|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
শিরোনাম : * বস্তুনিষ্ঠ সাংবাদিকতা অপরিহার্য ....... লায়ন গনি মিয়া বাবুল   * বঙ্গবন্ধুকে ফিরে না পেলে স্বাধীনতা পূর্ণতা পেত না: তাপস   * আমরা শিশু   *  বিএনপির সমাবেশ নিয়ে মানুষ আতঙ্কে আছে: ওবায়দুল কাদের   * কী হতে চলেছে ১০ ডিসেম্বর?   *  কাগজ সংকটে বন্ধ ছাপানো, শিক্ষার্থীদের বই পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা   *  ইন্দোনেশিয়ায় ভূমিকম্প : ধ্বংসস্তূপের নিচে আটকা বহু   *  পুলিশের মুখে স্প্রে করে আসামি ছিনতাই: মামলার তদন্তে সিটিটিসি   * বিদ্যুতের দাম বাড়ছেই, ঘোষণা দুপুরে   * গ্যাস সংকটে বড় ক্ষতির মুখে সিরামিক খাত  

   জাতীয়
  ডলার সংকটে কমেছে আমদানি, রপ্তানি শূন্যের কোটায়
  Date : 15-11-2022

ডলার সংকটের অজুহাতে দিনাজপুরের হিলি স্থলবন্দর দিয়ে গত কয়েক মাসের তুলনায় ভারতীয় পণ্য আমদানি কিছুটা কমেছে। আর ভারতীয় কর্তৃপক্ষের উদাসীনতা, বন্দরের অব্যবস্থাপনার কারণে দিন দিন বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি শূন্যের কোটায়। বাণিজ্যভিত্তিক এ বন্দর দিয়ে শুধু রপ্তানি খাতেই বছরে কোটি কোটি টাকা আয় করা সম্ভব বলছেন সংশ্লিষ্টরা।
বন্দর সূত্রে জানা গেছে, ‘ভারত থেকে বিভিন্ন পণ্য আমদানির জন্য প্রয়োজনীয় অবকাঠামো খাদ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার জন্য বাংলাদেশে ব্যবস্থা থাকলেও ভারতের অভ্যন্তরে রপ্তানি পণ্য পরীক্ষা-নিরীক্ষার ব্যবস্থা, সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ এবং পণ্য রাখার সেটের কোনো ব্যবস্থা নেই।
ভারত থেকে যেসব পণ্য বাংলাদেশে আসে
বিভিন্ন ধরনের চাল, পাথর, পেঁয়াজ, জিরা, টিটাগুড়, গমের ভূসি, ভুট্টার বীজ, আদা, রসুন, আতাফল, মিক্সার মেশিন, মাটি খননযন্ত্র ভেকু মেশিন উল্লেখযোগ্য।
ভারতে রপ্তানি যোগ্যপণ্য
বাংলাদেশ থেকে রপ্তানিযোগ্য পণ্যগুলোর মধ্যে রয়েছে-কলা, পেঁয়াজের ফুলকা, আলুসহ সব ধরনের সবজি, পোশাক কারখানার ঝুট কাপড়, পাটের তৈরি বস্তা ইত্যাদি।
বন্দরে খোঁজ নিয়ে জানা গেছে, কয়েকদিন আগে বন্দর দিয়ে প্রতিদিন গড়ে ভারতীয় প্রায় ৪০০ ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করলেও এখন তা ২০০’র নিচে নেমে এসেছে। বিশ্ববাজারে ডলারের সংকটের কারণে ভারতীয় কর্তৃপক্ষ বিলাসবহুল পণ্য আমদানিতে নিরুৎসাহিত করছেন। ফলে বন্দর দিয়ে মানুষের নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসপত্র ভারত থেকে আমদানি করা হচ্ছে।
হিলি কাস্টমসের তথ্য মতে, গত পাঁচ বছরে ভারত থেকে ৯৫ লাখ ৬৮ হাজার মেট্রিক টন বিভিন্ন পণ্য আমদানি হয়েছে। যার আর্থিক মূল্য ১৩ হাজার ২৮৯ কোটি ৮৭ লাখ টাকা, যা থেকে রাজস্ব আয় হয়েছে ১ হাজার ৩০৬ কোটি টাকা। একই সময়ে এ বন্দর দিয়ে বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্য ভারতে রপ্তানি হয়েছে মাত্র ৭৪ হাজার ২ মেট্রিক টন। যার মূল্য ৫০৩ কোটি টাকা।
