাটিও খারিজ হয়ে গেল
.............................................................................................
তিন মাসে প্রথমবার মৃত্যু কমেছে যুক্তরাষ্ট্রে
.............................................................................................
করোনায় গ্রিসে ৩৭ দিনের শিশুর মৃত্যু
.............................................................................................
মিয়ানমারে আরও দুই বিক্ষোভকারী নিহত
.............................................................................................
হেলিকপ্টার দুর্ঘটনায় ফরাসি ধনকুবের এমপির মৃত্যু
.............................................................................................
করোনায় মৃত্যু ২৬ লাখ ছাড়াল
.............................................................................................
কমনওয়েলথের সেরা তিন নারী নেতার একজন শেখ হাসিনা
.............................................................................................
ক্যাপিটলে হামলা : ট্রাম্পের বিরুদ্ধে আরেকটি মামলা
.............................................................................................
তারুণ্যের ‘বিপ্লবে’ তটস্থ মিয়ানমারের জান্তা সরকার
.............................................................................................
স্বল্পোন্নত দেশ থেকে বাংলাদেশের উত্তরণে খুশি ভারত
.............................................................................................
করোনায় আক্রান্ত ১১ কোটি ৫৭ লাখেরও বেশি
.............................................................................................
মিয়ানমারে মৃত্যুর মিছিল, একদিনে গুলিতে নিহত ৩৮
.............................................................................................
মিয়ানমারের ক্ষমতাচ্যুত প্রেসিডেন্টের বিরুদ্ধে নতুন ২ মামলা
.............................................................................................
করোনায় মৃত্যু ২৫ লাখ ৬০ হাজার ছাড়াল
.............................................................................................
আফগানিস্তানে ৩ নারী সাংবাদিককে গুলি করে হত্যা
.............................................................................................
করোনা টিকা নিলেন নরেন্দ্র মোদি
.............................................................................................
করোনায় মৃত্যু ২৫ লাখ ছাড়াল
.............................................................................................
আরও বড় বিক্ষোভের ডাক মিয়ানমারে
.............................................................................................
ক্যাপিটল হিলে হামলা: ‌‘যুদ্ধের প্রস্তুতি নিয়ে আসে দাঙ্গাকারীরা’
.............................................................................................
চীনকে মানবাধিকার লঙ্ঘনের মূল্য দিতে হবে: বাইডেন
.............................................................................................
সু চির বিরুদ্ধে নতুন অভিযোগ, বৃহত্তর আন্দোলন
.............................................................................................
সেরামকে ১০ লাখ ডোজ টিকা ফেরত দিচ্ছে দক্ষিণ আফ্রিকা
.............................................................................................
বিপাকে পড়েছেন ট্রাম্প
.............................................................................................
ভারতে হিমবাহ ধস: ১৪ জনের মরদেহ উদ্ধার, ১৭০ জনের খোঁজ চলছে
.............................................................................................
মিয়ানমারে বিক্ষোভ চলছেই
.............................................................................................
করোনাবিধি উঠলেই হামলা চালাতে পারে জঙ্গিরা : সতর্কতা জাতিসংঘের
.............................................................................................
আস্থা বাড়ছে ভ্যাকসিনে, বাড়ছে আগ্রহও
.............................................................................................
ঢাকার যেসব এলাকার গ্যাস থাকবে না আজ
.............................................................................................
দুই সপ্তাহের রিমান্ডে সু চি
.............................................................................................
মিয়ানমারে ধর্মঘটে ৭০ হাসপাতালের কর্মীরা
.............................................................................................
‘সামরিক অভ্যুত্থান মিয়ানমারের অভ্যন্তরীণ বিষয়’
.............................................................................................
মিয়ানমারে জরুরি অবস্থা জারি
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
সম্পাদক ও প্রকাশক : মো : মাহবুবুর রহমান ।
ভারপ্রাপ্ত সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান । সম্পাদক কর্তৃক বিএস প্রিন্টিং প্রেস ৫২/২ টয়েনবি সার্কুলার রোড, সুত্রাপুর ঢাকা খেকে মুদ্রিত
ও ৬০/ই/১ পুরানা পল্টন (৭ম তলা) থেকে প্রকাশিত বার্তা ও বাণিজ্যিক কার্যালয় : ৫১,৫১/ এ রিসোর্সফুল পল্টন সিটি (৪র্থ তলা), পুরানা পল্টন, ঢাকা -১০০০।
ফোনঃ-০২-৯৫৫০৮৭২ , ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com Developed By: Dynamic Solution IT & Dynamic Scale BD