সরেজমিনে হিলি বন্দরে গিয়ে দেখা যায়, ‘হিলি সীমান্তের শূন্য রেখা দিয়ে ট্রাকবোঝাই ভারতীয় বিভিন্ন ধরনের পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করছেন। শূন্য রেখায় দাঁড়িয়ে বর্ডার গার্ড বাংলাদেশ (বিজিবি) সীমান্তরক্ষী বাহিনীর সদস্যরা ট্রাকগুলো তল্লাশি ও কাস্টমসের কাজ শেষে অর্ধকিলোমিটার দূরে ভাঙা রাস্তা পেরিয়ে পানামা পোর্টের দুই নম্বর গেট দিয়ে ভেতরে প্রবেশ করছেন।
বর্তমানে পানামা পোর্ট লিমিটেডের ২২ একর জায়গা চারটি গেট নিয়ে অবস্থান। রোববার ভারতীয় বিভিন্ন পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে ১৭১টি ট্রাক বাংলাদেশে প্রবেশ করে।
আমদানি রপ্তানির বিষয়ে জানতে চাইলে হিলি স্থলবন্দরের আমদানি-রপ্তানি গ্রুপের সভাপতি হারুন উর রশিদ হারুন জাগো নিউজকে বলেন,‘ কিছুদিন আগের চেয় আমাদের আমদানিতে অনেকটা ছন্দপতন হয়েছে। এখন অনেকটা স্বাভাবিক কমে এসেছে। আবারও আমাদের ব্যাংক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে বিলাসবহুল পণ্য যেগুলো আমাদের এখন দরকার নেই সেই পণ্যগুলো নিরুৎসাহিত করে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিস যেমন- চাল, পেঁয়াজ, আদা, রসুন কিংবা গো-খাদ্য, মৎস্য খাদ্য এই পণ্যগুলো আমরা শর্তসাপেক্ষে আমদানি করতে পারবো। এরইমধ্যে আমাদের এই শর্তে এলসি চলমান।
তিনি বলেন, আগে আমাদের যে সব পণ্য বেশি পরিমাণে বাংলাদেশে আসত সেগুলো এখন আসছে না। কারণ অন্যান্য দেশের মতো ভারত বিলাসবহুল পণ্য আমদানিতে নিরুসাহিত করছেন। এরই মধ্যে তারা গম আমদানি বন্ধ করে দিয়েছে, চিনির ওপর নিষেধাজ্ঞা দিয়েছে।
রপ্তানির বিষয়ে জানতে চাইলে তিনি বলেন, বাংলাদেশ থেকে আমরা বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করতে চাই কিন্তু ভারতীয় ব্যবসায়ীদের অনীহা, সদিচ্ছা ও সেখানে তাদের কর্তৃপক্ষ না থাকা এবং সেখানে সেটের ব্যবস্থা না থাকা ও উদ্ভিদ সঙ্গনিরোধ অফিস না থাকায় আমরা বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করতে পারছি না। আমরা শুধু আমদানি করে যাচ্ছি কিন্তু রপ্তানি এবেবারে নেই বললেই চলে।
তিনি বলেন, যদিও আমাদের হিলিতে একটা পাটকল রয়েছে সেই পাটের বস্তার ব্যাগ ভারতে রপ্তানি হচ্ছে কিন্তু হিলি দিয়ে হচ্ছে না। ট্রাকে মালগুলো বেনাপোল দিয়ে রপ্তানি করতে হচ্ছে, সোনামসজিদ দিয়ে রপ্তানি করতে হচ্ছে এতে আমাদের রপ্তানির খরচ বৃদ্ধি পাচ্ছে। যদি ভারতীয় কর্তৃপক্ষের সঙ্গে আলোচনা করে সমাধান করা যায় তাহলে বিভিন্ন পণ্য রপ্তানি করে অনেক ডলার আমরা বাংলাদেশে নিয়ে আসতে পারবো।
রাস্তা কোথাও বেহাল কোথাও সংস্কার শুরু
হিলি বন্দরের পানামা পোর্টের সামনে থেকে চারমাথা হয়ে ইমিগ্রেশন চেকপোস্ট পর্যন্ত রাস্তাটি সর্বশেষ ২০১০ সালে সংস্কার করা হয়। ১২ বছর পর শূন্যরেখা থেকে পানামা পোটের গেট পর্যন্ত সংস্কার শুরু হয়েছে। প্রতিদিন ওই সড়কটি দিয়ে চার-পাঁচশ ভারতীয় ট্রাক পণ্য নিয়ে বাংলাদেশে প্রবেশ করে। এছাড়া দেশীয় ট্রাক ও দূরপাল্লার যান চলাচলের মূল সড়ক এটিই।

কয়েকদিন আগে বন্দরের প্রধান সড়কটি নতুন করে চার লেনের কাজ শুরু হলেও চারমাথা থেকে উপজেলা পরিষদের প্রধান ফটকের সামনে দিয়ে রাজধানী মোড় পর্যন্ত একইভাবে এখানো বিছানো আছে ইট। রাস্তায় খানাখন্দের কারণে চারমাথা মোড় থেকে রাজধানী মোড় পর্যন্ত এখন ধুলোর শহরে পরিণত হয়েছে।
হিলি-জয়পুরহাট সড়কের শান্তি মোড়, রাজধানী মোড়, হিলি-দিনাজপুর সড়কের ফকিরপাড়া, হিলি-ঘোড়াঘাট সড়কের ডাঙ্গাপাড়া, জালালপুরসহ অনেক স্থানে ছোট বড় অসংখ্য গর্ত হয়েছে।
এছাড়া চারমাথা পোর্ট থেকে দক্ষিণে রাজধানী মোড় প্রধান সড়ক দিয়ে কোচ, বাসসহ পণ্যবাহী ট্রাক দেশের দক্ষিণ অঞ্চলের জয়পুরহাট, বগুড়া, রাজশাহী, খুলনা, বরিশাল, সিরাজগঞ্জ, ঢাকা, সিলেট ও চট্টগ্রামে যাতায়াত করে। বর্ষকালে এসব গর্তে পানি থাকলে বোঝা যায় না এর অবস্থা। এতে দুর্ঘটনার ঝুঁকি থাকায় ভয়ভীতি নিয়ে চলাফেরা করছে সব ধরনের যানবাহন। শুষ্ক মৌসুমে কষ্ট করে চলাচল করতে পারলেও বর্ষা মৌসুমে মানুষের ভোগান্তি পৌঁছায় চরমে।
ইজিবাইক চালক আমেদ আলী জাগো নিউজকে বলেন, আমি দীর্ঘদিন থেকে হিলি বাজারে ভ্যানগাড়ি চালিয়ে জীবিকা নির্বাহ করি। কয়েক বছর ধরে রাস্তাঘাটের যে অবস্থা তাতে এখন জীবন চলা দায়। কয়দিন পর পর ভ্যানের এক্সেলেটর ভাঙে। যাত্রীরা গাড়িতে চড়তে চায় না। বুকের ব্যথা হয়।’
আমেদ আলী বলেন, শূন্যরেখা থেকে পানামা পোর্টের গেট পর্যন্ত রাস্তার কাজ শুরু হয়েছে। শেষ হলে অনেকটা ভোগান্তি কমে যাবে। জানতে চাইলে আমদানিকারক শাহিনুর রহমান শাহিন জাগো নিউজকে বলেন, হিলি স্থলবন্দর দেশের দ্বিতীয় বৃহত্তর স্থলবন্দর। আমরা লক্ষ্যমাত্রার চেয়ে অধিক পরিমাণে রাজস্ব দিয়ে থাকি। বর্তমানে বৈশ্বিক মন্দার কারণে আমাদের আমদানি অনেকটাই কমে গেছে। বিশেষ করে খাদ্যদ্রব্য প্রয়োজনীয় পণ্যছাড়া ব্যাংকগুলো এলসি দিচ্ছে না। পাশাপাশি বিগত সময়ে এই বন্দর দিয়ে ফল আমদানি হতো কিন্তু এখন আমদানি শূন্যের কোটায়। এর মূল কারণ এনবিআর থেকে আমাদের একটি মার্ক করে দেওয়া আছে যে ছয় চাকার গাড়িতে ১৪ মেট্রিক টন এবং বারো চাকায় ১৮ মেট্রিক টন ফল আমদানি করতে হবে। এ রকম আমাদের ব্যারিয়ার তৈরি করে দিয়েছেন, যা আমদানির বিষয়ে এটি পরিপন্থি বলে মনে করছি। কারণ যারা ছোট আমদানিকারক ছয় চাকায় ৫ টন মাল আমদানি করতে পারেন এটি তাদের অধিকার, সেটাকে ব্যাহত করার কারণে এই তাজা ফল এই বন্দর দিয়ে আমদানি হচ্ছে না।
শহিনুর রহমান বলেন, উত্তরবঙ্গের মধ্যে হিলিতে মোটরসাইকেলের পার্সের একটি বাজার। এখানে ছোটবড় শতাধিক দোকান রয়েছে। এখানকার ১৫ জন আমদানিকারক রয়েছেন, যারা বেনাপোল দিয়ে মোটরসাইকেলের যন্ত্রাংশ আমদানি করছেন। বেনাপোলে যন্ত্রাংশগুলো আমদানি হচ্ছে কেজি হিসেবে। হিলিতে প্রতিটি যন্ত্রাংশ একেকটা কোট দিয়ে কাস্টমসের জটিলতার কারণে আমদানিকারকরা হয়রানির কারণে মোটরসাইকেলের যন্ত্রাংশ হিলি বন্দর দিয়ে আমদানি হচ্ছে না।
ভারতের বাজারে বাংলাদেশি অনেক পণ্যের চাহিদা রয়েছে। তবে ভারতের ওপারে কাস্টমসের ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা না থাকায় পণ্য রপ্তানির পরে ছাড় করতে অনেক বিড়ম্বনায় পড়তে হয়। এ কারণেই মূলত বাংলাদেশি বিভিন্ন পণ্য রপ্তানিতে ব্যবসায়ীরা নিরুৎসাহিত হচ্ছেন।
আমদানি কম হওয়ার কারণ জানতে চাইলে আমদানিকারক মাহাবুব আলম জাগো নিউজকে বলেন, ব্যাংক আপাতত শুধু খাদ্যপণ্যের ওপর এলসি দিচ্ছে। অন্য আইটেমগুলোতে এলসি দিচ্ছে না ডলার সংকটের কারণে। আমদানি কমাতে আমরা বিভিন্ন জায়গা থেকে ঋণ করে ব্যবসার কাজে লাগিয়েছি। এতে আয় না আসায় আমাদের ব্যাংকের সুদের বোঝা টানতে হচ্ছে, লোকসান গুনতে হচ্ছে।
পণ্য খালাসে বন্দরের অভ্যন্তরীণ বিষয়টি জানতে চাইলে পানামা পোর্টের জনসংযোগ কর্মকর্তা সোহরাব হোসেন প্রতাব মল্লিক বলেন, পানামা পোর্টের ভেতর আমদানি করা পণ্যগুলো খালাসের বিষয়ে কিছুদিন আগে আমরা একটু জটিলতায় ছিলাম। আগে ১০ একর জায়গা ছিল এখন ২২ একর জায়গায় অবস্থান করছি। নতুন করে একটা আলাদা স্থাপনা এবং একটি গেট তৈরি করেছি। চারটি গেটের মধ্যে একদিক দিয়ে ভারতীয় গাড়ি ঢোকে অন্যদিক দিয়ে বের হয়। একইভাবে বাংলাদেশি ট্রাকগুলো প্রবেশ ও বাহির হয়। এতে বন্দরের ভেতরের ট্রাকের জটের সমস্যা সমাধান হয়েছে।
পানামা পোর্টের কাঁচামালের ক্ষেত্রে ১৬টি সেট রয়েছে যাতে বৃষ্টির ভেতরেও এই সেটে কাজের কোনো সমস্যা না হয়। প্রতিদিন গড়ে প্রায় ২০০ শ্রমিক কাস্টমসের ভেতর কাজ করেন। কাস্টমাররা দ্রুত পণ্য খালাস করে দেশের বিভিন্ন স্থানে সরবরাহ করতে পারে সেসব ব্যবস্থা পানামা পোর্ট নিয়ে রেখেছে।



       
   শেয়ার করুন
Share Button
   আপনার মতামত দিন
     জাতীয়
মিরপুরে সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে: ডিএনসিসি মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম
.............................................................................................
মেয়র হানিফ উড়ালসেতুর নিচের অংশের সৌন্দর্যবর্ধন ও ব্যবহার উপযোগী পরিবেশ নিশ্চিত করা হবেঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস
.............................................................................................
ঢাকা মেয়র কাপ আন্তঃওয়ার্ড ক্রীড়া প্রতিযোগিতা-২০২৩ এর ব্যাডমিন্টন খেলায় চ্যাম্পিয়ন হয়েছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনের (ঢাদসিক) ৭২ নম্বর ওয়ার্ড।
.............................................................................................
মেয়র হানিফ উড়ালসেতুর নিচের অংশের সৌন্দর্যবর্ধন ও ব্যবহার উপযোগী পরিবেশ নিশ্চিত করা হবেঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস
.............................................................................................
মিরপুরে সাংস্কৃতিক কেন্দ্র নির্মাণ করা হবে: ডিএনসিসি মেয়র মোঃ আতিকুল ইসলাম
.............................................................................................
ডিএনসিসির সঙ্গে যুক্তরাষ্ট্রের ডেট্রয়েট সিটির সমঝোতা স্মারক স্বক্ষরিত
.............................................................................................
দক্ষিণ সিটি গৃহীত প্রকল্পে সহযোগিতায় দক্ষিণ কোরিয়ার আগ্রহ প্রকাশ
.............................................................................................
{ফুলবাড়ীতে শেখ কামাল আন্তঃস্কুল ও মাদ্রাসা অ্যাথলেটিকস প্রতিযোগিতা}
.............................................................................................
ফ্লোরিডায় বাংলাদেশ কনস্যুল জেনারেল অফিসে যুক্তরাষ্ট্র প্রবাসী বাঙালিদের সাথে ডিএনসিসি মেয়রের মতবিনিময় সভা।
.............................................................................................
ফুটপাত-রাস্তা দখল করে মালামাল রাখায় আনন্দ বাজারে ১টি দোকান সাময়িক বন্ধ
.............................................................................................
জন্ম-মৃত্যু সনদ জালিয়াতিতে জড়িত দালালকে ৪৫ দিনের জেল দিয়েছে দক্ষিণ সিটি
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুকে ফিরে না পেলে স্বাধীনতা পূর্ণতা পেত না: তাপস
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুকে ফিরে না পেলে স্বাধীনতা পূর্ণতা পেতো নাঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস 
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধুর স্বদেশ প্রত্যাবর্তন দিবস উপলক্ষ্যে কল্যাণপুর বস্তিতে দিনব্যাপী ফ্রি মেডিকেল ক্যাম্প।
.............................................................................................
ব্রাজিলকে বাণিজ্যিক সহযোগিতা বাড়ানোর আহ্বান
.............................................................................................
বাংলাদেশের সঙ্গে স্থায়ী অংশীদারত্বকে গুরুত্ব দেয় যুক্তরাষ্ট্র
.............................................................................................
আবহাওয়ার খবর: ৮ জানুয়ারি ২০২৩
.............................................................................................
 জমি পেলেই খেলার মাঠ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিচ্ছে ডিএসসিসি
.............................................................................................
সরকারের প্রত্যাশা পূরণে সর্বোচ্চ চেষ্টা করব
.............................................................................................
  স্বাস্থ্য সুরক্ষা কর্মসূচি সারাবিশ্বে নজির সৃষ্টি করবেঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস
.............................................................................................
তুরস্কে বাংলাদশেরে রাষ্ট্রদূত হলনে আমানুল হক
.............................................................................................
জমি পেলেই খেলার মাঠ প্রতিষ্ঠার উদ্যোগ নিচ্ছে ডিএসসিসি
.............................................................................................
`স্মার্ট ঢাকা` বাস্তাবায়নে কাজ করছে ঢাকা দক্ষিণ সিটি করপোরেশনঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস
.............................................................................................
বাংলাদেশের সব অর্জন আওয়ামী লীগের হাত ধরেই
.............................................................................................
এক নজরে ইউরোপের যত ফুল ফান্ডেড স্কলারশিপ আছে বাংলাদেশীদের জন্য
.............................................................................................
ফিনল্যান্ডে যেসব সুযোগ পাচ্ছেন বাংলাদেশি শিক্ষার্থীরা’
.............................................................................................
কক্সবাজারে শুরু হলো বঙ্গবন্ধু আন্তর্জাতিক বিচ ভলিবল চ্যাম্পিয়নশিপ-২০২২
.............................................................................................
কবিয়াল ফাউন্ডেশন সম্মাননা পদক পেলেন লায়ন গনি মিয়া বাবুল
.............................................................................................
বিএএফ শাহীন কলেজের পুনর্মিলনী অনুষ্ঠিত।
.............................................................................................
কার্যক্রম শুরুর পর বুড়িগঙ্গা আদি চ্যানেলের প্রশস্ততা ১০ গুণ বৃদ্ধি পেয়েছেঃ ঢাদসিক মেয়র ব্যারিস্টার শেখ তাপস
.............................................................................................
এইডস রোগে চোখের জটিলতা
.............................................................................................
দেশে আক্রান্তদের ২৬ শতাংশই রোহিঙ্গা
.............................................................................................
দেশে আক্রান্তদের ২৬ শতাংশই রোহিঙ্গা
.............................................................................................
সমকামী-যৌনকর্মীদের মধ্যে এইচআইভি সংক্রমণ বেশি
.............................................................................................
বিদেশ ফেরতদের এইচআইভি পরীক্ষা করা প্রয়োজন: স্বাস্থ্যমন্ত্রী
.............................................................................................
দেশে একবছরে এইডসে মৃত্যু ২৩২, আক্রান্ত ৯৪৭
.............................................................................................
দেশে এইডস রোগী ১৪ হাজার
.............................................................................................
এইডস ঝুঁকিতে ২৩ জেলা
.............................................................................................
 বিএনপির সমাবেশ নিয়ে মানুষ আতঙ্কে আছে: ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................
 কাগজ সংকটে বন্ধ ছাপানো, শিক্ষার্থীদের বই পাওয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা
.............................................................................................
বিদ্যুতের দাম বাড়ছেই, ঘোষণা দুপুরে
.............................................................................................
 অর্ধশত শিল্প ও অবকাঠামো উদ্বোধন করলেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
৮০ হাজার টাকা বেতনের চাকরিতে যোগ দিচ্ছেন দুদকের শরীফ
.............................................................................................
প্রবাসীদের এনআইডি বিতরণ নিয়ে পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয়-ইসি ‘রেষারেষি’
.............................................................................................
ডলার সংকটে কমেছে আমদানি, রপ্তানি শূন্যের কোটায়
.............................................................................................
২০ নভেম্বর ৫০ কারখানা-অবকাঠামো উদ্বোধন করবেন প্রধানমন্ত্রী
.............................................................................................
১৩ ঘণ্টা পর ধর্মঘট প্রত্যাহার করলেন লাইটার শ্রমিকরা
.............................................................................................
চট্টগ্রামে টিসিবি পণ্য পাবে ৫ লাখ ৩৫ হাজার পরিবার
.............................................................................................
বঙ্গবন্ধু রেলসেতুর কাজের অগ্রগতি ৪৭ শতাংশ
.............................................................................................
আইএমএফের কঠিন শর্ত মেনে নেব না: ওবায়দুল কাদের
.............................................................................................

|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
|
প্রকাশক: রিনা বেগম
প্রধান সম্পাদক : মো: হাবিবুর রহমান
প্রকাশক কতৃক ৫১/৫১ এ পুরানা পল্টন থেকে প্রকাশিত । সোনালী প্রিন্টিং প্রেস ২/১/এ ইডেন ভবন ১৬৭ ইনার সার্কুলার রোড মতিঝিল, ঢাকা-১০০০ থেকে মুদ্রিত । বার্তা ও বানিজ্যিক কার্যালয় : ৫১/৫১ এ পুরানা পল্টন (৪র্থ তলা) , ঢাকা - ১০০০।
ফোন: ০২২২৩৩৮০৮৭২ , মোবাইল: ০১৭১১১৩৬২২৬

Web: www.bhorersomoy.com E-mail : dbsomoy2010@gmail.com
   All Right Reserved By www.bhorersomoy.com    
Dynamic SOlution IT Dynamic POS | Super Shop | Dealer Ship | Show Room Software | Trading Software | Inventory Management Software Computer | Mobile | Electronics Item Software Accounts,HR & Payroll Software Hospital | Clinic Management Software Dynamic Scale BD Digital Truck Scale | Platform Scale | Weighing Bridge Scale Digital Load Cell Digital Indicator Digital Score Board Junction Box | Chequer Plate | Girder Digital Scale | Digital Floor Scale